Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 4.0/5 (2 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০১-১০-২০১৬

যে অভ্যাসগুলো আপনার পেটের মেদ তৈরির জন্য দায়ী!

নিগার আলম


যে অভ্যাসগুলো আপনার পেটের মেদ তৈরির জন্য দায়ী!

পেটের মেদ নিয়ে চিন্তার শেষ নেই! ব্যায়াম, ডায়েট ইত্যাদি কত কিছু না করছেন পেটের মেদ কমানোর জন্য। কিন্তু নিজের অভ্যাসের দিকে লক্ষ্য করেছেন কি? হ্যাঁ, আপনার কিছু প্রাত্যহিক অভ্যাস পেটের মেদ বৃদ্ধির জন্য দায়ী। এই অভ্যাসগুলো থাকলে ডায়েট, ব্যায়াম করে পেটের মেদ সাময়িকভাবে কমলেও আবার পুনরায় পেটে মেদ দেখা দিবে। তাই আজই ত্যাগ করুন এই বদঅভ্যাসগুলো।

১। ডায়েট পানীয় আসক্তি
আপনি যদি মনে করেন ডায়েট ড্রিঙ্ক স্বাস্থ্যের জন্য ভাল এবং এটি ওজন বৃদ্ধি করে না। তবে আপনি ভুল ধারণা নিয়ে আছেন। University of Texas Health Science Center ৪৭৫ জনের মধ্যে জরিপ চালিয়েছিল, সেখানে দেখা গেছে যারা ডায়েট ড্রিঙ্ক পান করেছেন তাদের ৭০% পর্যন্ত কোমর বৃদ্ধি পেয়েছে যারা ডায়েট ড্রিঙ্ক পান করেন না তাদের তুলনায়। শুধু তাই নয় যারা দুইয়ের বেশি ডায়েট ড্রিংক পান করেন তাদের ৫০০% পর্যন্ত কোমড় বৃদ্ধির তথ্য পাওয়া যায়!

২। ডেস্ক জব
ডেস্ক জব বা বসে কাজ করা স্বাস্থ্যের জন্য বিশেষত পেটের মেদ জমার প্রধান কারণ। এটি আপনার পেট, কোমর এবং পেটের আশেপাশে মেদ জমিয়ে দিয়ে থাকে। শুধু ছেলেরা নয় মহিলাদের ক্ষেত্রেও এটি প্রযোজ্য।  

৩। দেরি করে রাতের খাবার খাওয়া
এটি সত্য যে শরীর ঘুমন্ত অবস্থায় আপনার পেটের মেদ কেটে থাকে। কিন্তু তার অর্থ এই নয় আপনি ভরা পেটে ঘুমাতে যাবেন। ঘুমাতে যাওয়ার কমপক্ষে ৩ ঘণ্টা আগে রাতের খাবার শেষ করেন। ঘুমাতে যাওয়ার আগে ক্ষুধা পেলে হালকা ছোট ফল বা দুধ খেতে পারেন।

৪। মন খারাপের সময় খাওয়া
অনেকেই মন খারাপ বা মন চিন্তাগ্রস্ত হলে খাওয়া শুরু করে দিন। এটি আপনার পেটের মেদ বৃদ্ধির জন্য অনেকাংশ দায়ী। কারণ স্ট্রেসের সময় আপনার খেয়াল থাকে না, আপনি কি পরিমাণে খাবার খাচ্ছেন। স্ট্রেস বা মন খারাপের সময় খাওয়ার পরিবর্তে কয়েক গ্লাস পানি পান করুন বা ব্যায়াম করুন। এটি আপনার স্ট্রেস কমাতে সাহায্য করবে।

৫। প্রোটিনের অভাব
একজন প্রাপ্ত বয়স্ক মানুষের প্রতিদিন কমপক্ষে ২০ থেকে ২৫ গ্রাম পরিমাণে প্রোটিন খাওয়া উচিত। একজন প্রাপ্ত বয়স্ক পুরুষ অতিরিক্ত ১০ গ্রাম প্রোটিন খেতে পারে সুস্বাস্থ্যের জন্য। প্রোটিন ব্লাড সুগার লেভেল এবং ইনসুলিনের লেভেলের মধ্যে সামঞ্জস্য রাখে। এই প্রোটিনের অভাবেও আপনার পেটের মেদ জমতে পারে।

৬। টিভি দেখতে দেখতে খাওয়া
এই কাজটি অনেকেই করে থাকেন। registered dietitian nutritionist Leslie Schilling বলেন “ আপনার জন্য খাবার গ্রহণ নিয়ন্ত্রণ করা কঠিন যখন আপনি টিভি, কম্পিউটার দেখতে দেখতে খান। এটি খাবারের দিক থেকে মনোযোগ সরিয়ে নিয়ে আসে”। যার ফলশ্রুতিতে অতিরিক্ত খাবার খাওয়া হয়ে যায়।

৭। অপর্যাপ্ত ঘুম
অপর্যাপ্ত ঘুম দেহের করটিসল (স্ট্রেস হরমোন) বৃদ্ধি করে থাকে। যা চিনি খাওয়ার প্রবণতা বাড়িয়ে দিয়ে থাকে। রাত জাগা অভ্যাস থাকলে আজই বাদ দিন। আর চেষ্টা করুন ৭-৮ ঘন্টা ঘুমানোর। ব্যায়াম এবং ডায়েটের পাশাপাশি এই অভ্যাসগুলো ত্যাগ করতে পেটের মেদ হ্রাস করার জন্য। শুধু তাই নয় এই অভ্যাসগুলো স্বাস্থ্যের জন্যও অনেক ক্ষতিকর।

লিখেছেন- নিগার আলম

সচেতনতা

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে