Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 2.5/5 (48 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৫-০৯-২০১৫

২২ বছর পর শ্বশুরবাড়ি!

২২ বছর পর শ্বশুরবাড়ি!

পঞ্চগড়, ০৯ মে- পঞ্চগড় জেলা সদরে অবস্থিত ভারতীয় গারাতি ছিটমহলের শালবাগান এলাকার মরহুম রাজ আলীর ছেলে চাঁন মিয়া (৪৩)। ২৩ বছর আগে তিনি পার্শ্ববর্তী হাড়িভাসা ইউনিয়নের ডাবরভাঙ্গা গ্রামের হাজেরা খাতুনকে বিয়ে করেন। বিয়ের পরই শ্বশুর বাড়িতে গেলে সেখানকার লোকজন ছিটবাসী হওয়ায় তাকে বিভিন্নভাবে কটাক্ষ করে। সব সময় খোটা মারে। অসহ্য হয়ে বিয়ের এক বছরের মাথায় তিনি শ্বশুর বাড়িতে যাওয়া একেবারে ছেড়ে দেন। তিনি সিদ্ধান্ত নেন যেদিন বাংলাদেশের নাগরিক হতে পারবেন সেদিনই শ্বশুর বাড়িতে যাবেন। বৃহস্পতিবার স্থল সীমান্ত চুক্তি সংক্রান্ত সংবিধান সংশোধন বিল লোকসভায় পাস হওয়ার পর তিনি শ্বশুর বাড়িতে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন।

গতকাল শুক্রবার সকালে গারাতি ছিটমহলে গিয়ে দেখা যায়, চাঁন মিয়া তার স্ত্রী হাজেরা খাতুন ও ছোট সন্তানকে নিয়ে শ্বশুর বাড়ির উদ্দেশ্যে রওয়ানা হয়েছেন।

চাঁন মিয়া বলেন, পিতা-মাতার সম্মতিতেই আমার বিয়ে হয়েছিল। কিন্তু আমার শ্বশুর বাড়িসহ আশপাশের গ্রামের লোকজন আমার সাথে এমন ব্যবহার করত যে, আমি যেন ভিন্নগ্রহ থেকে এসেছি। সব সময় আমাকে নিয়ে ঠাট্টা করত। এক সময় আমি বিরক্ত হয়েই সিদ্ধান্ত নিলাম আর শ্বশুর বাড়ি যাব না। স্ত্রীকে জানালে সেও একমত হয়। সেও ২২ বছর থেকে বাপের বাড়ি যায়নি। ছিটমহলের নাগরিক হওয়ায় আমরা অন্য সবার মত চলাফেরা করতে পারছিলাম না। সামাজিকভাবে কোন মর্যাদা ছিল না। আমরা এখন শৃংখল মুক্ত হয়েছি। আমরা এখন গর্ব করে বলতে পারব-আমরা বাংলাদেশের নাগরিক।

০৯ মে ২০১৫/০৪:০৭পিএম/স্নিগ্ধা/

পঞ্চগড়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে