Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 3.3/5 (4 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print

আপডেট : ১০-১২-২০১৭

আমাকে ও মুকুল রায়কে মুখোমুখি বসে জেরা করুক সিবিআই: কুণাল

আমাকে ও মুকুল রায়কে মুখোমুখি বসে জেরা করুক সিবিআই: কুণাল

কলকাতা, ১২ অক্টোবর- বৃহস্পতিবার ১২ অক্টোবর সারদা কেলেঙ্কারি নিয়ে মুকুল রায় প্রসঙ্গে বিস্ফোরক মন্তব্য করলেন কুণাল ঘোষ৷ সাংবাদিকদের তিনি বলেন, রাজনৈতিক অবস্থানকে ব্যবহার করে সারদা তদন্তকে প্রভাবিত করা হচ্ছে৷ তৃণমূল ও মুকুল রায়, উভয়ই তদন্তকে প্রভাবিত করছে৷সারদার মুখ্য খেলোয়াড় মুকুল রায়৷ আমাকে ও মুকুল রায়কে মুখোমুখি বসে জেরা করুক সিবিআই৷

মুকুল রায়ের দল ছাড়ার প্রসঙ্গে তৃণমূলের সাসপেন্ডেড সাংসদ বলেন, দল ছাড়ার আসল কারণগুলিকে আড়াল করার জন্য কিছু অপযুক্তির আশ্রয় নিয়েছেন মুকুল রায়৷ তিনি মানুষকে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করছেন৷
কুণাল এদিন মুকুলের অনেক গোপন তথ্যই ফাঁস করেছেন৷তিনি বলেন, সোমেন মিত্রের কাছে মুকুল রায় নাকি জানিয়েছেন অরুণ জেটলি না বাঁচালে আমাকে জেলে থাকতে হত৷

যদিও কুণালের এসব কথা পাত্তা দিতে নারাজ মুকুল৷ তিনি বলেন, অরুণ জেটলির সঙ্গে ভালো সম্পর্ক থাকতেই পারে৷ কারোর বেডরুমে উঁকি দেওয়া উচিত নয়৷সারদা-নারদের তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে আদালত৷ আমাকে তদন্তের স্বার্থে যখন ডাকবে আমি তখন যাব৷অহেতুক কেউ কিছু বলতেই পারেন৷ সে উত্তর আমি দেব না৷

এবছর দুর্গাপুজোর চতুর্থীতে আমাহার্ট স্ট্রিটে রামমোহন সম্মীলনীর পুজো মণ্ডপে সাংসদ-সাংবাদিক কুণাল ঘোষ ও একদা তৃণমূলের সেকেন্ড ইন কমান্ড মুকুল রায় রায়কে একসঙ্গে দেখা যায়৷ তারপর থেকেই জল্পনা বাড়ে তাদের দুজনকে নিয়ে৷ রাজনৈতিক মহলের অনেকেই তখন বলেন, মুকুলের সঙ্গেই রয়েছেন সারদা কাণ্ডের অন্যতম অভিযুক্ত কুণাল৷ তাঁকে সঙ্গে নিয়েই তৃণমূলকে বেকায়দায় ফেলতে পারেন মুকুল৷ কিন্তু কুণালের এদিনের মন্তব্য সেই জল্পনায় জল ঢালল বলেই মনে করা হচ্ছে৷

এদিন কুণাল বলেন, মুকুল রায় সেইসময় দলে দ্বিতীয় স্থানে ছিলেন৷ আমাকে বধ করার আয়োজন তিনিই করেছিলেন৷মুকুল রায়ের মুখোশ খুলে দিতেই আমি আমার পাড়ায় তাঁকে নিয়ে এসেছিলাম৷ উনিও আমার পুজোয় পাপের প্রায়শ্চিত্য করতে এসেছিলেন৷
পরিবারতন্ত্র প্রসঙ্গে তৃণমূলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের সুরেই মুকুল রায়ে তুলোধনা করলেন কুণাল ঘোষ৷ কুণাল বলেন, উনি (মুকুল রায়) যে পরিবারতন্ত্র নিয়ে এত কথা বলছেন, উনি তৃণমূলের সেকেন্ড ইন কমান্ড ছিলেন বলেই শুভ্রাংশু রায় তৃণমূলের বিধায়ক হয়েছে৷ যদিও কুণালের এই দাবি মানতে নারাজ মুকুল৷ তিনি দিল্লিতে বলেন, যার যোগ্যতা আগে সে এমনিই এগিয়ে যাবে৷ তার জন্য পরিবারতন্ত্রের কোনও প্রয়োজন নেই৷


মুকুল রায়কে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে কুণাল বলেন, সারদা, নারদা, তৃণমূলের যে ইস্যু নিয়ে মুকুল রায় আমার সঙ্গে বসে সাংবাদিক বৈঠক করুক৷ আমি সব উত্তর দেব৷ কুণাল-মুকুল, দুজনের সঙ্গেই এখন তৃণমূলের কোনও সম্পর্ক নেই৷তারপরও এদিন হঠাৎ করে মুকুল রায়ের বিরুদ্ধে কুণাল ঘোষের আক্রমনাত্মক ব্যাটিং নিয়ে রাজ্য-রাজনীতিতে জোর চর্চা শুরু হয়েছে৷

রাজনৈতিক মহলের একাংশ মনে করছে, এইমুহূর্তে তৃণমূলনেত্রীর চোখের বিষ মুকুল রায়৷ এই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে মুকুলের নামে সমালোচনার ঝাঁঝ বাড়িয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে ঘেঁষতে চাইছেন কুণাল৷ তবে অন্য একটা অংশ মনে করছে, কুণালের এই মুকুল আক্রমণ তৃণমূলের একদা ‘চাণক্যে’রই কৌশল হতে পারে৷

তথ্যসূত্র: কলকাতা২৪×৭
এআর/১৭:২০/১২ অক্টোবর

পশ্চিমবঙ্গ

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে