Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 3.0/5 (72 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print

আপডেট : ০৮-২০-২০১৭

লক্ষ্মীপুরে আ.লীগের প্রার্থী শাহজাহান, নয়নসহ বিদ্রোহী ৩

লক্ষ্মীপুরে আ.লীগের প্রার্থী শাহজাহান, নয়নসহ বিদ্রোহী ৩

লক্ষ্মীপুর, ২০ আগষ্ট- লক্ষ্মীপুর জেলা পরিষদের উপ-নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ থেকে মো. শাহজাহানকে সমর্থন দেয়া হয়েছে। তিনি জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি।

মনোনয়নবঞ্চিত হয়ে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নুর উদ্দিন চৌধুরী নয়ন ও আরও দুই প্রার্থী বিদ্রোহী হিসেবে মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন।

রোববার (২০ আগষ্ট) বিকেল পর্যন্ত জেলা সহকারী রিটার্নিং অফিসারের কার্যালয়ে মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ সময় পর্যন্ত ৪ প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। এ নিয়ে আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা বিভ্রান্তিতে রয়েছেন।

মনোনয়ন দাখিল করেছেন- মো. শাহজাহান, নুর উদ্দিন চৌধুরী নয়ন, জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আবু তাহেরের স্ত্রী নাজমা সুলতানা চৌধুরী ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কৃষি বিষয়ক সম্পাদক আবদুল মতলব।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, মনোনয়নপত্র দাখিলকে কেন্দ্র করে নুর উদ্দিন চৌধুরী নয়নের পক্ষে সকাল থেকেই ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা মোটরসাইকেল বহর নিয়ে তার বাসার সামনে জড়ো হয়।

জেলার বিভিন্নস্থান থেকে অন্তত ৫ শতাধিক মোটরসাইকেল জড়ো করায় কিছু সময় রায়পুর-লক্ষ্মীপুর সড়কে জানজটের সৃষ্টি হয়। এ সময় নেতাকর্মীরা নয়নের পক্ষে বিভিন্ন স্লোগান দেয়।

সকাল ১১টার দিকে নয়নের বাসার নিচে কিছু জনপ্রতিনিধি ও দলীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে তিনি মতবিনিময় করেন। একপর্যায়ে নয়নের কয়েকজন অনুসারী গিয়ে মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। দুপুর ১টার দিকে দলবল নিয়ে মনোনয়নপত্র জমা দিতে আসেন মো. শাহজাহান।

দলীয় সূত্র জানায়, জেলা আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভা ১৪ আগষ্ট স্থানীয় একটি চাইনিজ রেস্টুরেন্টে অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে নুর উদ্দিন চৌধুরী নয়নকে চেয়ারম্যান পদে জেলা আওয়ামী লীগ সমর্থন দিয়ে কেন্দ্রে পাঠায়।

কিন্তু ১৭ আগষ্ট আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার মনোনয়ন বোর্ড সর্বসম্মতিক্রমে মো. শাহজাহানকে সমর্থন প্রদান করে। এর আগেও ২০১৬ সালে জেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে জেলা আওয়ামী লীগ বর্ধিত সভা ডেকে নুর উদ্দিন চৌধুরী নয়নকে সমর্থন দেয়।

তখন আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার মনোনয়ন বোর্ড মো. শামছুল ইসলামকে সমর্থন দেয়। গত ২৮ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত ওই নির্বাচনে মো. শামছুল ইসলাম বিজয়ী হন। চলতি বছরের ১৪ জুলাই শামছুল ইসলাম মৃত্যুবরণ করলে জেলা পরিষদের চেয়ারম্যানের পদটি শূন্য হয়।

আওয়ামী সমর্থিত প্রার্থী মো. শাহজাহান বলেন, আমার ত্যাগ ও শ্রমের বিষয়টি বিবেচনা করে দল আমাকে সমর্থন দিয়েছে। শেখ হাসিনার প্রতি ভোটাররা পূর্ণাঙ্গ আস্থা রেখে ঐক্যবদ্ধভাবে আমাকে জয়ী করবে। যারা দলের সিদ্ধান্ত অমান্য করবেন তাদের বিরুদ্ধে কেন্দ্রীয় নেতারা সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেবেন।

নুর উদ্দিন চৌধুরী নয়ন বলেন, তৃনমূলের নেতাকর্মীদের অনুরোধে আমি প্রার্থী হয়েছি। নির্বাচনে জয়ী হয়ে আমি চেয়ারম্যান পদটি শেখ হাসিনাকে উপহার দেব।

জেলা পরিষদ উপ-নির্বাচনের সহকারী রিটার্নিং অফিসার ও জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোহাম্মদ হাসানুজ্জামান বলেন, চারজন প্রার্থী চেয়ারম্যান পদে মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। আগামী ২৫ আগস্ট মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিন। ১০ সেপ্টেম্বর এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

আর/১০:১৪/২০ আগষ্ট

লক্ষীপুর

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে