Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০২-০৪-২০১৬

‘একটু ভালো ব্যবহার’ না পাওয়ার আক্ষেপ ২০ হাজার রানের মালিকের

‘একটু ভালো ব্যবহার’ না পাওয়ার আক্ষেপ ২০ হাজার রানের মালিকের
চন্দরপল, বিদায় নিতে চেয়েছিলেন মাঠ থেকেই।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নিয়েছেন। শিবনারায়ণ চন্দরপলের ‘ওয়েস্ট ইন্ডিজ-অধ্যায়’ এখন শুধুই অতীত। কিন্তু তাঁর অবসরকে ঘিরে তৈরি হওয়া বিতর্কটা যেন শেষই হচ্ছে না। ব্রায়ান লারা সোচ্চার হওয়ায় অবশেষে চন্দরপলকে আনুষ্ঠানিক একটা সংবর্ধনা দিতে রাজি হয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ড (ডব্লুআইসিবি)। এরই মধ্যে বোমা ফাটালেন চন্দরপল নিজে। ডব্লুআইসিবি তাঁকে অবসর নিতে বাধ্য করেছে বলে দাবি করেছেন সাবেক এই ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান ব্যাটসম্যান।

দীর্ঘ ২২ বছর ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে খেলেছেন। ১৬৪টি টেস্ট খেলে তাঁর ব্যাট থেকে এসেছে ৩০টি সেঞ্চুরি, সর্বোচ্চ ২০৩। ৫১.৩৭ গড়ে রান করেছেন ১১ হাজার ৮শ ৬৭। টেস্ট ইতিহাসেই ১১ হাজার রান আর আছে মাত্র পাঁচজনের। ২৬৮ ওয়ানডেতে ৪১.৬০ গড়ে তাঁর সংগ্রহ ৮ হাজার ৭শ ৭৮ রান, আছে ১১টি সেঞ্চুরি। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ২০ হাজার ৯৮৮ রান। এত এত অর্জন যার, সেই চন্দরপলের অবসর ঘোষণাটা এসেছিল তিক্ততার মধ্যে। মাঠ থেকে বিদায় নেওয়ার আকাঙ্ক্ষাটা পূরণ হয়নি।

২০১৫ সালের মের পর আর টেস্ট দলেই তো সুযোগ পাননি। ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে বিদায়ী একটা টেস্ট না খেলতে পারার আক্ষেপ যে রয়েই যাবে, সেটি স্পষ্ট চন্দরপলের কথাতেও, ‘আমি বিদায় বলার আগে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজে একটা টেস্ট খেলতে চেয়েছিলাম। কিন্তু সুযোগ পাইনি। এ বিষয়ে আমার কিছুই করার ছিল না। এখন সেটা পেছনে ফেলে এগিয়ে যেতে চাই।’

আর সুযোগ পাবেন না বুঝেই সাবেক ক্রিকেটারদের টুর্নামেন্ট মাস্টার্স চ্যাম্পিয়নস লিগে খেলার সিদ্ধান্ত নেন চন্দরপল। কিন্তু ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ড নাকি তখন তাঁকে শর্ত দেয়, যদি তিনি ২৩ জানুয়ারির মধ্যে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসরের ঘোষণা দেন, তবেই তাঁকে তাকে অনাপত্তি পত্র দেবে তারা। বাধ্য হয়েই তাই ওই তারিখে অবসরের ঘোষণা দেন চন্দরপল, ‘অবসর নেওয়ার পর আমি ডব্লুআইসিবি থেকে অনাপত্তি পত্র পেলাম। এত দিন ধরে ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে খেলার পর আমি আরেকটু ভালো আচরণ তো প্রত্যাশা করতেই পারি।’

তাঁর সঙ্গে এমন আচরণের মাধ্যমে ডব্লুআইসিবি ভবিষ্যৎ খেলোয়াড়দের জন্যও একটা বাজে উদাহরণ তৈরি করল বলে মনে করেন চন্দরপল, ‘আমার মতো একজনের সঙ্গে যদি এই আচরণ করা হয়, তাহলে তরুণ প্রজন্মের খেলোয়াড়দের সঙ্গে কী আচরণ হবে ভেবে দেখুন। স্কুলের বাচ্চাদের সঙ্গে যা করা হয়, আমার সঙ্গে তা করা হয়েছে। এর পর কী কেউ দেশের হয়ে খেলার উৎসাহ পাবে!’
আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নিলেও ঘরোয়া ক্রিকেটে খেলা চালিয়ে যাওয়ার ইচ্ছে ৪১ বছর বয়সী এই ওয়েস্ট ইন্ডিয়ানের। আর সে জন্যে তার প্রথম পছন্দ পুরোনো দল গায়ানাই, ‘আমার সঙ্গে এরই মধ্যে গায়ানার কথাও হয়েছে। দলটির চেয়ারম্যানও চান আমি তাদের হয়ে খেলি।’

এত কিছুর পর আবার যদি জাতীয় দলে ফেরার সুযোগ আসে সেটা কি নেবেন? এই প্রশ্নে চন্দরপল কিন্তু রহস্য রেখে দিলেন, ‘জীবনে যেকোনো কিছুই সম্ভব। আপনি অবসর নিতে পারেন, আবার অবসর থেকে ফিরতেও পারেন। আমি এখনো খেলার জন্য ক্ষুধার্ত। জীবনের বেশির ভাগ সময় তো এটাই করেছি।

তথ্যসূত্র: ক্রিকইনফো।

ক্রিকেট

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে