Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০২-২২-২০১৬

মেসি সবসময় আর্জেন্টিনার ত্রাণকর্তা নয়

মেসি সবসময় আর্জেন্টিনার ত্রাণকর্তা নয়

ওয়াশিংটন, ২২ ফেব্রুয়ারী- গত বছর লিওনেল মেসির আর্জেন্টিনা ২২ বছরের শিরোপা খরা কাটাবার লক্ষ্য নিয়ে কোপা আমেরিকার ফাইনালে মাঠে নামে। আর আর্জেন্টাইনদের প্রতিপক্ষ হয়ে ৯৯ বছর শিরোপা থেকে নিষ্ফলা থাকার যন্ত্রণায় কাতর চিলি নিজেদের মাটিতে একটি মেগা শিরোপা জিততে লড়াইয়ে নামে। সেবার ঘরের মাঠে জেরার্ডো মার্টিনোর শিষ্যদের ফাইনালে পেনাল্টির মাধ্যমে হারিয়ে শেষ হাসি হেসেছিল অ্যালেক্সিস সানচেজ, ক্লদিয়ো ব্রাভো, ভিদালরা।

কোপা আমেরিকার ৪৪তম আসরের ফাইনালে এস্তাদিয়ো ন্যাসিওনাল মার্টিনেজ, সান্তিয়াগোতে গত বিশ্বকাপের রানার্সআপ আর্জেন্টিনাকে টাইব্রেকারে ৪-১ এ হারিয়ে কোপার নতুন চ্যাম্পিয়ন হয় চিলি।

যুক্তরাষ্ট্রে কোপা আমেরিকার শততম বার্ষিকী উপলক্ষে এক বছর পরই আবরো আসরটি অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এরই মধ্যে নিউইয়র্কে হয়ে গেছে টুর্নামেন্টের ড্র। যেখানে গ্রুপ ‘ডি’ তে খেলতে হবে গতবারের দুই ফাইনালিস্ট আর্জেন্টিনা ও চিলিকে। এছাড়া এই গ্রুপে আরও রয়েছে বলিভিয়া ও পানামা।

গতবারের শিরোপা জয়ী দলটিকে নিয়ে মোটেই ভীত নন আর্জেন্টাইন কোচ জেরার্ডো মার্টিনো। ড্র অনুষ্ঠানের পর তিনি জানান, দলের মূল অস্ত্র হিসেবেই থাকবেন মেসি। তাকে গুরুত্ব দিয়েই তৈরি হবে আর্জেন্টাইনদের আক্রমণভাগের পরিকল্পনা।

গতবার মেসি আর্জেন্টিনাকে ফাইনালে তুললেও গোলের দেখা পেয়েছিলেন মাত্র একবার। সতীর্থদের দিয়ে গোল করিয়েছিলেন আরও তিনবার। মেসি প্রসঙ্গে আর্জেন্টাইন কোচ জানান, ‘মেসি দলের একমাত্র ত্রাণকর্তা নয়। সবসময় সে একাই দলকে জেতাতে পারবে না। পুরো দলের প্রয়োজন মেসিকে সাহায্য করা। সে যেভাবে দলকে আগলে রাখে, দলের অন্যান্য সদস্যদেরও ঠিক সেভাবেই দলকে আগলে রাখতে হবে। মেসিকে বাকিদের সমর্থন দিতে হবে।’

জুনের ০৩ থেকে ২৬ তারিখ পর্যন্ত এবারের আসরটি মাঠে গড়াবে। ১৬ দলের অংশগ্রহনে খেলা হবে মোট ১০টি ভেন্যুতে।

আর্জেন্টিনাকে গ্রুপপর্বের ম্যাচে আমেরিকার সান্তাক্লারা, শিকাগো আর সিয়াটলের মাঠে নামতে হবে। দূরত্বকে কিছুটা সমস্যা হিসেবেই মনে করছেন মার্টিনো। তবে, নিজের শিষ্যদের উপর আত্মবিশ্বাস রেখেই তিনি জানান, আমরা আসরের আগেই সেখানে পৌঁছাবো। ওখানকার আবহাওয়ার সাথে নিজেদের খাপ খাইয়ে নিতে সমস্যা হলে আমি ছেলেদের উপর বিশ্বাস রাখছি তারা পারবে।

২৩ বছর ধরে আর্জেন্টিনায় যায়নি বড় কোনো শিরোপা। ১৯৯৩ সালে গ্যাব্রিয়েল বাতিস্তুতা, দিয়েগো ম্যারাডোনা আর দিয়েগো সিমিওনেরা আর্জেন্টিনাকে কোপার শিরোপা পাইয়ে দিয়েছিলেন। সেটিই ছিল দেশটির শেষ মেগা কোনো ইভেন্টের শিরোপা জয়ের স্বাদ। শিরোপা খরা কাটাতে এবার দৃঢ় প্রতিজ্ঞ বিশ্বসেরা স্ট্রাইকারদের নিয়ে গড়া আক্রমণভাগের আর্জেন্টিনা। জেরার্ড মার্টিনোর দলটিতে রয়েছেন মেসি, সার্জিও আগুয়েরো, কার্লোস তেভেজ, ডি মারিয়া, হিগুয়েনদের মতো তারকারা। দু’বারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনা এ শিরোপা জিততে পারলে কোপা টুর্নামেন্টে উরুগুয়ের সর্বোচ্চ ১৫বার শিরোপা জয়ের পাশে নাম লেখাবে। দক্ষিণ আমেরিকান ফুটবল শ্রেষ্ঠত্বের লড়াইয়ে এর আগে ১৪ বার শিরোপা জিতেছে ম্যারাডোনা-মেসির দেশটি।

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে