Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 3.0/5 (18 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print

আপডেট : ০৫-০৪-২০১৮

যুক্তরাজ্যে টার্নার পুরস্কারের তালিকায় লেখক নাঈম মোহায়মেন

যুক্তরাজ্যে টার্নার পুরস্কারের তালিকায় লেখক নাঈম মোহায়মেন

লন্ডন, ০৪ মে- যুক্তরাজ্যের টার্নার পুরস্কারের জন্য মনোনীত হয়েছেন লেখক নাঈম মোহায়মেন। বাংলাদেশকে নিয়ে গবেষণামূলক প্রামাণ্যচিত্র এবং প্রবন্ধের জন্য তিনি এ মনোনয়ন পেয়েছেন। প্রতিবছর এই পুরস্কারের জন্য চারজন শিল্পীকে মনোনয়ন দেওয়া হয়। মনোনয়নপ্রাপ্ত শিল্পীদের কাজ আগামী সেপ্টেম্বর থেকে জানুয়ারি মাস পর্যন্ত লন্ডনের টেট ব্রিটেন জাদুঘরে প্রদর্শিত হবে।

টার্নার পুরস্কারের জন্য মনোনয়নপ্রাপ্ত ব্যক্তিরা হচ্ছেন যুক্তরাজ্যের স্থাপত্যবিষয়ক গবেষণা সংগঠন ফরেনসিক আর্কিটেকচার ও চলচ্চিত্রকার শার্লট প্রজার, নিউজিল্যান্ডের চলচ্চিত্রকার লুক উইলিস থম্পসন ও বাংলাদেশের লেখক নাঈম মোহায়মেন।

পুরস্কারের জন্য বিবেচনা করা হয়েছে নাঈম মোহায়মেনের চারটি কাজ। এগুলো হলো তাঁর ছোট নানা সৈয়দ মুজতবা আলীকে নিয়ে ফটো ইনস্টলেশন ‘খণ্ড এগারো: কসমোপলিটনিজমের ফর্মুলায় গলদ’, প্রবন্ধ ‘মোহাম্মদ আলীর বাংলাদেশি পাসপোর্ট’, কল্পকাহিনিচিত্র ‘ত্রিপোলি বানচাল’ এবং প্রামাণ্য চলচ্চিত্র ‘দুটি সমাবেশ, একটি জানাজা’।

নাঈম মোহায়মেন বলেন, ‘আমার ইচ্ছা, পুরস্কারটি ফরেনসিক আর্কিটেকচার পাক। কারণ, ১৫ সদস্যের একটি সংগঠনকে পুরস্কারটি দিয়ে যে রাজনৈতিক ইঙ্গিত দেওয়া যায়, সেই সামষ্টিক রাজনীতিকেই আমি সমর্থন করি।’ মনোনয়ন প্রসঙ্গে টেট ব্রিটেনের পরিচালক ও পুরস্কার জুরিবোর্ডের প্রধান অ্যালেক্স ফারকুয়ার্সন বিবিসিকে বলেছেন, মনোনয়ন পাওয়া এই শিল্পীরা এখনকার সময়ের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ রাজনৈতিক ও মানবিক বিষয়গুলো সামনে এনেছেন। 

ফরেনসিক আর্কিটেকচার লন্ডনের গ্রিন ফেল টাওয়ার, পাকিস্তানের আলী ফ্যাক্টরির অগ্নিকাণ্ড ও সিরিয়ার সাঈদ নাইয়া কারাগার নিয়ে গবেষণা করেছে। লুক উইলিস থম্পসন যুক্তরাষ্ট্রে পুলিশি নির্যাতন নিয়ে নির্মাণ করেছেন চলচ্চিত্র এবং স্কটল্যান্ডের চলচ্চিত্রকার শার্লট প্রজার মুঠোফোন দিয়ে প্রাকৃতিক পরিবেশ নিয়ে চলচ্চিত্র নির্মাণ করেন।

বাংলাদেশে নাঈম মোহায়মেনের বেশ কিছু শিল্পকর্ম ও চলচ্চিত্র প্রদর্শিত হয়েছে। চলচ্চিত্র তৈরির পাশাপাশি নাঈম মোহায়মেন গবেষণামূলক প্রবন্ধ লেখেন। মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে তাঁর প্রকাশিত রচনার মধ্যে রয়েছে ‘অন্ধকারে হাতড়ানো: ১৯৭১-এর বহুমুখী বয়ান এখনো আসেনি’, ‘ইতিহাসের আদার ব্যাপারী: দৈত্যের ছায়ার নিচে দাঁড়িয়ে’ এবং ‘অপরাহ্ণের রিহার্সাল: “মুক্তির গান” যখন হয়ে যায় সাক্ষ্য প্রমাণ’।

এ বছরের ডিসেম্বর মাসে টার্নার পুরস্কার ঘোষণা করা হবে।

এমএ/ ০২:৩৩/ ০৪ মে

সাহিত্য

আরও লেখা

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে