Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 2.5/5 (4 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print

আপডেট : ০২-১৪-২০১৬

বইমেলায় ফাগুনের আগুন

প্রান্ত পলাশ


বইমেলায় ফাগুনের আগুন

ঢাকা, ১৪ ফেব্রুয়ারী- ‘দখিন হাওয়া, জাগো জাগো/ জাগাও আমার সুপ্ত এ প্রাণ...’ প্রাণ জাগানিয়া কবি রবিঠাকুর বসন্তের দখিন হাওয়ায় এমনি করেই ভেসেছিলেন। সেই আগমনী বার্তা তিনি পৌঁছে দিয়েছেন প্রজন্ম থেকে প্রজন্মে। আজ ঋতুরাজ বসন্তের প্রথম দিন। বাংলার নিসর্গ প্রকৃতিতে দোলা দিয়েছে ফাগুনের হাওয়া। শীতের জীর্ণতা ভেঙে প্রকৃতি সেজেছে নতুন রূপে। মধুবসন্তের ফুলের সৌরভে মেতে উঠেছে চারপাশ। গাছের পাতার ফাঁকে ডেকেছে কোকিল ‘কুহু’! মৌমাছির গুঞ্জরণ, মাতাল হাওয়া প্রতি প্রাণে। শীতের আবরণে লুকিয়ে থাকা কৃষ্ণচূড়া, রাধাচূড়া জেগে উঠেছে সোনালি রোদের স্পর্শে। 

সেই স্পর্শ লেগেছে অমর একুশে গ্রন্থমেলায়ও। বইমেলা প্রাঙ্গণজুড়ে গাঁদা ফুলের রঙে সেজে এসেছে তরুণ-তরুণীরা। পরেছে বাসন্তী রঙের শাড়ি। খোঁপায় গুঁজেছে ফুল আর হাতে নানা রঙের চুড়ি। তরুণরাও বাসন্তী রঙের পাঞ্জাবি বা ফতুয়া পরে এসেছে বইমেলায়। বই কিনছে। উপহার দিচ্ছে প্রিয় বই। সেইসঙ্গে সেলফি তোলার হিড়িক। এককথায়, ফাগুনের আগুন ছুঁয়েছে বইমেলাকে।

সকালে বঙ্গবন্ধুর দৌহিত্র রেদওয়ান
গোপালগঞ্জের ছোট্ট খোকা থেকে বাঙালির মুক্তির বাতিঘর হয়ে ওঠার সময়কালের একটি বড় অংশ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কাটিয়েছিলেন কারাগারের অন্ধকার কুঠুরিতে। সেখানেই তিনি লেখেছেন তার আত্মজীবনী। যা প্রকাশ পেয়েছে ‘অসমাপ্ত আত্মজীবনী’ হিসেবে। পাঠকমহলে বিশেষভাবে সমাদৃত এ গ্রন্থটি শিশু কিশোরদের উপযোগী করে গ্রাফিক নভেল হিসেবে প্রকাশ করছে গবেষণা প্রতিষ্ঠান সেন্টার ফর রিসার্চ অ্যান্ড ইনফরমেশন (সিআরআই)। ‘মুজিব’ শিরোনামের এ গ্রাফিক নভেলের দ্বিতীয় খণ্ড এখন পাওয়া যাচ্ছে বইমেলার সিআরআইয়ের স্টলে। শনিবার সকালে বইটির মোড়ক উন্মোচন করেন বঙ্গবন্ধুর দৌহিত্র ও সিআরআইয়ের ট্রাস্টি রেদওয়ান মুজিব সিদ্দিক। 

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর, বিদ্যুৎ ও জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক, আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডা. দীপু মনি, প্রধানমন্ত্রী উপ প্রেস সচিব আশরাফুল আলম খোকন প্রমুখ। 

মোড়ক উন্মোচন শেষে রেদওয়ান মুজিব সিদ্দিক বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুর জীবনী থেকে শিশুদের অনেক কিছু শেখার আছে। শিশুরা তার জীবনী থেকে পরিশ্রম, গরিব-দুঃখীর প্রতি দয়া ও নিজের ওপর কিভাবে বিশ্বাস অর্জন করতে হয়, তা শিখতে পারবে।’

তিনি বলেন, ‘আমরা চাই, আমাদের নতুন প্রজন্ম এ গ্রাফিক নভেল পড়ে ওনার গল্পটা জানুক। বঙ্গবন্ধু মানুষটা কেমন ছিলেন, উনি কী করতেন, উনি কীভাবে বেড়ে উঠলেন, তা জানতে পারুক। সাধারণ ছেলের অসাধারণ গল্পটা সবার কাছে নিয়ে যেতে চাই।’

দুপুরে আইজিপি একেএম শহীদুল হক
দুপুরে অমর একুশে গ্রন্থমেলা প্রাঙ্গণে আসেন পুলিশের মহাপরিদর্শক একেএম শহীদুল হক। এ সময় তিনি বইমেলা প্রাঙ্গণ ঘুরে দেখেন। পরে সাংবাদিকদের বলেন, ‘আজ লোকসমাগম বেশি। বইমেলার সামগ্রিক পরিস্থিতি দেখতে মেলায় আসা। এ পর্যন্ত বইমেলায় কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। মেলায় নিরাপত্তাসহ পরিবেশ ঠিক রাখতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী যথেষ্ট সতর্ক আছে।’

বই কিনেছেন কি না সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, ‘আমি আজ বই কিনতে আসিনি। আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি দেখতে এসেছি।’

বিকেলে মুহম্মদ জাফর ইকবাল
শুক্রবার প্রথমবারের মতো এবারের বইমেলায় এসেছিলেন জনপ্রিয় লেখক মুহম্মদ জাফর ইকবাল। আজও এসেছিলেন তিনি। দুপুরে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ঢুকতেই শোনা গেল বাংলা একাডেমির তথ্যকেন্দ্রের মাইক থেকে ভেসে আসা সেই সংবাদ। নজরুল মঞ্চে তিনি বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করবেন। আর এ সংবাদ শোনামাত্র বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণের দিকে ছুটতে দেখা গেল অনেককে।

বিকেল সোয়া ৪টার দিকে নজরুল মঞ্চে আসেন মুহম্মদ জাফর ইকবাল। এ সময় তরুণ লেখক মোস্তফা মনোয়ারের ‘গণিতের হাত-পা ও রুবিক্স কিউব’ বইটির মোড়ক উন্মোচন করেন। উন্মোচন শেষে তিনি বলেন, ‘নতুন লেখকেরা অনেক কষ্ট করে বই লিখছে। তাদের বইতে রয়েছে যত্নের ছাপ। আমি চাই আরও অনেক তরুণ বই লিখবে।’ মোস্তফা আনোয়ারের বইটি গণিতপ্রিয় শিশু-কিশোরেরা পড়বে, এমনটাই আশা করেছেন তিনি।

এরপর তিনি সোহরাওয়ার্দী উদ্যান অংশের মঞ্চে মোড়ক উন্মোচন করেন এবারের বইমেলায় প্রকাশিত সকল সায়েন্স ফিকশন বইয়ের। দ্বিতীয়বারের মতো এ আয়োজন বাংলাদেশ সায়েন্স ফিকশন সোসাইটির। এ সময় উপস্থিত ছিলেন কথাসাহিত্যিক ইমদাদুল হক মিলন, উন্মাদের সম্পাদক আহসান হাবীব, কথাসাহিত্যিক ও সাংবাদিক মোস্তফা কামাল, সায়েন্স ফিকশন লেখক দীপু মাহমুদ, মিজানুর রহমান কল্লোল, রকিবুল ইসলাম মুকুল, আসিফ মেহদী প্রমুখ। সভাপতিত্ব করেন সায়েন্স ফিকশন লেখক মোশতাক আহমেদ। এরপর বিজ্ঞান বই পড়াকে উৎসাহিত করতে অনুষ্ঠিত হয় লেখক-পাঠকের অংশগ্রহণে র‌্যালি। 

‘যাত্রা হলো শুরু’
বইমেলায় ছায়াবীথি প্রকাশনী থেকে প্রকাশিত হয়েছে তানভীর অপুর ভ্রমণকাহিনি ‘যাত্রা হলো শুরু’। বইটিতে বর্ণনা করা হয়েছে পাঁচ দেশের পাঁচ শহরে ভ্রমণের কাহিনি। শহরগুলো হলো রেগভিক, ল্যাপল্যান্ড, কোপেনহেগেন, স্টকহোক ও হেলসিংকি। বইটিতে ভ্রমণবর্ণনার পাশাপাশি রয়েছে অসংখ্য আলোকচিত্র।

হরিশংকর জলদাসের ‘একলব্য’
শনিবার বিকেল ৫টায় বাংলা একাডেমির কবি শামসুর রাহমান হলে প্রকাশনা উৎসব হয় জনপ্রিয় লেখক হরিশংকর জলদাসের এপিকধর্মী উপন্যাস ‘একলব্য’-এর। মহাভারতের দুর্দমনীয় প্রান্তজন একলব্যকে নিয়ে এটি বাংলাভাষায় রচিত প্রথম উপন্যাস, যেখানে আর্য সমাজব্যবস্থার পাশাপাশি ব্রাত্যজনের জীবনও সুনিপুণভাবে এঁকেছেন লেখক। বইটি প্রকাশিত হয়েছে অন্যপ্রকাশ থেকে। প্রচ্ছদ করেছেন ধ্রুব এষ।

বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক শামসুজ্জামান খানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর। ‘একলব্য’ বইটি নিয়ে আলোচনা করেন কথাশিল্পী জ্যোতিপ্রকাশ দত্ত ও ইমদাদুল হক মিলন। স্বাগত বক্তব্য দেন অন্যপ্রকাশের প্রধান নির্বাহী মাজহারুল ইসলাম।

অর্থমন্ত্রীর রচনাবলির পাঠ উন্মোচন
উৎস প্রকাশনী প্রকাশ করেছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের রচনাবলি। ১০ খণ্ডে এ রচনাবলি প্রকাশিত হয়েছে। শনিবার সন্ধ্যা ৬টায় বাংলা একাডেমির শামসুর রাহমান হলে বইগুলোর পাঠ উন্মোচন করা হয়। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেছেন ইমেরিটাস অধ্যাপক ড. আনিসুজ্জামান। আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব কামাল লোহানী, বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক শামসুজ্জামান খান ও অর্থনীতিবিদ ড. কাজী খলীকুজ্জামান আহমদ।

শনিবারের আয়োজন
সকাল ১০টায় বাংলা একাডেমির মূল মঞ্চে অনুষ্ঠিত হয় শিশুকিশোর সাধারণ জ্ঞান ও উপস্থিত বক্তৃতা প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত পর্ব। প্রতিযোগিতায় বিচারক ছিলেন শিশুসাহিত্যিক সুজন বড়ুয়া, নাট্যজন মাসুম রেজা এবং বাংলা একাডেমির পরিচালক শাহিদা খাতুন। বিকেল ৪টায় গ্রন্থমেলার মূলমঞ্চে অনুষ্ঠিত হয় ‘বাংলাদেশে মুক্তিযুদ্ধচর্চা : অতীত থেকে বর্তমান’ শীর্ষক আলোচনা অনুষ্ঠান। এতে প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন অধ্যাপক মেসবাহ কামাল। আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন ইতিহাসবিদ অধ্যাপক ড. সৈয়দ আনোয়ার হোসেন, ড. মোহাম্মদ সেলিম ও দিব্যদ্যুতি সরকার। সভাপতিত্ব করেন অধ্যাপক সনৎকুমার সাহা। অনুষ্ঠানের শুরুতে সদ্যপ্রয়াত কবি কায়সুল হকের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করে দাঁড়িয়ে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়। 

সন্ধ্যায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে আবৃত্তি পরিবেশন করেন আবৃত্তিশিল্পী নিমাই মণ্ডল ও তামান্না নীপা। সোহেল রহমানের পরিচালনা নৃত্য পরিবেশন করেন নৃত্য সংগঠন ‘শিখর কালচারাল অর্গানাইজেশন’-এর শিল্পীরা। এছাড়াও সঙ্গীত পরিবেশন করেন কণ্ঠশিল্পী জিনাত রেহানা, বদরুন্নেসা ডালিয়া, শ্যামা সরকার, জয় শাহরিয়ার, পল্লব গোমেজ, রাজু আহমেদ ও জুলি শারমিলী।

নতুন বই
বাংলা একাডেমির তথ্যমতে শনিবার মেলায় এসেছে ১৩৫টি নতুন বই। এর মধ্যে গল্প ২৫, উপন্যাস ২২, প্রবন্ধ ১, কবিতা ৪২, গবেষণা ৩, ছড়া ৫, জীবনী ৫, রচনাবলী ১, মুক্তিযুদ্ধ ৬, নাটক ১, বিজ্ঞান ১, ভ্রমণ ৩, চিকিৎসা/স্বাস্থ্য ১, কম্পিউটার ১, সায়েন্স ফিকশন ১ ও অন্যান্য ১৭টি। 

উল্লেখযোগ্য বইয়ের মধ্যে রয়েছে আগামী থেকে হাসনাত আবদুল হাইয়ের ‘শুচিতা’, আফসার ব্রাদার্স থেকে মুহম্মদ জাফর ইকবালের ‘যখনি জাগিবে তুমি’, মাওলা ব্রাদার্স থেকে মহাদেব সাহার ‘মধুর মুহূর্তগুলি চলে যায়’, বেঙ্গল পাবলিকেশন্স থেকে শাহ্নাজ মুন্নীর ‘থেমেছে শহর’, প্লাটফর্ম এনেছে আবু হাসান শাহরিয়ারের ‘কিছু দৃশ্য অকারণে প্রিয়’, ঝিঙেফুল এনেছে রণজিৎ কুমার বিশ্বাসের ‘দুরন্ত দুপুর’, কাব্যগ্রন্থ এনেছে তুষার আবদুল্লাহর ‘তোমাকে পাঠ করিব’, অন্যপ্রকাশ এনেছে ‘সেলিনা হোসেনের সেরা ১০ গল্প’, পূরবী বসুর ‘সেরা ১০ গল্প’, বটেশ্বর বর্ণন এনেছে আলী ইমামের ‘জাতক কাহিনী’, কথা প্রকাশ এনেছে আহসান হাবীবের ‘অরম্য রম্য’, জাতীয় সাহিত্য প্রকাশনী এনেছে ‘বাংলাদেশ কমিউনিস্ট পার্টির ভাষা আন্দোলনের দলিল সংকলন’, স্বরবৃত্ত এনেছে সেলিনা হোসেনের ‘সোনার তরীর ছোট মনিরা’, শামীম পাবলিশার্স এনেছে শাহজাহান আবদালীর ‘ছোটদের প্রিয় শেখ মুজিব’।

রোববারের আয়োজন
রোববার মেলা শুরু হবে বিকেল ৩টায় এবং চলবে রাত ৮টা পর্যন্ত। বিকেল ৪টায় গ্রন্থমেলার মূলমঞ্চে অনুষ্ঠিত হবে ‘বাংলাদেশে রবীন্দ্রচর্চা : অতীত থেকে বর্তমান’ শীর্ষক আলোচনা অনুষ্ঠান। প্রবন্ধ উপস্থাপন করবেন অধ্যাপক বিশ্বজিৎ ঘোষ। আলোচনায় অংশগ্রহণ করবেন বিশিষ্ট সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব রামেন্দু মজুমদার, অধ্যাপক করুণাময় গোস্বামী এবং বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ড. আতিউর রহমান। সভাপতিত্ব করবেন অধ্যাপক গোলাম মুরশিদ। এছাড়া প্রতিদিনকার মতো সন্ধ্যায় রয়েছে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। একইসাথে বিকেল ৪টায় বাংলা একাডেমির শামসুর রাহমান সেমিনার কক্ষে অনুষ্ঠিত হবে বিরূপাক্ষ পাল রচিত ‘সিডনির পথে পথে’ বইটির প্রকাশনা উৎসব।

সাহিত্য সংবাদ

আরও সাহিত্য সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে