Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০২-১৫-২০১৬

সক্রিয় থাকতে ও ওজন কমাতে সহায়ক ব্রেকফাস্ট

সক্রিয় থাকতে ও ওজন কমাতে সহায়ক ব্রেকফাস্ট

ওজন কমাতে ও তরতাজা থাকতে বলে সকালের জলখাবার কোনওভাবেই বাদ দেওয়া উচিত নয়। সকালের খাবার খেলে শারীরিক ভাবে সক্রিয় থাকা যায় এবং দিনের পরবর্তী সময়ে খাবার খাওয়ার পরিমাণ কম হয়। একটি গবেষণায় এই তথ্য জানা গিয়েছে। গবেষণাকারী দলের পক্ষ থেকে জানা গেছে, যাঁরা শারীরিক পরিশ্রম কম করেন, তাঁদের শারীরিক সক্রিয়তা বাড়লে ব্লাড সুগার নিয়ন্ত্রণে সহায়ক হয়।

ব্রিটেনের বাথ ইউনিভার্সিটির গবেষকদলের প্রধান জেমস বেট জানিয়েছেন, ব্রেকফাস্ট করা উচিত কিনা, তা নিয়ে নানা জনের নানা মত রয়েছে। কিন্তু ব্রেকফাস্ট কীভাবে স্বাস্থ্যের ওপর প্রভাব ফেলে তার একাধিক বৈজ্ঞানিক প্রমাণ রয়েছে। এই গবেষণায় সেই প্রভাবের কিছু বিষয় জানা গিয়েছে। তবে ব্রেকফাস্ট কতটা গুরুত্বপূর্ণ, তা ব্যক্তি ও তাঁদের নিজস্ব লক্ষ্যের ওপর নির্ভরশীল।

গবেষণাকারী দল ব্রেকফাস্টের সঙ্গে শরীরে ওজন ও স্বাস্থ্যের যোগাযোগ খতিয়ে দেথতে চেয়েছিল। সেই গবেষণা রিপোর্ট আমেরিকান জার্নাল অফ ক্রিটিক্যাল নিউট্রিশন-এ প্রকাশিত হয়েছে। গবেষণায় ২১ থেকে ৬০ বছরের যে সব ব্যক্তিদের ওপর সমীক্ষা চালানো হয়েছিল, তাঁদের দুটি ভাগে ভাগ করা হয়। একদল ব্রেকফাস্ট করে এবং অন্যদল করে না। ছয়সপ্তাহ ধরে এর ফলাফল খতিয়ে দেখা হয়।

যে দলটি ব্রেকফাস্ট করত তাঁদের সকাল ১১ টার মধ্যে কম করে ৭০০ ক্যালোরির খাবার খেতে বলা হত। আর যাঁরা ব্রেকফাস্ট করতেন না, তাঁরা দুপুর পর্যন্ত জল খেতেন। বেটস জানিয়েছেন, শুধু ওজন কমাতে চাইলে ব্রেকফাস্ট করা বা না করাতে খুব একটা ফারাক নেই। কিন্তু তরতাজা থাকা বা ব্লাড সুগার নিয়ন্ত্রণে রাখার মতো স্বাস্থ্যসম্মত জীবনধারনের অন্যান্য বিষয়ে ব্রেকফাস্ট কার্যকরী।

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে