Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০২-১৭-২০১৬

৬ উপায়ে নিরাপদ রাখুন ফেসবুক অ্যাকাউন্ট

৬ উপায়ে নিরাপদ রাখুন ফেসবুক অ্যাকাউন্ট

জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক ব্যবহারকারীরা নিজেদের অ্যাকাউন্টকে নিরাপদ রাখতে চান। ব্যক্তিগত ফেসবুক অ্যাকাউন্টে থাকে অনেক প্রয়োজনীয় ছবি, স্ট্যাটাস এবং মেসেজ। যদি আপনার পরিচিত বন্ধুর সংখ্যা ফেসবুকে ১০০ ছাড়িয়ে যায় তাহলে আপনিও নিতে পারেন ফেসবুকে কিছু বাড়তি সতর্কতা।  আপনার সিকিউরিটি এবং প্রাইভেসি সেটিংগুলো আরেকবার চেক করে নিন।

চালু করুন লগইন সতর্কতা : ফেসবুক অ্যাকাউন্টে ব্যবহার করুন জটিল পাসওয়ার্ড। এই জটিল পাসওয়ার্ডও হ্যাক হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা আছে। তাই চালু করে নিন লগইন অ্যাপ্রুভাল। সেটিংস এ প্রবেশ করে সিকিউরিটি অপশনে গিয়ে আপনি আপনার লগ ইন অপশন চালু করতে পারেন। এক্ষেত্রে ফেসবুকে আপনার ফোন নম্বরটি সংরক্ষণ করে রাখবে। যখনি কোন মোবাইল বা ল্যাপটপ অথবা ইলেক্ট্রনিক ডিভাইস থেকে আপনার অ্যাকাউন্টে প্রবেশ করবে তখনি আপনার মোবাইলে একটি বিশেষ কোড সহ এসএমএস চলে আসবে। আর ঐ মোবাইল বার্তায় আসা মেসেজের কোডটি সিকিউরিটি অপশনে লেখার পর আপনি আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্টে প্রবেশ করতে পারবেন। এক্ষেত্রে অন্য কারও প্রবেশের সুযোগ নেই। 

ব্যবহার করুন প্রাইভেসি চেকআপ টুলস: আপনি যদি ডেস্কটপ অথবা ল্যাপটপে ফেসবুক ব্যবহার করে থাকেন, তাহলে ফেসবুক আপনাকে একটি প্রাইভেসি শর্টকাট দেখাবে। এটি স্ক্রিনের ডান পাশের ওপরের দিকে থাকবে। অ্যাপেল এবং অ্যানড্রয়েড ডিভাইসে এই শর্টকাটে প্রবেশ করা যাবে মেন্যু থেকে। আর মেন্যু পাওয়া যাবে মোবাইলের ফেসবুকের ডান দিকের তিনটি সমান্তরাল লাইনে। ‘হু ক্যান সি মাই স্টাফ’ এই অপশন থেকেই আপনি ঠিক করতে পারবেন আপনার ছবি বা স্ট্যাটাস সবাই দেখবে না বন্ধু বান্ধব দেখবে বা আপনার পরিবার অথবা সহকর্মীরা দেখবে। ‘টাইমলাইন এবং ট্যাগিং’ অপশন থেকে কেউ আপনাকে ট্যাগ করলেও অন্যরা যাতে দেখতে না পায় আপনার অনুমতি ছাড়া এমন একটি পরিবর্তন আপনি আনতে পারেন।  

অপ্রয়োজনীয় বন্ধুদের বাদ দিন : বন্ধু কখনো অপ্রয়োজনীয় হয় না। তবুও সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম বলে অনেক অপরিচিত হয়তো আপনার বন্ধু সাঁরিতে যোগ হয়েছে। যারা আপনার সাথে নিয়মিত যোগাযোগ করে না বা আপনারও যোগাযোগ করতে হয় না অথবা তাদের পোস্টেও আপনার কেন আগ্রহ নেই, এমন বন্ধুকে বাদ দিন। আর বাদ না দিলেও অন্য আরও দুটি ভাগে তাদের রাখতে পারেন। একটি হল ‘একুয়াইনটেন্স’ বা পরিচিত আর অন্যটি হল ‘রেসট্রিকটেড’ অথবা সীমাবদ্ধ। এ দুটি ক্যাটাগরি আপনি কোন বন্ধুর প্রোফাইল খুলে ‘ফ্রেন্ড’ বা বন্ধু অপশনে গিয়ে নির্ধারণ করতে পারেন। পরিচিত ভাগে যাদের রাখবেন তারা আপনার কোন আপডেট পাবে না তবে তারা চাইলে আপনাকে খুঁজে বের করে আপনার স্ট্যাটাস অথবা ছবি দেখতে পারবে। আর সীমাবদ্ধ সাঁরিতে যারা থাকবে তারা আপনার পাবলিক পোস্ট ছাড়া আর কিছু দেখতে পারবে না। 

আপনার নিউজ ফিড প্রেফারেন্স চেক করুন : আপনার নিউজ ফিড প্রেফারেন্স থেকে কোন বন্ধুর একটিভিটিজ আপনি বেশি দেখতে চান এবং কারটা দেখতে চান না তা নির্ধারণ করতে পারবেন।এই সেটিংস টি আপনি পাবেন ডান পাশের ওপরের সাঁরিতে। আপনি চাইলেই আপনার ভিডিও সেটিং ও ঠিক করতে পারবেন। ‘অটো প্লে’ অপশন বন্ধ বা চালু করতে পারবেন। 

অ্যাপসগুলো চেক করুন : ফেসবুকের মাধ্যমে আপনি যেসব অ্যাপস বা গেম খেলেছেন সেগুলো নতুন করে চেক করুন। সেটিংস থেকে অ্যাপস সেটিং এ গিয়ে আপনার প্রয়োজনমত অ্যাপস কিভাবে আপনার অ্যাকাউন্ট অ্যাকসেস করবে তা নির্ধারণ করে দিন। 

আপনার ‘লিগেছি কনটাক্ট’ ঠিক করে নিন: দুটি সেটিংস আপনার মৃত্যুর পর বা কোন সমস্যায় পড়লে দ্বিতীয় অপশন হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন। এক্ষেত্রে আপনি ট্রাস্টেড বা বিশ্বস্ত কনটাক্ট যোগ করতে পারবেন। যাদের আপনি এই বিশ্বস্ত সারিতে রাখবেন তারা আপনার একাউন্ট লক হয়ে গেলে  আপনাকে সাহায্য করতে পারবে। ‘লিগেছি কনটাক্টে’ আপনি যাদের যোগ করবেন তারা আপনার একাউন্টের অ্যাডমিনিস্ট্রেটর হিসেবে কাজ করতে পারবে। তবে তারা আপনার হয়ে স্ট্যাটাস আপডেট বা আপনার মেসেজ পড়তে পারবে না কিন্তু নতুন কোন বন্ধুকে যোগ করতে পারবে। এই মেন্যুটি আপনি সিকিউরিটি অপশনে গেলে পাবেন। 

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে