Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 3.0/5 (55 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print

আপডেট : ০৫-১৫-২০১৮

যুক্তরাজ্যের শীর্ষ ধনীর তালিকায় এগিয়েছেন বাংলাদেশি মিলিওনেয়ার

অদিতি খান্না


যুক্তরাজ্যের শীর্ষ ধনীর তালিকায় এগিয়েছেন বাংলাদেশি মিলিওনেয়ার

লন্ডন, ১৫ মে- যুক্তরাজ্যে এই বছর শীর্ষ ধনীদের তালিকায় আগের চেয়ে এগিয়েছেন বাংলাদেশে জন্ম নেওয়া খাদ্য প্রক্রিয়াজাত শিল্পের উদ্যোক্তা ইকবাল আহমেদ ও তার পরিবার। আগের বছরের চেয়ে পরিবারটির সম্পদ বেড়েছে এক কোটি ২০ লাখ পাউন্ড। এ বছর তাদের মোট সম্পদের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ২১ কোটি পাউন্ড। যুক্তরাজ্যের সেরা এক হাজার ধনীর নাম নিয়ে প্রকাশিত ‘দ্য সানডে টাইমস রিচ লিস্ট’ এ ইকবালের অবস্থান ৫৬০তম স্থানে। গত বছর তার অবস্থান ছিল ৫৮৪তম।

ইকবাল আহমেদ যুক্তরাজ্যের আন্তর্জাতিক বাণিজ্য বিভাগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য। দুই ভাই বিলাল ও কামালসহ ইকবাল ইউরোপে হিমায়িত খাবারের ব্যবসায়ীদের শীর্ষ স্থানীয়দের একজন। খাদ্য প্রক্রিয়াজাতকারী প্রতিষ্ঠান ‘সিমার্ক গ্রুপে’র মালিক ইকবাল ও তার পরিবার সম্পর্কে তালিকায় বলা হয়েছে, ‘৬১ বছর বয়সী এই ব্যবসায়ী ও তার ভাইয়েরা মিলে একটি পুরোনো মুদি দোকানকে একটি শীর্ষ প্রক্রিয়াজাতকারী, রফতানিকারক ও পরিবেশক প্রতিষ্ঠান ‘সিমার্ক’ এ রূপান্তর করেছেন।’

ম্যানচেস্টারভিত্তিক এই ব্যবসায়ী ২০১৬ সালে ৫ কোটি ৫৪ লাখ পাউন্ড লাভ করেছিলেন। কিন্তু পরের বছরই তিনি ৯ লাখ ৬৮ হাজার পাউন্ড লোকসান দেন। তালিকার ‍বিবৃতিতে বলা হয়, ‘বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্রে কোম্পানিটির কার্যক্রম সম্পর্কে স্বচ্ছ তথ্য থাকায় পরিবারটি তালিকায় উপরে উঠে এসেছে। ইকবাল আহমেদ ম্যানচেস্টার অভিজাত রেস্টুরেন্ট ভারমিলিয়ন ও পাশের সিননাবার নাইটক্লাবের মালিক’।

সিলেটের বালাগঞ্জে জন্ম নেওয়া ইকবাল আহমেদ ১৫ বছর বয়সে যুক্তরাজ্যে পাড়ি জমান। সেখানে তিনি বাংলাদেশ থেকে চিংড়ি আমদানি শুরু করেন। এখন তিনি জাহাজ, হোটেল ও আবাসন উন্নয়ন, সেবা ও খাদ্যের ব্যবসা করছেন।

যুক্তরাজ্যে ধনীদের তালিকায় এ বছর প্রথমবারের মতো শীর্ষে উঠেছেন রাসায়নিক উদ্যোক্তা জিম রাটক্লিফ। তার মোট সম্পদের পরিমাণ ২ হাজার ১০৫ কোটি পাউন্ড। তার পরেই আছেন ভারতীয় বংশোদ্ভূত হিন্দুজা ভাইয়েরা। শ্রীচান্দ হিন্দুজা ও গোপিচান্দ হিন্দুজার মোট সম্পদের পরিমাণ ২ হাজার ৬৪ কোটি পাউন্ড।

তালিকা সমন্বয়কারী রবার্ট ওয়াটস বলেন, যুক্তরাজ্য পরিবর্তন হচ্ছে। ‘সানডে টাইমস রিচ লিস্ট’ এ পুরোনো অর্থবিত্তধারী ও অল্প কয়েকটি শিল্প প্রতিষ্ঠানের আধিপত্যের দিন শেষ। অভিজাত ও উত্তরাধিকার সূত্রে পাওয়া সম্পত্তির অধিকারীদের ঠেলে সরিয়ে দিয়ে নতুন উদ্যোক্তারা তাদের জায়গা কেড়ে নিয়েছেন।’

ওয়াটস আরও বলেন, এখনকার শীর্ষ ধনীদের মধ্যে এমন মানুষও আছেন যারা চকলেট, সুশি, পোষা প্রাণীর খাবার ও ডিম বিক্রির মাধ্যমে ব্যবসা শুরু করেছিলেন। আমরা দেখছি অনগ্রসর জনগোষ্ঠীর অনেক মানুষ যারা ঠিকমতো পড়াশোনা করতে পারেননি, এমনকি যারা মধ্য বয়স পর্যন্ত তাদের ব্যবসা শুরুই করতে পারেননি তারাও তালিকায় স্থান করে নিয়েছেন।

২০১৮ সালকে ‘সানডে টাইমস রিচ লিস্টে’র ৩০তম সংখ্যা বের হয়েছে। এই সাময়িকীটিকে ‘যুক্তরাজ্যের সম্পদের চূড়ান্ত নির্দেশিকা’ হিসেবে দাবি করা হয়। তালিকায় দেখা গেছে, দেশটির শীর্ষ এক হাজার ধনী ও তাদের পরিবারের মোট সম্পদের পরিমাণ ৭২ হাজার ৪০০ কোটি পাউন্ড। আগের বছর তা ছিল ৬৫ হাজার ৮০০ কোটি পাউন্ড। আর কোটিপতির সংখ্যা আগের বছরের চেয়ে ১১ জন বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৪৫ জনে।

এ বছর ‘সানডে টাইমস রিচ লিস্টে’ ঢোকার জন্য একজন ব্যক্তিকে সাড়ে ১১ কোটি পাউন্ডের মালিক হতে হয়েছে। ১৯৮৯ সালে তালিকাটির শুরুর বছর যা ছিল মাত্র ৩ কোটি পাউন্ড। এছাড়া এই বছর শীষ ধনীর তালিকায় রেকর্ড ১৪১ জন নারীর নাম রয়েছে।

সূত্র: বাংলা ট্রিবিউন

আর/০৭:১৪/১৫ মে

যুক্তরাজ্য

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে