logo

শ্রীলঙ্কায় কোচ হওয়ার পথে ফোর্ড

শ্রীলঙ্কায় কোচ হওয়ার পথে ফোর্ড

কলম্বো, ২৯ জানুয়ারি- আবার শ্রীলঙ্কার প্রধান কোচের দায়িত্ব নেওয়ার পথে রয়েছে গ্রাহাম ফোর্ড। এরই মধ্যে সারের কোচের দায়িত্ব থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন তিনি। দ্বিতীয় মেয়াদে ২০১৯ সালের বিশ্বকাপ পর্যন্ত দায়িত্বে থাকতে পারেন ফোর্ড। আগামী মাসের প্রথম সপ্তাহেই শিষ্যদের সঙ্গে কাজ শুরু করতে পারেন তিনি।

২০১২ সালের জানুয়ারিতে ফোর্ড দুই বছরের জন্য দায়িত্ব নেন শ্রীলঙ্কা জাতীয় দলের। মেয়াদ শেষ হওয়ার পর মেয়াদ বাড়ানোর প্রস্তাব পেয়েও থাকেননি পারিবারিক কারণে। ফোর্ড ফিরলে শ্রীলঙ্কার প্রধান কোচের জন্য পাঁচ মাসের অনুসন্ধানের অবসান হবে। গত সেপ্টেম্বরে মারভান আতাপাত্তু সরে যাওয়ার পর থেকে নতুন কোচ খুঁজছে এসএলসি।

১৯৯২ সালে মাত্র ৩২ ছুঁইছুঁই বয়সে দক্ষিণ আফ্রিকার দল নাটালের হয়ে ফোর্ডের কোচিং ক্যারিয়ার শুরু। ১৯৯৮ সালে দায়িত্ব পান দক্ষিণ আফ্রিকা ‘এ’ দলের। ১৯৯৯ সালে দক্ষিণ আফ্রিকার জাতীয় দলে নিয়োগ পান বব উলমারের সহকারী হিসেবে।

১৯৯৯ বিশ্বকাপের পর উলমার সরে দাঁড়ালে ফোর্ড হন প্রধান কোচ। তার কোচিংয়ে ১১টি টেস্ট সিরিজের ৮টিই জিতেছিল দক্ষিণ আফ্রিকা। কিন্তু অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে পর পর দুই সিরিজে ব্যর্থতার পর ২০০২ সালের প্রথম দিনে তাকে বরখাস্ত করে দক্ষিণ আফ্রিকা।

এর পর নানা সময়ে ফোর্ড কোচিং করিয়েছেন ইংলিশ কাউন্টিতে কেন্ট ও দক্ষিণ আফ্রিকায় ডলফিন্সকে। ২০০৭ সালে ভারত জাতীয় দলের কোচ হওয়ার প্রস্তাব পেয়েও দায়িত্ব নেননি পারিবারিক কারণে। স্ত্রীর অসুস্থতার কারণে দেশের বাইরে অনেক আকর্ষণীয় প্রস্তাব উপেক্ষা করেছেন বেশ কয়েকবার। সর্বশেষ ইংলিশ কাউন্টিতে সারের কোচ ছিলেন ফোর্ড। দলকে প্রথম বিভাগে তুলে সরে দাঁড়ান তিনি।