Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০১-০৫-২০১৬

সিলেটে হচ্ছে দেশের প্রথম পাতাল বিদ্যুৎ লাইন

রফিকুল ইসলাম কামাল


সিলেটে হচ্ছে দেশের প্রথম পাতাল বিদ্যুৎ লাইন

সিলেট, ০৫ জানুয়ারি- বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো পাতাল বিদ্যুৎ লাইন স্থাপন হচ্ছে সিলেট নগরীর উপশহরে। ‘সিলেট বিভাগের বিদ্যুৎ বিতরণ ব্যবস্থা উন্নয়ন প্রকল্প’র আওতায় পরীক্ষামূলকভাবে উপশহরকে পাতাল বিদ্যুৎ লাইনের আওতায় নিয়ে আসার কাজ শুরু হবে চলতি নতুন বছরের প্রথমদিকে। সিলেট বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড এ প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করবে। প্রকল্পে ব্যয় হবে প্রায় ২৫ কোটি টাকা। সরকারের নিজস্ব অর্থায়নে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করা হবে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, বিশ্বের আধুনিক সব শহরে ওভারহেড (মাটির উপরস্থ) বিদ্যুৎ লাইনের পরিবর্তে পাতাল (মাটির নিচে) বিদ্যুৎ লাইন ব্যবহার করা হয়। বাংলাদেশের সর্বত্রই ওভারহেড বিদ্যুৎ লাইন রয়েছে। প্রতিবছর ওভারহেড লাইনে সিস্টেম লস থাকে। তাছাড়া ঝড়-তুফান কিংবা বজ্রপাতে ওভারহেড বিদ্যুৎ লাইন ক্ষতিগ্রস্থ হয়ে বিদ্যুৎ সঞ্চালন বাধাগ্রস্থ হয়। এছাড়া অনেক সময়ই গাছপালার ডাল বিদ্যুৎ লাইনের উপর ভেঙে পড়ে। এতে করে দেশে প্রতিবছর বিদ্যুৎ ব্যবস্থা ব্যাপক ক্ষতির সম্মুখীন হয়। কিন্তু পাতাল বিদ্যুৎ লাইনে এসব সমস্যা থাকে না। তারওপর পাতাল বিদ্যুৎ লাইন ব্যবস্থায় বৈদ্যুতিক তার মাটির নিচে থাকে বলে শহর-নগরের সৌন্দর্য্য বজায় থাকে; দুর্ঘটনার আশঙ্কাও অনেকটাই কমে যায়।

এসব কারণে সম্প্রতি মন্ত্রীসভায় পাতাল বিদ্যুৎ লাইন স্থাপন সংক্রান্ত একটি প্রকল্প অনুমোদন লাভ করে। মূলত ‘সিলেট বিভাগের বিদ্যুৎ বিতরণ ব্যবস্থা উন্নয়ন প্রকল্প’র মধ্যেই অন্তর্ভূক্ত হচ্ছে পাতাল বিদ্যুৎ লাইন। এ প্রকল্পের আওতায় সিলেট নগরীর উপশহরকে বেছে নেয়া হয়। তবে প্রকল্পটি এখনো জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় অনুমোদন লাভ করেনি। চলতি মাসে প্রকল্পটি একনেকের সভায় উত্থাপিত হলে তা অনুমোদন লাভ করবে বলে ধারণা করছেন সংশ্লিষ্টরা। এরপর শুরু হবে কাজ।

এদিকে ‘সিলেট বিভাগের বিদ্যুৎ বিতরণ ব্যবস্থা উন্নয়ন প্রকল্প’র আওতায় ৩৩ কেভি ও ১১ কেভি ক্যাবল লাইন, ৪০০ ভোল্টের নতুন ক্যাবল লাইন স্থাপন এবং ৩৩ ও ১১ কেভির ১৫টি উপ-বিদ্যুৎকেন্দ্র স্থাপনসহ পুরোনো লাইনকে নতুন লাইনে উন্নীত ও সংস্কার কাজ করা হবে। এসব প্রকল্প কাজে ব্যয় হবে এক হাজার ৮৬৭ কোটি টাকা। তিন বছর মেয়াদী প্রকল্প কাজ শেষ হবে ২০১৮ সালের ডিসেম্বরে।

‘সিলেট বিভাগের বিদ্যুৎ বিতরণ ব্যবস্থা উন্নয়ন প্রকল্প’র সচিব ও সিলেট বিদ্যুৎ বিতরণ বিভাগ-২ এর নির্বাহী প্রকৌশলী নজরুল ইসলাম বলেন, ‘বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো পরীক্ষামূলকভাবে পাতাল বিদ্যুৎ লাইন স্থাপন হবে সিলেটের উপশহরে। অত্যন্ত গুরুত্ব দিয়ে কাজটি করা হবে।’

উপশহরে বৃষ্টিতে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়, এতে করে পাতাল বিদ্যুৎ লাইনে সমস্যা হবে কিনা, এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘বিদ্যুৎ লাইন ভারি প্লাস্টিকে মোড়ানো থাকবে। এতে করে পানিতে ডুবে থাকলেও সমস্যা হবে না।’

উপশহরের সাড়ে সাত কিলোমিটারের ১১ কেভি লাইন মাটির নিচে স্থাপন করতে ১৫ কোটি ২৪ লাখ টাকা এবং ৪০০ ভোল্টের ২৮ কিলোমিটার লাইনকে পাতাল লাইনে স্থাপন করতে ৯ কোটি ৮০ লাখ টাকা ব্যয় ধরা হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

প্রকল্পের আহবায়ক ও সিলেট বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের প্রধান প্রকৌশলী রতন কুমার বিশ্বাস বলেন, ‘সিলেটের বিদ্যুৎ ব্যবস্থার উন্নয়নের জন্য প্রকল্পটি গ্রহণ করা হয়েছে। তবে প্রকল্পটি বাস্তবায়নকালে গ্রাহকদের কিছুটা ধৈর্য্য ধারণ করতে হবে। কেননা বিদ্যুৎ লাইন সচল রেখে প্রকল্পের কাজ করা সম্ভবপর হবে না। এজন্য সাময়িকভাবে বিদ্যুৎ লাইন বন্ধ রাখা হবে। এটুকু ত্যাগ গ্রাহকদের স্বীকার করতে হবে।’

সিলেট

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে