Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print

আপডেট : ০২-২১-২০১৬

ভাড়ায় আপত্তি নেই, যত অভিযোগ যাত্রীসেবা নিয়ে

ভাড়ায় আপত্তি নেই, যত অভিযোগ যাত্রীসেবা নিয়ে

ঢাকা, ২১ ফেব্রুয়ারী- নতুন বর্ধিত ভাড়া নিয়ে যাত্রীদের তেমন কোনো আপত্তি নেই। আপত্তি শুধু যাত্রীসেবা নিয়ে। ভাড়া বাড়ায় রেলের যাত্রীসংখ্যায়ও কোনো প্রভাব পড়েনি। অনেকে শঙ্কা প্রকাশ করেছিলেন যে, ৭-৯ ভাগ ভাড়া বৃদ্ধির কারণে অনেকেই হয়তো রেল থেকে মুখ ফিরিয়ে নেবেন। কিন্তু সকালে রাজধানীর কমলাপুর রেলস্টেশনে গিয়ে দেখা যায় রেলে যাত্রীদের চাপ আগের মতোই। চট্টগ্রাম রেলস্টেশনেও একই অবস্থা।

কথা হয়, রাজধানীর কমলাপুর রেলস্টেশনে আলম নামের এক যাত্রীর সঙ্গে।  রেলের বর্ধিত ভাড়া নিয়ে তার প্রতিক্রিয়া জ্নতে চাইলে তিনি বলেন, “ভাই, ভাড়া বাড়লে তো আমাদের ওপর চাপ কিছুটা পড়েই। তবে রেলের স্বার্থে আমদের এটা মেনে নিতে আপত্তি নেই। আপত্তির জায়গাটা হচ্ছে সেবা নিয়ে।” তিনি বলেন, রেলের যাত্রীসেবার মান বাড়েনি বরং অনেকাংশে কমেছে। রেলের যাত্রীসেবা নিয়ে রেল কর্তৃপক্ষের কোনো ভ্রুক্ষেপই যেন নেই।

ওই যাত্রী বলেন, রেলের কক্ষগুলোর বেহাল অবস্থা, বিলম্বে ট্রেন ছাড়া ও গন্তব্যে পৌঁছা, অতিরিক্ত যাত্রীবহন করা, বাথরুমগুলোর করুণ অবস্থা থেকে শুরু করে সিটে ছারপোকার উৎপাত নিয়ে কমবেশি সবারই অভিযোগ রয়েছে।

মোজাম্মেল নামের আরেক যাত্রী বলছিলেন, ভাড়া বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে যাত্রীসেবা বাড়ানোর দিকেও কর্তৃপক্ষের নজর দেয়া উচিত। যাত্রীদের সুবিধার জন্য সব রেলস্টেশনে ইতিমধ্যে নতুন ভাড়ার তালিকা টানিয়ে দেয়া হয়েছে। আজ শনিবার থেকে সব রুটে বর্ধিত ভাড়ায় যাত্রীদের চলাচল করতে হবে।

প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদনের পরিপ্রেক্ষিতেই এ ভাড়া বাড়ানো হয়। এখন থেকে প্রতি বছরই ভাড়া বাড়ানো হবে বলে জানা গেছে। দীর্ঘ ২০ বছর পর ২০১২ সালে বাংলাদেশে ট্রেনের ভাড়া বাড়ানো হয়, কিলোমিটার প্রতি গড় ভাড়া ২৪ পয়সা থেকে বাড়িয়ে করা হয় ৩৬ পয়সা। রেলওয়ে সূত্র জানায়, যাত্রী পরিবহন ছাড়াও পার্সেল, মালামাল ও কন্টেইনার পরিবহনে ভাড়া পুনর্নির্ধারণ করা হয়েছে। নতুন ভাড়ায় রুট ভেদে সাড়ে ৭ থেকে ৯ শতাংশ বাড়ানো হয়েছে।

নতুন হারে ঢাকা-চট্টগ্রাম রুটে শোভন শ্রেণির ভাড়া ২৬৫ টাকা থেকে বেড়ে ২৮৫ টাকা, শোভন চেয়ার ৩২০ থেকে ৩৪৫, এসি চেয়ার ৬১০ থেকে ৬৫৬, এসি সিট ৭৩১ থেকে ৭৮৮ ও এসি বার্থ ১০৯৩ থেকে ১১৮৯ টাকা হবে।

ঢাকা-খুলনা রুটে শোভন শ্রেণির ভাড়া ৩৯০ টাকা থেকে বেড়ে হবে ৪২০ টাকা, শোভন চেয়ার ৪৬৫ থেকে ৫০৫, এসি চেয়ার ৮৯১ থেকে ৯৬১, এসি সিট ১০৭০ থেকে ১১৫৬ ও এসি বার্থ ১৫৯৯ থেকে বেড়ে হবে ১৭৩১ টাকা।

ঢাকা-সিলেট রুটে শোভন শ্রেণির ভাড়া হবে ২৬৫ টাকা, শোভন চেয়ার ৩২০, এসি চেয়ার ৬১০, এসি সিট ৭৩৬ ও এসি বার্থ ১০৯৯ টাকা। ঢাকা-রাজশাহী রুটে এসব শ্রেণির ভাড়া হবে ৮৫, ৩৪০, ৬৫৬, ৭৮২ ও ১০৬৮ টাকা। অন্যান্য রুটেও প্রায় একই হারে বাড়ছে যাত্রী ভাড়া।

চট্টগ্রাম থেকে ঢাকা আইসিডি পর্যন্ত বিভিন্ন ধরনের কনটেইনার পরিবহন ভাড়া ছিল ৯০০০ থেকে ২১০০০ টাকা। তা বেড়ে হচ্ছে ৯৭০০ থেকে ২২৬০০ টাকা। ভাড়া বাড়ানো হয়েছে ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম আইসিডিতে কনটেইনার নেয়ারও।

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে