Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 3.0/5 (70 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print

আপডেট : ০২-২০-২০১৮

গ্রিক শিল্পীর কণ্ঠে অমর একুশের গান

গ্রিক শিল্পীর কণ্ঠে অমর একুশের গান

এথেন্স, ২০ ফেব্রুয়ারি- আন্তর্জাতিক মাতৃভাষার দিবসের চেতনা ছড়িয়ে পড়েছে সারা পৃথিবীতে। অমর একুশে ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে গ্রিসে নির্মিত হয়েছে ইংরেজি গানের ভিডিও। গানের শিরোনাম ‘মাদার ল্যাংগুয়েজ ডে’। এথেন্সের বাংলাদেশ দূতাবাস অমর একুশে, মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসকে সামনে রেখে তৈরি করেছে এই গান ও মিউজিক ভিডিও।

গানটি লিখেছেন গ্রিসের বাংলাদেশ দূতাবাসের প্রথম সচিব সুজন দেবনাথ। সুর ও কণ্ঠ দিয়েছেন গ্রিক শিল্পী স্টাভরোস পাপাস্টাভরো। তাঁর সঙ্গে সহশিল্পী হিসেবে কণ্ঠ দিয়েছেন নিবেদিতা নাথ, ক্রিস মারাগোডাকিস ও জো মাইলোগ। আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের ওপর সম্ভবত এটিই প্রথম ইংরেজি গান। এই গানটিতে অমর একুশের কালজয়ী ‘আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো’ গানের প্রথম চরণ সংযুক্ত করা হয়েছে। গানটির রেকর্ড হয় এথেন্সের এনভিএম স্টুডিওতে।

বলকান অঞ্চলের সবচেয়ে বড় সংগীত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ইলিয়ন মিউজিক স্কুলের শিক্ষার্থীরা গানের মিউজিক ভিডিওতে অংশ নেয়। গ্রিস ও বাংলাদেশের নাগরিকেরা ছাড়াও অস্ট্রেলিয়া, চীন, ব্রাজিল, ইথিওপিয়া, যুক্তরাষ্ট্র, এস্তোনিয়া, স্পেন ও নেদারল্যান্ডসের বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীসহ ২১টি দেশের নাগরিক এই ভিডিওতে অংশ নেন।

ভিডিওতে অন্যান্য বিষয়ের সঙ্গে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জাতিসংঘে ঐতিহাসিক ভাষণের ভিডিও চিত্র, রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণসহ ভাষা শহীদদের চিত্র স্থান পেয়েছে।


১৬ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার এথেন্সের ইলিয়ন মিউজিক স্কুলের অডিটোরিয়ামে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে মিউজিক ভিডিওর মোড়ক উন্মোচন করেন গ্রিসে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মো. জসীম উদ্দিন। এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন ইলিয়ন সিটি করপোরেশনের ভাইস মেয়র ফটিস মারকোপোলোস, ইলিয়ন মিউজিক স্কুলের ডিরেক্টর এনা সিগুলি ও গ্রিসের শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

প্রায় চার শ গ্রিক নাগরিক ও শিশু-কিশোর উদ্বোধনী অনুষ্ঠান উপভোগ করে। অনুষ্ঠানে শিল্পী স্টাভরোস ও নিবেদিতা নাথ গ্রিক শিশু কিশোরদের সঙ্গে নিয়ে গানটি পরিবেশন করেন। অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রদূত মো. জসীম উদ্দিন বলেন, অমর একুশে ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের চেতনা সারা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়েছে। এই গান তার প্রমাণ। আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে বাংলাদেশের সুদৃঢ় উপস্থিতির স্বাক্ষর এই গান ও মিউজিক ভিডিও। এর মধ্যে দিয়ে বাংলাদেশ-গ্রিস দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক এবং সংস্কৃতি বিনিময় আরও সুদৃঢ় হলো।


রাষ্ট্রদূত তার বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বিশ্ব পরিমণ্ডলে বাংলাদেশের উজ্জ্বল উপস্থিতির কথা উল্লেখ করেন। অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন ফটিস মারকোপোলোস ও এনা সিগুলি।

মাদার ল্যাংগুয়েজ ডে গানের জন্য শিল্পী, গীতিকারসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে অভিনন্দিত করে বক্তারা বলেন, এই গানের মাধ্যমে আন্তর্জাতিক শ্রোতারা মাতৃভাষার জন্য কাজ করতে অনুপ্রাণিত হবে। তারা সকলকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন করতে আহ্বান জানান।

স্টাভরোস বলেন, মাতৃভাষা দিবসের গানে কাজ করতে পরে তিনি অত্যন্ত আনন্দিত। এর মাধ্যমে তিনি সুরে সুরে মাতৃভাষাকে ভালোবাসার জন্য বিশ্ববাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি এই চমৎকার প্রকল্পে তাকে সম্পৃক্ত করার জন্য বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত, গানটির লেখক ও পরিচালক সুজন দেবনাথকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। তিনি আশা প্রকাশ করেন তাঁর গান মানুষকে অনুপ্রাণিত করবে এবং বিশ্বব্যাপী মানুষে মানুষে সম্প্রীতি বাড়াবে।
আগামীকাল ২১ ফেব্রুয়ারি মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে বাংলাদেশ দূতাবাসে আয়োজিত অনুষ্ঠানে এই গানের ভিডিওচিত্র প্রদর্শন করা হবে।

সূত্র: প্রথম আলো

আর/১৭:১৪/২০ ফেব্রুয়ারি

অন্যান্য

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে