Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 3.0/5 (5 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print

আপডেট : ০৭-৩০-২০১৭

ময়মনসিংহ-৮ ঈশ্বরগঞ্জে মনোনয়ন প্রত্যাশীদের জনসংযোগ

ময়মনসিংহ-৮ ঈশ্বরগঞ্জে মনোনয়ন প্রত্যাশীদের জনসংযোগ

ময়মনসিংহ, ৩০ জুলাই- আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশীদের আনুষ্ঠানিকভাবে প্রার্থিতা ঘোষণার পর ২ দলের ৪ জন গণসংযোগ চালিয়ে যাচ্ছেন। তৃণমূল পর্যায়ের দলীয় নেতাকর্মীদের সংগঠিত ও  দলকে চাঙ্গা করে নিজের অবস্থান সুদৃঢ় করতে প্রত্যেক প্রার্থীই এলাকা ভিত্তিক জনসভার মাধ্যমে সাধারণ জনগণের সমর্থন আদায়ের চেষ্টা করছেন। পাশাপাশি নিজের মনোনয়ন নিশ্চিত করতে অনেকেই দলের কেন্দ্রীয় নেতাদের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রক্ষা করে চলছেন।

নির্বাচনের এখনও দেড় বছর বাকি থাকলেও ময়মনসিংহের এ আসনে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির উল্লেখযোগ্য ৪ জন প্রার্থী প্রায় প্রতি সপ্তাহেই উপজেলার বিভিন্ন এলাকা ঘুরে বেড়াচ্ছেন।

তার মধ্যে আ.লীগের দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশীরা হলেন বাংলাদেশ আ.লীগের শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদক সাবেক সাংসদ মো.আব্দুছ ছাত্তার ও তার ভাতিজা বর্তমান উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মাহমুদ হাসান সুমন। তবে মাহমুদ হাসান সুমন জনসংযোগকারীদের মধ্যে সবচেয়ে ব্যাস্ত সময় পার করছেন। তিনি গত তিন সপ্তাহে উপজেলার ১১টি ইউনিয়নের মধ্যে ৪টি ইউনিয়নে ৫টি মতবিনিময় সভার ব্যানারে জনসংযোগ করেছেন এবং তার জনসংযোগে জনগণের উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মতো।

বিএনপির দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশীরা হলেন সাবেক সাংসদ আলহাজ্ব শাহ্ নূরুল কবীর শাহীন ও  ইঞ্জিনিয়ার লুৎফুল্লাহেল মাজেদ বাবু। তারা দু’জনেই ব্যানারে তাদের পদবি উপজেলা বিএনপির’র সভাপতি উল্লেখ করেন। এখন কে আসলে সভাপতি এ নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে সাধারণ নেতা, কর্মী ও জনগণের মনে।

অপরদিকে, জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম মেম্বার বর্তমান সংসদ সদস্য মো.ফখরুল ইমাম এবারও নির্বাচনে প্রার্থী হবেন বলে দলীয় সূত্র নিশ্চিত করেছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ময়মনসিংহের অন্য আসনের চাইতে এ আসনের ইতিহাস একটু ভিন্ন।  ময়মনসিংহ-৮ ঈশ্বরগঞ্জ আসনে স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ে মোট ৩ বার এ আসন থেকে জাতীয় পার্টির টিকিটে সংসদ সদস্য নির্বাচিত ও মনোনীত হয়েছেন। বর্তমান বিরোধী দলীয় নেত্রী বেগম রওশন এরশাদ নিজেও এ আসনে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্ধিতা করেছেন। সর্বশেষ গত সংসদ নির্বাচনে জাতীয় পার্টি ও আ.লীগের জোট গঠন ও বিএনপি নির্বাচনে অংশগ্রহণ না করায় বর্তমান সংসদ সদস্য জাতীয় পার্টির টিকিটে এমপি মনোনীত হন।  এ আসনে গতবারের মত জাতীয় পার্টি ও আ.লীগ জোটের জাতীয় পার্টির প্রার্থী থাকবে নাকি আ.লীগের প্রার্থী থাকবে এ নিয়ে চলছে জল্পনা কল্পনা। তবে জোটের বাইরে আ.লীগ ও বিএনপির দলীয় প্রার্থী থাকলে সম্পূর্ণ হিসাব নিকাশ পাল্টে যাবে বলে সকল দলের নেতৃবৃন্দই একমত পোষণ করেন।

এমএ/ ০৬:১৫/ ৩০ জুলাই

ময়মনসিংহ

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে