Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 3.0/5 (5 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print

আপডেট : ০৮-২৪-২০১৮

মমতার হস্তক্ষেপে শুরু হচ্ছে কলকাতায় টিভি সিরিয়ালের শুটিং

মমতার হস্তক্ষেপে শুরু হচ্ছে কলকাতায় টিভি সিরিয়ালের শুটিং

কলকাতা, ২৪ আগস্ট- কিছুদিনবন্ধ থাকার পর আবারও শুরু হয়েছে কলকাতার বাংলা সিরিয়ালের শ্যুটিং। ভারতের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের হস্তক্ষেপে বৃহস্পতিবার গত ছ’দিনের টেলি সমস্যার সমাধান হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকেল ৪টায় সংশ্লিষ্ট সব পক্ষকে তিনি নবান্নে নিজের ঘরে ডাকেন। এরপর দীর্ঘ বৈঠক শেষে পশ্চিমবঙ্গের মুখমন্ত্রী ঘোষণা দেন- প্রবলেম একটা হয়েছিল। এখন সব মিটে গেছে। শুক্রবার থেকে সবাই কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে শুটিং করবে।’

বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন প্রবীণ অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়, প্রসেনজিৎ, মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস, প্রযোজক শ্রীকান্ত মোহতা, কলাকুশলীদের সংগঠনের নেতা তথা অরূপের ভাই স্বরূপ বিশ্বাসসহ অনেকে।

সমস্যার নিষ্পত্তির লক্ষ্যে যুযুধান সব শিবিরকে এক ছাতার নিচে টানতে এ দিনই টালিগঞ্জে ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির একটি জয়েন্ট কনসিলিয়েশন কমিটি গঠন করে দিয়েছেন মমতা। প্রতি মাসে সভা করবে এই কমিটি।

আপাতত সমস্যা সমাধানের সূত্র হল, প্রতি মাসের ১৫ তারিখের মধ্যে আগের মাসের বকেয়া মেটানো হবে। অভিনেতাদের কাজের সময়সীমা ১০ ঘণ্টা, কলাকুশলীদের ১৪ ঘণ্টা। বকেয়া মেটানো হবে ১৫ অক্টোবরের মধ্যে। 
নবান্নের ১৪ তলায় ঘণ্টা খানেকের বৈঠক শেষে মমতা সংবাদ সম্মেলন ডাকেন। 

তিনি বলেন, টালিগঞ্জ পাড়ার উপরে বিপুল সংখ্যক মানুষ ও তাদের পরিবারের ভরণপোষণ নির্ভরশীল। তাই সেখানে অচলাবস্থা তৈরি হলে সরকার চুপ করে থাকতে পারে না, সমাধানের চেষ্টা করা তাদের সামাজিক দায়বদ্ধতা। এ দিনও তিনি সেটাই করেছেন। মুখ্যমন্ত্রী নিজেও এ দিন বলেছেন, ‘এই শিল্পে হাজার হাজার লোক চাকরি করে। মা-বোনেদের পাশাপাশি ছেলেরাও দেখেন। আমি নিজেও সিরিয়ালের ভক্ত।’ 

মুখ্যমন্ত্রীর ব্যাখ্যা, ‘‘বিষয়টা খুব বড় কিছু নয়। সকলের ভূমিকাই খুব ইতিবাচক। শরীর থাকলে কখনও একটু অসুস্থতাও হয়।’

এর আগে ৭ জুলাই অরূপ বিশ্বাসের মধ্যস্থতায় প্রযোজকদের সংগঠন ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন অব টেলিভিশন প্রোডিউসার (ডব্লিউএটিপি) এবং শিল্পীদের সংগঠন, পশ্চিমবঙ্গ মোশন পিকচার্স আর্টিস্টস ফোরাম (ডব্লিউবিএমপিএএফ)-এর তরফে যৌথভাবে কিছু সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। তার মধ্যে শিল্পী-কলাকুশলীদের বকেয়া টাকা মেটানো এবং কাজের সময় ১০ ঘণ্টায় বেঁধে দেওয়া ছিল অন্যতম। তার পরেও ফের পানি ঘোলা হওয়ায় শনিবার থেকে শুটিং বন্ধ। এ ক্ষেত্রে কাজ বন্ধ রাখার আন্দোলন করছেন প্রযোজকেরাও। যদিও শিল্পীদের দাবি, তারা শুটিং করার জন্য প্রস্তুত। তবে সময়সীমা এবং বকেয়া মেটানোর দাবি মানতেই হবে।

তথ্যসূত্র: পরিবর্তন 
আরএস/ ২০ আগস্ট

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে