Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 3.0/5 (5 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print

আপডেট : ০৪-১৬-২০১৮

'দু'দিনের মধ্যে মামলা প্রত্যাহার না হলে ফের আন্দোলন

'দু'দিনের মধ্যে মামলা প্রত্যাহার না হলে ফের আন্দোলন

ঢাকা, ১৬ এপ্রিল- ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও পুলিশের পক্ষ থেকে যে মামলাগুলো করা হয়েছে তা আগামী দুই দিনের মধ্যে প্রত্যাহার করা না হলে ফের আন্দোলনে নামবেন শিক্ষার্থীরা। কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের কেন্দ্রীয় সংগঠন বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ এ ঘোষণা দেয়।

সোমবার সকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় লাইব্রেরির সামনে সংবাদ সম্মেলনে সংগঠনটির পক্ষ থেকে এ ঘোষণা দেয়া হয়। এসময় সংগঠনটির আহ্বায়ক হাসান আল মামুন, যুগ্ম-আহ্বায়ক নুরুল্লাহ নূর, ফারুক আহমেদ, রাশেদ খানসহ অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

তারা বলেন, কেন্দ্রীয় কমিটির বিরুদ্ধে একটি কুচক্রীমহল জামায়াত-শিবির পরিচয় দিতে উঠেপড়ে লেগেছে। এটি পুরোপুরি মিথ্যা ও ভিত্তিহীন। আন্দোলন ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করার জন্য এটি করা হচ্ছে। আন্দোলনকারী নেতাকর্মীদের হয়রানি করলে দুর্বার আন্দোলন গড়ে তোলা হবে। প্রধানমন্ত্রী যখন ছাত্র সমাজের ক্ষোভের কথা বুঝতে পেরে দাবি মেনে নিয়েছেন, তখন একটি মহল এটি বানচালের চেষ্টা করছে।

তারা আরও বলেন, আমাদের যারা বিরোধী রাজনীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত করে বিতর্কিত করার চেষ্টা করছেন। তারা আওয়ামী লীগ ও সরকারকে বিতর্কিত করার চেষ্টা করছেন। আমাদের কেন্দ্রীয় কমিটির অন্যতম সদস্যদের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে। আমরা যদি এর বিরুদ্ধে আন্দোলন গড়ে তুলি, পালানোর পথ খুঁজে পাবেন না। বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থা আমাদের সম্পর্কে তথ্য-উপাত্ত সংগ্রহ করেছে। তারা ইতিবাচক পেয়েছে বলেই আমাদের আন্দোলনে কোনো বাধা দেয়নি। কিন্তু দেশকে অস্থিতিশীল করার জন্য আমাদের ভিন্ন পরিচয় দিয়ে আন্দোলন ভিন্নপথে প্রবাহিত করার চেষ্টা চলছে।

আরও পড়ুন : ২৪ এপ্রিল শাহবাগে মুক্তিযোদ্ধাদের মহাসমাবেশ

এসময় বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ যুগ্ম আহ্বায়ক রাশেদ খান বলেন, ইত্তেফাকে আমাকে জামায়াত-শিবির পরিচয় দিয়ে যে প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়েছে, তা সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন, বানোয়াট ও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। প্রতিবেদনে আমার বাবার নামও ভুল লেখা হয়েছে। পুরো প্রতিবেদনই মিথ্যা তথ্য দিয়ে টইটম্বুর।

সংগঠনের নেতারা আরও বলেন, বিকেল পাঁচটার মধ্যে ইত্তেফাক পত্রিকা যদি প্রতিবেদন প্রত্যাহার না করে, কাল থেকে সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও বিশ্ববিদ্যালয়ে এ পত্রিকা বর্জন করা হবে।  উপাচার্য স্যারের বাসায় যে হামলা হয়েছে, আমরাও চাই তার বিচার হোক। এ জন্য আমরা সহায়তা করতে প্রস্তুত।

সূত্র: আরটিভি
এমএ/ ০৩:০০/ ১৬ এপ্রিল

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে