Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 1.5/5 (2 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০২-২১-২০১৬

শহরের প্রার্থী না বদলানোর ইঙ্গিত মমতার

শহরের প্রার্থী না বদলানোর ইঙ্গিত মমতার
আলোচনা। শনিবার মুখ্যমন্ত্রীর কালীঘাটের বাড়িতে।

কলকাতা, ২১ ফেব্রুয়ারী- দক্ষিণ ২৪ পরগনার দলীয় নেতৃত্বের বৈঠকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছিলেন, সাতগাছিয়া থেকে এ বারও প্রার্থী হবেন সোনালি গুহ-ই। একই ভাবে নানা অভিযোগ থাকলেও বেলেঘাটা থেকে এ বারও পরেশ পালকেই প্রার্থী করছেন মমতা। কালীঘাটে নিজের বাড়িতে শনিবার দলের কলকাতা জেলার বৈঠকে এ কথা ঘোষণা করেছেন তিনিই। 

দলীয় সূত্রের খবর, তৃণমূল নেত্রী কিছু দিন ধরেই অভিযোগ পাচ্ছিলেন, পরেশবাবু স্থানীয় কাউন্সিলরদের সঙ্গে সমন্বয় রেখে কাজ করছেন না। ফলে দলের একাংশের ধারণা হয়, এ বার আর পরেশবাবু বেলেঘাটায় মনোনয়ন পাবেন না। কিন্তু মমতা এ দিন স্পষ্ট জানিয়ে দেন, পরেশবাবুই বেলেঘাটা থেকে এ বার প্রার্থী হচ্ছেন। তবে স্থানীয় কাউন্সিলরদের সঙ্গে মিলেমিশে পরেশবাবুকে কাজ করার পরামর্শ দিয়েছেন তৃণমূল নেত্রী। একই সঙ্গে সমন্বয়ের অভাবের অভিযোগ আর যাতে তাঁকে শুনতে না হয়, সে ব্যাপারেও পরেশবাবুকে সতর্ক করেছেন তিনি।

বৈঠকে এ দিন কলকাতার ১১টি আসনের কোনওটিতেই তৃণমূলের প্রার্থী তালিকায় খুব একটা রদবদল না করারই ইঙ্গিত দিয়েছেন মমতা। তৃণমূল নেতৃত্বের একাংশের ব্যাখ্যা, কলকাতার ক্ষেত্রে কোনও ঝুঁকি নিতে চাইছেন না বলেই তিনি এই ইঙ্গিত দিয়েছেন। সে জন্য কলকাতার বিধায়ক এবং কাউন্সিলরদের নিজের নিজের এলাকায় জনসংযোগে আরও বেশি জোর দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন মমতা। শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়, সুব্রত মুখোপাধ্যায়ের মতো বর্ষীয়ান নেতাদের নিজের কেন্দ্রের পাশাপাশি অন্য কেন্দ্রেও প্রচারে যেতে বলেছেন।

সকলকে ঐক্যবদ্ধ ভাবে কাজ করার বার্তা দিতে এ দিনও উত্তর কলকাতার দুই মন্ত্রী শশী পাঁজা এবং সাধন পাণ্ডেকে সতর্ক করেছেন তৃণমূল নেত্রী। ওই দুই মন্ত্রীর বিরোধ বহু দিনের। তাঁদের পরস্পরের এলাকায় হস্তক্ষেপ করতে নিষেধ করেছেন মমতা। নিজের নিজের এলাকায় কাউন্সিলর ও কর্মীদের নিয়ে একসঙ্গে কাজ করার বার্তাও দিয়েছেন তাঁদের। উত্তর কলকাতার কাশীপুরে স্বপন চক্রবর্তী এবং আনোয়ারের গোষ্ঠীদ্বন্দ্বেও তৃণমূলের ভাবমূর্তি বার বার কালিমালিপ্ত হয়েছে। সম্প্রতি স্বপনবাবুকে অস্ত্র আইনে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। স্বপনবাবু এবং আনোয়ারের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব ভবিষ্যতে যাতে দলের বিড়ম্বনা আর না বাড়ায়, সে জন্য স্থানীয় বিধায়ক মালা সাহাকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন মমতা। আলিপুরের গোপালনগরে ৭৪ নম্বর এবং ১০৮ নম্বর ওয়ার্ডের ব্লক সভাপতিদেরও সতর্ক করেছেন তিনি। ফের অভিযোগ পেলে তাঁদের দল থেকে বহিষ্কারের হুঁশিয়ারিও দিয়েছেন তৃণমূল নেত্রী।

পশ্চিমবঙ্গ

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে