Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 3.0/5 (45 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print

আপডেট : ০৬-১২-২০১৮

গ্রিসে অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্ত বাংলাদেশিদের পাশে রাষ্ট্রদূত

গ্রিসে অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্ত বাংলাদেশিদের পাশে রাষ্ট্রদূত

আন্দ্রাভিদা কিলিনি, ১২ জুন- গ্রিসের আন্দ্রাভিদা কিলিনি সিটির নিয়া মানোলদায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্ত প্রবাসী বাংলাদেশি শ্রমিকদের অবস্থা ও তাদের আবাসস্থল পরিদর্শন করেছেন দেশটিতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মো. জসীম উদ্দিন। গত শনিবার (৯ জুন) ক্ষতিগ্রস্ত প্রবাসী বাংলাদেশিদের অবস্থা দেখার জন্য তিনি আন্দ্রাভিদা কিলিনি যান। এ সময় তিনি ক্ষতিগ্রস্তদের সমস্যার কথা শোনেন এবং তাদের দ্রুত পাসপোর্ট প্রাপ্তিসহ আবাসস্থল ও খাবার বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেন।

এর আগে রাষ্ট্রদূত মো. জসীম উদ্দিন আন্দ্রাভিদা কিলিনির মেয়র নাবিল মোরাডের সঙ্গে শ্রমিকের আবাসস্থলে এই দুর্ঘটনা ও এর থেকে স্থায়ীভাবে উত্তরণের উপায় নিয়ে আলোচনা করেন। তিনি প্রবাসী বাংলাদেশি কর্মীদের জন্য অস্থায়ী আবাসস্থল (ফারাঙ্গার) পরিবর্তে পাকা ও স্বাস্থ্যসম্মত বাসস্থানের ব্যবস্থা করার জন্য মেয়রের কাছে অনুরোধ জানান। মেয়র ইতিমধ্যে ক্ষতিগ্রস্তদের স্বল্পকালীন অবস্থানের জন্য পর্যাপ্ত সংখ্যক তাঁবু ও পানি সরবরাহসহ অন্যান্য সহযোগিতা প্রদানের বিষয় অবহিত করেন। তাঁরা ক্ষতিগ্রস্ত কর্মীসহ মানোলদার কৃষি সেক্টরে নিয়োজিত কর্মীদের জন্য মানোলদা ও এর নিকটবর্তী গ্রামসমূহে স্থায়ী আবাসস্থল তৈরির বিষয় পরীক্ষা করে দ্রুত তা বাস্তবায়নের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের বিষয়ে আলোচনা করেন। প্রবাসী বাংলাদেশিদের সকল প্রয়োজনে মেয়র আন্তরিকভাবে পাশে থাকবেন বলে রাষ্ট্রদূতকে আশ্বস্ত করেন।

পরে রাষ্ট্রদূত মো. জসীম উদ্দিন নিয়া মানোলদার পুলিশ প্রশাসনের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন ও ক্ষতিগ্রস্ত বাংলাদেশিদের অতিসত্বর নতুন পাসপোর্ট প্রাপ্তির জন্য পুলিশ রিপোর্ট প্রদানসহ অন্যান্য সহযোগিতা প্রদানের অনুরোধ করেন। পুলিশ প্রশাসন ফায়ার ব্রিগেডের সার্টিফিকেট প্রাপ্তি সাপেক্ষে অতি দ্রুত ক্ষতিগ্রস্ত সকল বাংলাদেশিকে প্রয়োজনীয় সকল সহায়তা প্রদানের আশ্বাস দেন।

এ ছাড়া রাষ্ট্রদূত মো. জসীম উদ্দিন পাত্রার এমপি এবং বাংলাদেশ-গ্রিস সংসদীয় ফ্রেন্ডশিপ গ্রুপের চেয়ারম্যান আন্দ্রেয়াস রেজুলিসকে সঙ্গে নিয়ে অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্ত স্থান ঘুরে দেখেন। তাঁরা আগুনের ভয়াবহ তাণ্ডবে পোড়া গ্যাস সিলিন্ডার, খাদ্যদ্রব্য ও অন্যান্য ধ্বংসাবশেষ দেখে ক্ষতিগ্রস্তদের প্রতি সমবেদনা জানান। প্রবাসীদের জন্য তাঁবু সংবলিত অস্থায়ী নতুন বাসস্থানও তাঁরা ঘুরে দেখেন ও স্বল্পসময়ে শ্রমমন্ত্রীর সঙ্গে সভা করে এ সমস্যার স্থায়ী সমাধান সম্ভব হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন। পরিদর্শনকালে রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে ছিলেন বাংলাদেশ দূতাবাসের কাউন্সেলর (শ্রম) ড. সৈয়দা ফারহানা নূর চৌধুরী।

ক্ষতিগ্রস্থ প্রবাসীদের মধ্যে পোশাক ছাড়াও চাল, ডাল, তেল, ইফতার ও খাদ্যদ্রব্য বিতরণ করা হয়। রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে এ কার্যক্রমে যোগ দেন গ্রিসের বাংলাদেশ কমিউনিটি, গ্রিসে বাংলাদেশ গার্মেন্টস অ্যাসোসিয়েশন ও আওয়ামী লীগের গ্রিস শাখার সেতারাসহ প্রবাসী সহৃদয় ব্যক্তিরা।

উল্লেখ্য, নিয়া মানোলদার কেন্দ্রে প্রায় চার শ প্রবাসী বাংলাদেশি কৃষি শ্রমিকের অস্থায়ী আবাসস্থল আগুনে পুড়ে যায়। প্রবাসী শ্রমিকেরা সে সময় খেতে কর্মরত থাকায় সৌভাগ্যক্রমে প্রাণে বেঁচে যান। তবে আগুনে তাদের টাকা পয়সা, পাসপোর্ট, পোশাক ও খাদ্যসহ সমস্ত কিছু সম্পূর্ণরূপে পুড়ে যায়। ঘটনার অব্যবহিত পরে গত শুক্রবার (৮ জুন) গ্রিসের বাংলাদেশ দূতাবাস, বাংলাদেশ কমিউনিটি ও বাংলাদেশ গার্মেন্টস অ্যাসোসিয়েশন ক্ষতিগ্রস্ত ব্যক্তিদের মধ্যে পোশাক, খাদ্য ও পানি বিতরণ করে।

পরিদর্শন কালে প্রবাসী বাংলাদেশিরা এ সংকটকালে তাদের বিনা ফিতে পুনরায় পাসপোর্ট প্রদানসহ অন্যান্য সকল সহযোগিতা প্রদানের জন্য অনুরোধ জানান।

সূত্র: প্রথম আলো
এমএ/ ০৩:১১/ ১২ জুন

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে