logo

প্রধানমন্ত্রীর দ্বারস্থ রওশন

প্রধানমন্ত্রীর দ্বারস্থ রওশন

ঢাকা, ২৯ জানুয়ারি- জাতীয় পার্টির (জাপা) চলমান বিরোধ নিষ্পত্তিতে সংসদ নেতা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দ্বারস্থ হলেন বিরোধীদলীয় নেতা রওশন এরশাদ। বৃহস্পতিবার সংসদে মাগরিবের বিরতির সময় সংসদে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে দেখা করেন রওশন এরশাদ। এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন জাপা নেতা ও পানি সম্পদ মন্ত্রী ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ, শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী মুজিবুল হক চুন্নু, প্রেসিডিয়াম সদস্য ফখরুল ইমাম, বিরোধীদলীয় প্রধান হুইপ মো. তাজুল ইসলাম চৌধুরী।

সংসদে শেখ হাসিনার কার্যালয়ে ১০ মিনিট ছিলেন। সেখান থেকে নিজের কার্যালয়ে ফেরার পর সাংবাদিকদের প্রশ্নের মুখে পড়েন তিনি। সেসময় সরকার থেকে বেরিয়ে আসবেন কীনা সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে সরাসরি ‘না’ বলে জবাব দেন রওশন এরশাদ।

বৈঠক সূত্রে জানায়, জি এম কাদেরকে পার্টি কো-চেয়ারম্যান এবং রুহুল আমিন হাওলাদারকে মহাসচিব করায় জাতীয় পার্টির মধ্যে বিরাজমান বিরোধ নিয়েই কথা বলেন রওশন এরশাদ। এই সংকট মোকাবেলায় তিনি প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন বলে জানান মিটিংয়ে অংশ নেওয়া এক সদস্য। বিএনপিবিহীন দশম সংসদে বিরোধী দলের আসনে বসা জাতীয় পার্টির তিন নেতা মন্ত্রী ও প্রতিমন্ত্রী হয়েছেন।

এর ফলে সংসদে কার্যকর বিরোধী দল নেই বলে রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের অভিমত। এরশাদও স্বীকার করেছেন, তাদের অবস্থান জনগণের কাছে স্পষ্ট নয়। দশম সংসদের দুই বছর পূর্তির আগের দিন সংসদ নেতা ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কার্যালয়ে দেখা করতে যান বিরোধীদলীয় নেতা রওশন। জাতীয় পার্টির সাম্প্রতিক অবস্থা নিয়ে কথা হয়েছে কি না- জানতে চাইলে রওশন বলেন, ‘সেটা নিয়ে তার সঙ্গে কেন আলোচনা করব? ওটা আমাদের অভ্যন্তরীণ বিষয়।’

জি এম কাদেরকে কো-চেয়ারম্যান করার বিষয়টি মেনে নিয়েছেন কি না- জানতে চাইলে রওশন বলেন, ‘নতুন নেতৃত্ব আসতেই পারে। নতুন লোকজন আসতে পারে। এটা একটা নরমাল ঘটনা।’ রওশন বলেন, ‘ময়মনসিংহ বিভাগ, ময়মনসিংহে অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠা এবং ব্রহ্মপুত্র নদ নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কথা হয়েছে।’ এদিকে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করে বিরোধীদলীয় নেতার কার্যালয়ে জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্যদের নিয়ে বৈঠক করেন রওশন এরশাদ।