logo

সরকারে থাকবে জাপা: রওশন

সরকারে থাকবে জাপা: রওশন

ঢাকা, ২৯ জানুয়ারি- জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদ সরকার থেকে বের হওয়ার পক্ষপাতি হলেও তাতে নারাজ তার স্ত্রী দলের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য রওশন এরশাদ। বৃহস্পতিবার সংসদ ভবনে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকের পর সাংবাদিকরা বিরোধীদলীয় নেতা রওশনের কাছে জানতে চান, তার দল সরকার থেকে বেরিয়ে আস ছে কি না?এক কথায় ‘না’ উত্তর আসে অভ্যন্তরীণ দ্বন্দ্বে বেসামাল জাতীয় পার্টির সভাপতিমণ্ডলীর সদস্যের কাছ থেকে।

বিএনপিবিহীন দশম সংসদে বিরোধী দলের আসনে বসা জাতীয় পার্টির তিন নেতা মন্ত্রী ও প্রতিমন্ত্রী হয়েছেন। এর ফলে সংসদে কার্যকর বিরোধী দল নেই বলে রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের অভিমত। এরশাদও স্বীকার করেছেন, তাদের অবস্থান জনগণের কাছে স্পষ্ট নয়।    

দশম সংসদের দুই বছর পূর্তির আগের দিন সংসদ নেতা ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কার্যালয়ে দেখা করতে যান বিরোধীদলীয় নেতা রওশন। জাতীয় পার্টির সাম্প্রতিক অবস্থা নিয়ে কথা হয়েছে কি না- জানতে চাইলে রওশন বলেন, “সেটা নিয়ে তার সঙ্গে কেন আলোচনা করব? ওটা আমাদের অভ্যন্তরীণ বিষয়।”

এরশাদ তার ভাই জিএম কাদেরকে জাতীয় পার্টিতে তার উত্তরসূরি ঘোষণার পর থেকে দলটিতে অস্থিরতা চলছে। এর পাল্টায় রওশনকে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ঘোষণার পর এরশাদ মহাসচিব জিয়াউদ্দিন বাবলুকে সরিয়ে দেন।

এই দুই সিদ্ধান্ত নিয়ে রওশনের আপত্তি রয়েছে। নিজের আপত্তির বিষয়টি তিনি জানানোর পর তা প্রত্যাখ্যান করেছেন এরশাদ। জি এম কাদেরকে কো-চেয়ারম্যান করার বিষয়টি মেনে নিয়েছেন কি না- জানতে চাইলে রওশন বলেন, “নতুন নেতৃত্ব আসতেই পারে। নতুন লোকজন আসতে পারে। এটা একটা নরমাল ঘটনা।”

সংসদে শেখ হাসিনার কার্যালয়ে ১০ মিনিট ছিলেন। সেখান থেকে নিজের কার্যালয়ে ফেরার পর সাংবাদিকদের প্রশ্নের মুখে পড়েন তিনি। রওশন বলেন, “ময়মনসিংহ বিভাগ, ময়মনসিংহে অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠা এবং ব্রহ্মপুত্র নদ নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কথা হয়েছে।”