Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 2.9/5 (59 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print

আপডেট : ০৩-০৬-২০১৮

বিপ্লব দেবই হচ্ছেন ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী

বিপ্লব দেবই হচ্ছেন ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী

আগরতলা, ০৬ মার্চ- প্রত্যাশিতভাবেই ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের পরবর্তী মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে বিপ্লব দেবের নাম ঘোষণা করা হয়েছে। আগরতলায় মঙ্গলবার রাজ্যের অতিথিশালায় বৈঠকে বসে বিজেপি পরিষদীয় দল। সেই বৈঠকেই বিপ্লব দেবকে পরিষদীয় দলনেতা হিসেবে বেছে নেয়া হয়েছে।তবে অপেক্ষায় ছিল চমকও। আদিবাসী নেতা জিষ্ণু দেববর্মার নাম পরবর্তী উপমুখ্যমন্ত্রী হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে।

বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের প্রতিনিধি হিসেবে নিতিন গড়কড়ী এবং জুয়েল ওরাম পরিষদীয় দলের বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন। বৈঠক শেষ হওয়ার পরে সাংবাদিক সম্মেলন করে নিতিন গডকড়ী মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে বিপ্লব দেবের নাম আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা করেন। উপমুখ্যমন্ত্রী হিসেবে জিষ্ণু দেববর্মার নামও সাংবাদিক সম্মেলনেই ঘোষিত হয়।

বাঙালি এবং আদিবাসী- উভয়ের মন জুগিয়েই যে চলতে চায় ত্রিপুরার নতুন শাসক দল, পরিষদীয় দলের বৈঠক শেষ হতেই তা স্পষ্ট হয়ে গিয়েছে। বিপ্লব দেবের ডেপুটি হিসেবে জিষ্ণু দেববর্মার নাম ঘোষণা করে বিজেপি বুঝিয়ে দিয়েছে, ভারসাম্যের পথেই হাঁটবে সরকার।

পরিষদীয় দলের বৈঠক শেষ হওয়ার পরে বিজেপি-আইপিএফটি জোটের অভিন্ন ন্যূনতম কর্মসূচি স্থির করার জন্য আরও একটি বৈঠক হয়েছে। বিপ্লব দেব ছাড়াও সে বৈঠকে হাজির ছিলেন সুনীল দেওধর এবং রাম মাধব।ছিলেন আইপিএফটি প্রধান নরেন্দ্রচন্দ্র দেববর্মাও।

আরও পড়ুন: ত্রিপুরায় নতুন সরকারের শপথ ১০ মার্চ

দ্বিতীয় বৈঠক শেষ হওয়ার পর বিজেপি এবং আইপিএফটি নেতৃত্ব রাজভবনে যান। রাজ্যপাল তথাগত রায়ের সঙ্গে দেখা করেন।

রাজভবন থেকে বেরোনোর পরে নরেন্দ্রচন্দ্র দেববর্মা জানিয়েছেন, অভিন্ন ন্যূনতম কর্মসূচি চূড়ান্ত হওয়া এখনও বাকি। মন্ত্রিসভায় গুরুত্বপূর্ণ স্থান এবং পৃথক রাজ্যের দাবি নিয়ে এখনও আলোচনা হয়নি বলে তিনি জানিয়েছেন। হিমন্ত বিশ্বশর্মার উপস্থিতিতে আগামিকাল বুধবার সে আলোচনা হতে পারে বলে জানা গিয়েছে।

রাজভবন থেকে বেরোনোর পরে বিপ্লব দেব জানিয়েছেন, ৯ মার্চ আসাম রাইফেলস ময়দানে নতুন মন্ত্রিসভা শপথ গ্রহণ করবে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং বিজেপি শাসিত রাজ্যগুলির মুখ্যমন্ত্রীরা শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত হচ্ছেন। আমন্ত্রিত হচ্ছেন বিজেপি সংসদীয় বোর্ডের সদস্যরাও।

নির্বাচন পরবর্তী হিংসা বরদাশত করা হবে না বলেও বিপ্লব দেব জানিয়েছেন। ত্রিপুরার বিভিন্ন অংশে বামফ্রন্টের কর্মী-সমর্থকরা যেভাবে আক্রান্ত হচ্ছেন, যেভাবে পার্টি অফিসগুলো আক্রান্ত হচ্ছে, তা তিনি সমর্থন করেন না বলে বিপ্লব দেব জানিয়েছেন। কড়া হাতে এর মোকাবিলা করা হবে বলে তার আশ্বাস।

সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা

আর/১৭:১৪/০৬ মার্চ

ত্রিপুরা

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে