Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 3.3/5 (6 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৫-১৮-২০১৭

মস্তিষ্কের জন্য সবচাইতে উত্তম ব্যায়াম

কে এন দেয়া


মস্তিষ্কের জন্য সবচাইতে উত্তম ব্যায়াম

মেজাজ ভালো করা, স্মৃতিশক্তি বাড়ানো এবং বয়সের সাথে মস্তিষ্কের ক্ষমতা কমে যাওয়া রোধ- সবগুলো উপকার একসাথে পেতে চান? অ্যারোবিক ব্যায়াম করুন। 

সাম্প্রতিক বেশ কিছু গবেষণায়, বিশেষ করে এই বসন্তে প্রকাশিত দুইটি গবেষণায় উঠে এসেছে এই ব্যাপারটি। এসব গবেষণাপত্রে বলা হয়, যে কোনো ধরণের ব্যায়াম যা আপনার হার্টরেট বাড়ায়, আপনাকে সক্রিয় করে এবং ঘাম ঝরায় একটি লম্বা সময় ধরে (অ্যারোবিক ব্যায়াম) তা মস্তিষ্কের স্বাস্থ্যের ওপর চমকপ্রদ ইতিবাচক প্রভাব ফেলে। 

“অ্যারোবিক এক্সারসাইজ আপনার মস্তিষ্কের জন্য উপকারী, যেমনটা তা উপকারী আপনার হৃদয়ের জন্য”, বলেন একটি গবেষণার লেখকেরা। এই গবেষণাটি সম্প্রতি হার্ভার্ড মেডিক্যাল স্কুল ব্লগ “মাইন্ড অ্যান্ড মুড” এ প্রকাশিত হয়। 

ব্যায়ামের কিছু কিছু উপকারিতা একেবারে হাতেনাতেই পাওয়া যায়। যেমন সাইকেল চালিয়ে ঘাম ঝরালে আপনার মুড কম সময়েই ভালো হয়ে যাবে। কিন্তু কিছু কিছু উপকারিতা আবার প্রকাশ পেতে সময় লাগে। যেমন স্মৃতিশক্তির উন্নতি আপনি টের পেতে পেতে সপ্তাহ পার হয়ে যাবে। আপনার মস্তিষ্কের জন্য সবচাইতে ভালো উপকার করবে অ্যারোবিক এক্সারসাইজ, যা আপনি নিয়মিত করবেন অন্তত ৪৫ মিনিট সময়ের জন্য।

কী ধরণের উপকারিতা চাচ্ছেন, তার উপরে নির্ভর করে আপনি দৈনিক হাঁটতে বা জগিং করতে পারেন। প্রবল ডিপ্রেশনে ভুগছেন এমন মানুষদের ওপর করা এক পাইলট স্টাডিতে দেখা যায়, টানা ১০ দিন ৩০ মিনিট করে ট্রেডমিলে হাঁটা উল্লেখযোগ্য পরিমাণে কমিয়ে আনে তাদের বিষণ্ণতা। অ্যারোবিক এক্সারসাইজ তাদেরকে সাহায্য করতে পারে যারা বিষণ্ণতায় ভুগছেন না তবে খুব স্ট্রেসের মাঝে আছে। শরীরের স্ট্রেস হরমোনের পরিমাণ কমিয়ে তা স্ট্রেস দূর করে, জানা যায় জার্নাল অফ ফিজিক্যাল থেরাপি সায়েন্সে প্রকাশিত এক গবেষণা থেকে।

আপনার বয়স যদি ৫০ এর ওপরে হয় তাহলে আপনার কাজে আসতে পারে অ্যারোবিক এবং রেজিস্ট্যান্ট এক্সারসাইজের মিশ্রণ, বলে ব্রিটিশ জার্নালে প্রকাশিত একটি গবেষণা। ৩ মে প্রকাশিত একটি গবেষণা এই তথ্যের সাথে সম্মতি প্রকাশ করে এতে দেখা যায়, ৬০-৮৮ বছর বয়সী মানুষের মাঝে ১২ সপ্তাহ ধরে সপ্তাহে ৪ দিন ৩০ মিনিট হাঁটা তাদের মস্তিষ্কের এমন জায়গাকে সুস্থ করে তোলে যেখানে স্মৃতিভ্রংশের আশংকা ছিল। 

গবেষকেরা নিশ্চিত নন কেন এই ধরণের ব্যায়ামটাই মস্তিষ্কের উপকারে আসে। তবে গবেষণা থেকে এটা ধারণা করা যায় যে এটা মস্তিষ্কে বেশি রক্তপ্রবাহের সাথে সম্পর্কিত। ডিমেনশিয়ার লক্ষণ আছে এমন বয়স্ক নারীদের ওপর গবেষণায় দেখা যায়, অ্যারোবিক এক্সারসাইজের ফলে মস্তিষ্কের হিপ্পোক্যাম্পাস অঞ্চল আকারে বৃদ্ধি পায়। এই অঞ্চলটি শিক্ষা এবং স্মৃতির সাথে জড়িত। 

ইউনিভার্সিটি অফ ক্যানবেরার এক্সারসাইজ সায়েন্টিস এবং এই ব্রিটিশ গবেষণার লেখক জো নর্থি জানান, ৫০ বছরের ওপরে যে কেউ ৪৫ মিনিট থেকে ১ ঘন্টা অ্যারোবিক এক্সারসাইজ করতে পারেন, সপ্তাহে যত দিন সম্ভব।

সূত্র: বিজনেস ইনসাইডার

আর/০৭:১৪/১৮ মে

শরীর চর্চা

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে