Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০২-১৫-২০১৬

প্লেটলেট বাড়াতে সাহায্য করে যে প্রাকৃতিক উপাদানগুলো

সাবেরা খাতুন


প্লেটলেট বাড়াতে সাহায্য করে যে প্রাকৃতিক উপাদানগুলো

প্লেটলেট রক্তের এমন একটি কণিকা যা রক্ত জমাট বাঁধতে সাহায্য করে। লোহিত রক্ত কণিকা ও শ্বেত রক্ত কণিকার চেয়ে অনেক ক্ষুদ্র হয় প্লেটলেট বা অণুচক্রিকা। যখন রক্তনালী ক্ষতিগ্রস্থ হয় তখন প্লেটলেট একত্রিত হয়ে রক্তপাত বন্ধ করার জন্য কাজ করে। স্বাভাবিকভাবে প্রতি মাইক্রোলিটার রক্তে ১,৫০,০০০-৪,৫০,০০০ প্লেটলেট থাকে। যখন কোন মানুষের প্লেটলেট ১,৫০,০০০ চেয়ে কমে যায় তখন সেই অবস্থাকে থ্রম্বোসাইটোপেনিয়া বলে। আর যদি প্লেটলেটের সংখ্যা ৪,৫০,০০০ এর বেশি হয় তাহলে তাকে থ্রম্বোসাইটোসিস বলে। রক্ত পরীক্ষা করার মাধ্যমে প্লেটলেটের সংখ্যা জানা যায়। আমরা আজ থ্রম্বোসাইটোপেনিয়া সম্পর্কে জানবো।    

প্লেটলেটের সংখ্যা কমে যাওয়ার কারণ :
- অস্থিমজ্জায় পর্যাপ্ত প্লেটলেট উৎপন্ন না হওয়া।
- রোগীর রক্তস্রোতের মধ্যেই প্লেটলেট ধ্বংস হয়ে যায়।
- যকৃৎ ও প্লীহাতেই প্লেটলেট ধ্বংস হয়ে যায়।
-  নির্দিষ্ট ঔষধের  কারণে
- অটোইমিউন ডিসঅর্ডার
- লিউকেমিয়া বা লিম্ফোমা নামক ক্যান্সারের জন্য
- কেমোথেরাপি দিলে     
- কিডনি রোগের কারণে
- অ্যালকোহল সেবন

রক্তের প্লেটলেট কমে যাওয়ার লক্ষণ
কোন কেটে যাওয়া অংশ থেকে রক্তক্ষরণ হতে থাকলে, দাঁতের মাড়ি অথবা নাক থেকে স্বতঃস্ফূর্ত ভাবে রক্তক্ষরণ হলে, প্রস্রাব ও পায়খানার সাথে রক্ত গেলে, ত্বকের উপরিভাগে রক্তক্ষরণের ফলে র‍্যাশ হলে। রক্তের প্লেটলেট কমে গেলে অস্থিরতাবোধ, অবসাদ ও সাধারণ দুর্বলতাবোধ হতে পারে।

জীবনযাপনের পরিবর্তন এবং কিছু ঘরোয়া উপায়ে প্লেটলেটের পরিমাণের উন্নতি ঘটানো যায়। ঘরোয়া পদ্ধতিগুলো হল -

১। পেঁপে
পেঁপে ফল ও পেঁপের পাতা অল্প কিছুদিনের মাঝেই রক্তের প্লেটলেটের সংখ্যা বৃদ্ধি হতে সাহায্য করে। মালয়েশিয়ার “এশিয়ান ইন্সটিটিউট অফ সাইন্স এন্ড টেকনোলজি” এর গবেষকেরা ২০০৯ সালে এক গবেষণায় পান যে, ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্তদের প্লেটলেটের সংখ্যা বৃদ্ধি পায় পেঁপের জুস খেলে। দিনে ২-৩ বার পাকা পেঁপে বা পেঁপের জুস পান করুন।

২। কুমড়া
কুমড়া আরেকটি উপকারী খাদ্য যা প্লেটলেটের সংখ্যা বৃদ্ধিতে সাহায্য করে। এটি ভিটামিন এ তে সমৃদ্ধ তাই প্লেটলেটের বৃদ্ধিতে সাহায্য করে। এটি কোষের প্রোটিন উৎপাদনকে নিয়ন্ত্রণ করে যা প্লেটলেটের স্তরের উন্নতিতে প্রয়োজনীয়।

৩। ডালিম
প্লেটলেটের সংখ্যা বৃদ্ধিতে সাহায্য করে বহুমুখি ফল ডালিম। এতে উচ্চমাত্রার আয়রন থাকে। নিয়মিত ডালিম খেলে প্লেটলেট বৃদ্ধি পায়। কাঁচা বা জুস করে খাওয়া যায়। এই ফল ভিটামিনে সমৃদ্ধ তাই প্লেটলেট কমে যাওয়া সত্ত্বেও শরীরের এনার্জি বজায় রাখতে সাহায্য করে।

৪। ভিটামিন সি
প্লেটলেটের সংখ্যা বৃদ্ধির জন্য ভিটামিন সি গ্রহণের পরিমাণ বাড়াতে হবে। ১৯৯০ সালে “জাপানিজ জার্নাল অফ হিমাটোলজি” তে প্রকাশিত এক গবেষণা পত্রে জানা যায় যে, ভিটামিন সি প্লেটলেটের সংখ্যা বৃদ্ধি ঘটাতে পারে। উচ্চমাত্রার ভিটামিন সি সমৃদ্ধ খাদ্য যেমন- লেবু, কমলা, টম্যাটো, ফুটি, ঘন্টামরিচ, কিউই ও পালংশাক খান। এছাড়াও বৈচিঁ, গমঘাস, দুধ, মাছ, মুরগী, কডলিভার অয়েল ইত্যাদি গ্রহণ করলেও প্লেটলেটের সংখ্যা বৃদ্ধি পায়।         
 
লিখেছেন- সাবেরা খাতুন

পুষ্টি

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে