Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০১-১৪-২০১৬

পরিবেশবান্ধব কারখানা স্থাপনের আহ্বান শিল্পমন্ত্রীর

পরিবেশবান্ধব কারখানা স্থাপনের আহ্বান শিল্পমন্ত্রীর

ঢাকা, ১৪ জানুয়ারি- যত্রতত্র কারখানা স্থাপন না করে পরিকল্পিতভাবে পরিবেশবান্ধব শিল্প গড়ে তোলার আহ্বান জানিয়েছেন শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু।

তিনি জানান, স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তিতে ২০২১ সালে তৈরি পোশাকশিল্পে ৫০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার রপ্তানির লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। এ লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে ব্যাকওয়ার্ড লিংকেজ হিসেবে অত্যাধুনিক গার্মেন্টস এক্সেসরিজ ও প্যাকেজিং শিল্প গড়ে তোলার বিকল্প নেই। 

১৩ জানুয়ারি রাজধানীর বসুন্ধরা ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সেন্টারে বাংলাদেশ গার্মেন্টস এক্সেসরিজ অ্যান্ড প্যাকেজিং ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যান্ড এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশন (বিজিএপিএমইএ) আয়োজিত চার দিনব্যাপী আন্তর্জাতিক গার্মেন্টস এক্সেসরিজ ও প্যাকেজিং মেশিনারিজ প্রদর্শনী উদ্বোধনকালে মন্ত্রী এসব কথা বলেন। 

বিপিজিএমইএ, জাকারিয়া ট্রেড অ্যান্ড ফেয়ার ইন্টারন্যাশনাল, এএসকে ট্রেড অ্যান্ড এক্সিবিশন প্রাইভেট লিমিটেড যৌথভাবে এ প্রদর্শনীর আয়োজন করছে।

শিল্পমন্ত্রী বলেন, আধুনিক শিল্প-কারখানা গড়ে তুললে, তৈরি পোশাকের পাশাপাশি গার্মেন্টস এক্সেসরিজ ও প্যাকেজিং খাতেও বিপুল পরিমাণ রপ্তানি আয় করা সম্ভব হবে। 

তিনি জানান, গার্মেন্টস শিল্পের জন্য চীনের সহযোগিতায় বিজিএমইএ মুন্সিগঞ্জের বাউশিয়ায় একটি গার্মেন্টস শিল্পপার্ক স্থাপনের উদ্যোগ নিয়েছে। এ শিল্পপার্কে এক্সেসরিজ ও প্যাকেজিং শিল্পের জন্য বেশ কিছু প্লট বরাদ্দ দেয়া হবে। এর পাশাপাশি একটি আধুনিক ও পরিবেশবান্ধব এক্সেসরিজ ও প্যাকেজিং শিল্পখাত গড়ে তোলার লক্ষ্যে শিল্প মন্ত্রণালয় কাজ করছে। 

এ শিল্পের জন্য একটি পূর্ণাঙ্গ ইন্সটিটিউট ও টেস্টিং ল্যাবরেটরি স্থাপন করতে শিল্প মন্ত্রণালয় থেকে জায়গা বরাদ্দ দেয়া হবে। ইতোমধ্যে বিসিককে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। খুব শীঘ্রই এর অগ্রগতি দৃশ্যমান হবে বলে মন্ত্রী জানান।

আমির হোসেন আমু বলেন, ‘বাংলাদেশ অপার সম্ভাবনার দেশ। এদেশের বিশাল জনসংখ্যা, সস্তা শ্রম এবং আভ্যন্তরীণ বিশাল বাজার শিল্পায়নের জন্য তুলনামূলক সুবিধা বাড়িয়ে দিয়েছে। ফলে রানা প্লাজা ট্রাজেডি ও তাজরীন ফ্যাশনস কারখানার অগ্নিকাণ্ডের পরও তৈরি পোশাকশিল্প উদ্যোক্তারা দমে যাননি।’

তিনি বলেন, ‘তৈরি পোশাক শিল্পে বর্তমানে এ শিল্পে প্রায় দুই লাখ শ্রমিক কর্মরত আছেন। এতে মূল্য সংযোজনের হার শতকরা ৪০ ভাগের অধিক এবং প্রতি বছর শতকরা ১৩ ভাগ হারে এ শিল্পের প্রবৃদ্ধি ঘটছে।’

অনুষ্ঠানে বিজিএপিএমইএ-র প্রেসিডেন্ট রাফেজ আলম চৌধুরীর সভাপতিত্বে আরও উপস্থিত ছিলেন অর্থ প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র  আনিসুল হক; বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি তাজুল ইসলাম এফবিসিসিআই-র প্রথম সহসভাপতি, শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন, বিজিএপিএমইএ-র প্রথম সহসভাপতি শাহজাদা মাহমুদ চৌধুরীসহ গার্মেন্টস এক্সেসরিজের শিল্প উদ্যোক্তারা উপস্থিত ছিলেন।

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে