logo

অটিস্টিক বানর তৈরি করলেন চীনা বিজ্ঞানীরা

অটিস্টিক বানর তৈরি করলেন চীনা বিজ্ঞানীরা

বেইজিং, ২৭ জানুয়ারি- অটিসম বা আত্মমগ্নতা রোগে ভুগছে পৃথিবীর বহু শিশু। এই মানসিক পীড়ায় আক্রান্ত হয়ে বিশ্ব জগত থেকে নিজেকে গুঁটিয়ে নিয়ে করুণ জীবন যাপন করছে তারা। কিন্তু রোগ নির্মূলের জন্য এখনো কোনো প্রতিষেধক আবিষ্কার করতে পারেননি বিজ্ঞানীরা। অনেক গবেষণা আগেও হয়েছে এবং এখনো চলছে। এক্ষেত্রে চীনের বিজ্ঞানীরা এগিয়ে গিয়েছেন একধাপ। তারা বানরের শরীরে মানুষের অটিসম জিন প্রবেশ করিয়ে তৈরি করেছেন অটিস্টিক বানর। তাদের প্রত্যাশা, এই বানরের উপর গবেষণা করে তারা মানুষের জন্য একটি চিকিৎসা পদ্ধতি হয়তো খুঁজে পাবেন। 

বিজ্ঞান বিষয়ক জার্নাল ‘নেচারে’ চীনা বিজ্ঞানীদের এই গবেষণার কথা প্রকাশ করা হয়েছে। চীনের সাংহাই স্নায়ুবিজ্ঞান ইন্সিটিউটের একদল গবেষক তৈরি করেছেন এই বিশেষ ধরনের টেস্ট টিউব বানর। তাদের শরীরে প্রবেশ করানো হয়েছে অটিসমের জন্য দায়ী এমইসিপি২ নামের জিন। গবেষকরা বলেছেন, ম্যাকাকিউ নামের এই কৃত্রিম বানর গত প্রায় ১১ মাস যাবত অসামাজিক আচরণ প্রদর্শন করছে। এটা আশার কথা।

নেচার জার্নালের মতে, অটিসমের যেমন অনেকগুলো ধরণ রয়েছে, তেমনি রয়েছে অনেক উপসর্গ। তবে গবেষকরা মনে করছেন কমপক্ষে ১০০ টি জিন নিয়ে পরীক্ষা করায় তারা কোনো না কোনো ফলাফল অবশ্যই পাবেন। এখন পর্যন্ত অটিসম নিয়ে যত পরীক্ষা করা হয়েছে সবই ছিল গবেষণাগারের গিনিপিগের উপর। তবে বানরের উপরে পরীক্ষাতে সফলতার সম্ভাবনা বৃদ্ধি পেলেও আগে দেখতে হবে মানুষের সাথে এর যোগাযোগটা কতটা স্পষ্ট হয়।