Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print

আপডেট : ০১-২৬-২০১৬

পুলিশকে জনগণের সেবক হতে বললেন প্রধানমন্ত্রী

পুলিশকে জনগণের সেবক হতে বললেন প্রধানমন্ত্রী

ঢাকা, ২৬ জানুয়ারী- আইন-শৃঙ্খলা রক্ষায় পুলিশ বাহিনির সদস্যদের সাম্প্রতিক ভূমিকার প্রসংশা করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। অপরাধের ধরন প্রতিনিয়ত বদলাচ্ছে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘মাদক, স্বর্ণ চোরাচালান, মানি লন্ডারিং, নারী পাচারসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে পুলিশকে কাজ করতে হচ্ছে। এ সঙ্গে গত কবছর ধরে সন্ত্রাসবাদ ও জঙ্গীবাদী তৎপরতার দিকেও নজর দিতে হচ্ছে পুলিশকে।’

মঙ্গলবার (২৬ জানুয়ারি) সকালে জাতীয় পুলিশ সপ্তাহের প্যারেডে অভিবাদন গ্রহণ শেষে রাজারবাগে মেট্রোপলিটন পুলিশ লাইনসের পুলিশ অডিটরিয়ামে দেয়া বক্তব্যে এ মন্তব্য করেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘পুলিশকে আধুনিক প্রযুক্তি সমৃদ্ধ বাহিনী হিসেবে গড়ে তোলার কাজ করছে সরকার।’ কর্মক্ষেত্রে বহুমুখী এসব চ্যালেঞ্জ সত্ত্বেও পুলিশ বাহিনীর সদস্যদের জনগণের বন্ধু হতে হবে বলে মন্তব্য করেন প্রধানমন্ত্রী।

তিনি আরো বলেন, ‘এ বাহিনীর দক্ষতা ও সক্ষমতা আরো বাড়ানোর উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। গত সাত বছরে পুলিশের সাংগঠনিক কাঠামোতে ৭৩৯টি ক্যাডার পদসহ ৩২ হাজার ৩১টি পদ সৃষ্টি করা হয়েছে। এ সত্ত্বেও জনসংখ্যার অনুপাতে পুলিশের জনবল যথেষ্ট নয়। তাই সরকার আরো ৫০ হাজার নতুন পদ সৃষ্টির সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ইতোমধ্যে ২৭৭টি ক্যাডার পদসহ ১৩ হাজার ৫৫৮টি পদে পুলিশ সদস্যদের নিয়োগ সম্পন্ন হয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘সরকার উন্নয়নের যে ধারা সূচনা করেছে, তাতে পুলিশ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে যাচ্ছে। দেশের শান্তি-শৃঙ্খলা ঠিক না রাখলে উন্নয়ন কর্মকাণ্ড অব্যাহত রাখা সম্ভব হতো না।’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘বাংলাদেশ পুলিশ দেশের শান্তি, নিরাপত্তা ও শৃঙ্খলার প্রতীক। অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা প্রদান, আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা ও মানবাধিকার রক্ষায় পুলিশের প্রতিটি সদস্য নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। আর এসব করতে গিয়ে অনেক সময়ই তাদের জীবনের ঝুঁকি নিতে হয়।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিএনপি-জামায়াতের সহিংসতা ও জঙ্গীবাদ দমনে ২০১৩ থেকে ২০১৫ পর্যন্ত আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর ২৬ জন বীর সদস্য জীবন দিয়েছেন। যার মধ্যে ২১ জন পুলিশ সদস্য। বিএনপি-জামায়াতে অনৈতিক কর্মসূচি সূদৃঢ় ও সাহসিকতার সঙ্গে মোকাবেলা করার জন্য পুলিশ বাহিনির সদস্যদের ধন্যবাদ জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

স্বাধীন বাংলাদেশে ১৯৭৫ সালের ১৫ জানুয়ারি প্রথম পুলিশ সপ্তাহ পালন করা হয় উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, ‘সেদিন পুলিশ সপ্তাহের উদ্বোধন করেছিলেন সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান।’

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে