Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 3.0/5 (5 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print

আপডেট : ০৮-৩০-২০১৮

তাড়াশে সর্বহারা পার্টির নামে চাঁদাবাজি

তাড়াশে সর্বহারা পার্টির নামে চাঁদাবাজি

সিরাজগঞ্জ, ৩০ আগস্ট- সিরাজগঞ্জের তাড়াশে নিষিদ্ধ ঘোষিত সর্বহারা পার্টির (পূর্ববাংলা কমিউনিস্ট পার্টি) নারী-পুরুষ সদস্যদের আনাগোনা ফের বৃদ্ধি পেয়েছে। বিশেষ করে রাতের আঁধারে বিভিন্ন গ্রামের ব্যক্তি ও ব্যবসায়ীদের কাছে চাঁদা দাবি এবং তাদের মারধরের ঘটনায় সেসব এলাকার সাধারণ জনগণের মধ্যে আতঙ্ক দেখা দিয়েছে।

ঈদুল আজহার সপ্তাহ খানেক আগে উপজেলার দেশীগ্রাম ইউনিয়নের গুড়পিপুল, ক্ষীরসিন, দোগাড়িয়াসহ কয়েকটি গ্রামের বিভিন্ন বাড়িতে সর্বহারা পার্টির লোকজন হানা দেয়।

গত ২৩ আগস্ট দোগাড়িয়া গ্রামের নুরুল ইসলামের বাড়িতে সর্বহারা পার্টি সদস্যরা হানা দিয়ে মোটা অঙ্কের চাঁদা দাবি করে। সেখানে চাঁদা না পেয়ে তাকে ও তার ছেলে মাসুদ রানাকে সেই রাতে ব্যাপক নির্যাতন করে।

বিষয়টি নুরুল ইসলাম তাড়াশ থানা পুলিশকে জানালে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে। পরে সর্বহারা দলের সদস্যরা ফের ওই বাড়িতে গিয়ে পুলিশকে খবর দেওয়ার অপরাধে হ্যান্ডমাইকে তাকে উদ্দেশ করে দেখে নেওয়ার হুমকি দেয়।

এ ঘটনার পর নুরুল ও তার ছেলে আর বাড়িতে থাকছেন না বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন।

এছাড়া ঈদের পরের দিন একটি রাজনৈতিক দলের ছাত্র সংগঠনের স্থানীয় ইউনিয়ন সভাপতি ময়নুল ইসলামকে রাতের আঁধারে কথিত সর্বহারা পার্টির একদল সদস্য চাঁদার দাবিতে বেধড়ক মারধর করে। আরও মারধর করে গুড়পিপুল গ্রামের ফজলুর রহমান ও বাবুল আক্তার নামে দুই কৃষককে।

স্থানীয়রা আরও জানিয়েছে, সম্প্রতি গুড়পিপুল গ্রামের নিমগাছী সমাজভিত্তিক মৎস্য চাষ প্রকল্পের স্থানীয় নেতা সাখাওয়াত হোসেনের কাছ থেকে চাঁদা না পেয়ে পুকুরের ডিসিআর কেড়ে নেওয়া হয়েছে।

আবার একই সময়ে ওই বাজারে হাতে লেখা পূর্ববাংলা পার্টির আদর্শ সংবলিত পোস্টার রাতের অন্ধকারে সাঁটিয়ে দেওয়া হয় বিভিন্ন স্থানে।

দেশীগ্রাম ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আব্দুল কুদ্দুস তার এলাকায় সর্বহারা পার্টির আনাগোনার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, দোগাড়িয়া ও গুড়পিপুল এলাকার কিছু ঘটনা তিনি অবগত আছেন। তিনি নিশ্চিত করেছেন তার ইউনিয়নের কয়েকটি গ্রামে কথিত সর্বহারা পার্টির নারী-পুরুষ সদস্যদের আনাগোনা বৃদ্ধি পেয়েছে।

এ বিষয়ে তাড়াশ থানার ওসি মোস্তাফিজুর রহমান জানান, নুরুলের বাড়ির বিষয়টি আমি অবগত আছি। তবে তার সঙ্গে কারও বিরোধ থেকে এ ঘটনা ঘটতে পারে। এছাড়া হ্যান্ডমাইকে হুমকি দেওয়ার বিষয়টি আমার জানা নেই।

তথ্যসূত্র: পরিবর্তন
এনওবি/২৩:২২/৩০ আগস্ট

সিরাজগঞ্জ

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে