logo

যেভাবে ফেসবুকে লাইভ ভিডিও স্ট্রিমিং করবেন

যেভাবে ফেসবুকে লাইভ ভিডিও স্ট্রিমিং করবেন

ওয়াশিংটন, ০১ ফেব্রুয়ারী- ফোনে ভিডিও ধারণ করার সঙ্গে সঙ্গে তা ফেসবুকের মাধ্যমে সরাসরি সম্প্রচারের সুবিধা এতদিন সেলিব্রেটি কিংবা ভেরিফায়েড অ্যাকাউন্ট ব্যবহারকারীদের জন্য উম্মুক্ত ছিল। বর্তমানে এই সুবিধা সবার জন্য চালু করা হয়েছে। তাই নিজের প্রিয় মুহূর্তের ভিডিওগুলো এখন থেকে সরাসরি সম্প্রচার করুন আপনার বন্ধু বা অন্য সবার সাথে। 

লাইভ ভিডিও ধারণ করার জন্য ‘ব্রডকাস্ট নাউ!’ নামে আপনি কোন বড় অপশন ফেসবুকে পাবেন না। তবে স্ট্যাটাস আইকনের মধ্যেই রয়েছে লাইভ স্ট্রিমিং ভিডিও অপশন। 

চেক ইন আইকনের পাশেই আপনি নতুন একটি আইকন পাবেন। আপনি যদি সম্প্রতি কোন স্ট্যাটাস না দিয়ে থাকেন তবে আপনি ভাসমানভাবে একটি নটিফিকেশন দেখবেন চেক ইন আইকনের ওপরে। যেখানে লেখা থাকবে, ‘নিউ! রেকর্ড অ্যান্ড শেয়ার লাইভ ভিডিও।’

আপনি যদি লাইভ ভিডিও ধারণ এবং সম্প্রচারের জন্য প্রস্তুত থাকেন তাহলে আইকনটি সিলেক্ট করুন এবং ফেসবুক কে অনুমতি দিন আপনার ক্যামেরা এবং মাইক্রোফোন প্রবেশ করার। ব্যস! আপনার কাজ শেষ। 

তারপর যখন আপনি নীল রঙের ‘কন্টিনিউ’ বাটন টিতে টাচ করবেন, আপনাকে আপনার ব্রডকাস্ট সম্পর্কে বর্ণনা করার জন্য জিজ্ঞেস করবে। একই স্ক্রিনে আপনি আপনার ভিডিওর প্রাইভেসি নির্ধারণ করতে পারবেন। আপনি কি আপনার বন্ধুদের সাথেই ভিডিও শেয়ার করতে চান নাকি সবার সাথে শেয়ার করতে চান তা নির্ধারণ করতে পারবেন ভিডিও প্রাইভেসিতে। এমনকি আপনি ভিডিওটি শুধু আপনি দেখার জন্যও অপশন নির্ধারণ করতে পারবেন। 

লাইভ স্ট্রিমিং ভিডিও আপনি আপনার সেলফি অথবা রিয়ার যেকোনো ক্যামেরা দিয়েই ধারণ করতে পারবেন। প্রোট্রেট বা ল্যান্ডস্কেপ যেভাবেই ভিডিও ধারণ করেন না কেন, ভিডিও সবসময় স্কয়ার স্ক্রিনেই শো করবে। আপনি যদি প্রোট্রেটে ভিডিও ধারণ করেন, তাহলে ফেসবুক কমেন্টের অপশন থাকবে ভিডিওর নিচে। ল্যান্ডস্কেপ মোডে কমেন্টের অপশন থাকবে ডান পাশে। 

যখন থেকে  আপনি লাইভে যাবেন, তখন থেকেই ভিডিও ফিড আপনার টাইমলাইনে দেখা যাবে। ব্রডকাষ্ট স্ক্রিনে আপনি দেখতে পাবেন কতজন দর্শনার্থী ভিডিওটি দেখছে, আপনি কতক্ষণ রেকর্ডিং করছেন এবং এমনকি লাইভ কমেন্টও। মজার ব্যাপার হলো ভিডিও ধারণ করার সময় আপনার কোন টাইম লিমিট নেই। তবে ভালো ইন্টারনেট সংযোগ অত্যাবশ্যকীয়। তবে ওয়াই ফাই রেঞ্জে থাকা আপনার জন্য উত্তম। 

এখনও পর্যন্ত আপনার লাইভ ভিডিও স্ট্রিমিং এর নটিফিকেশন সবার কাছে যাবে না। তাই সবার কাছে নটিফিকেশন পাঠানোর জন্য আপনি আগেই একটি স্ট্যাটাস দিয়ে রাখতে পারেন। লাইভ ভিডিও স্ট্রিমিং শেষ হওয়ার পর ভিডিওটি আপনার টাইমলাইনে ভিডিও হিসেবে প্রদর্শন করবে। চাইলেই যে কেউ পরে ভিডিওটি দেখে নিতে পারবে এবং আপনার ভিডিওর দর্শনার্থী বাড়বে। বাড়তি সুবিধা হিসেবে ভিডিওটি আপনার মোবাইলের মেমোরিতেও সংরক্ষিত থাকবে। পরবর্তীতে অন্য কোন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম বা এডিট করে আপনার প্রয়োজনেও ভিডিওটি পুনরায় ব্যবহার করতে পারবেন।