logo

অ্যাপলের লাভ বাড়ছে, তবে…

অ্যাপলের লাভ বাড়ছে, তবে…

২৬ জানুয়ারি ২০১৫ সালের শেষ প্রান্তিকের আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে মার্কিন টেক জায়ান্ট অ্যাপল। ওই প্রতিবেদনের তথ্য অনুযায়ী, প্রতিষ্ঠানটির মুনাফা বাড়লেও, আইফোন বিক্রির পরিমাণ যে হারে বৃদ্ধি পাওয়ার কথা সে হারে বাড়ছে না। যদিও শেষ প্রান্তিকে যুক্তরাষ্ট্র ও অন্যান্য দেশে প্রচুর সংখ্যক আইফোন বিক্রি করেছে প্রতিষ্ঠানটি। এমনকি চীনের বাজারেও ভালো ব্যবসা করেছে প্রতিষ্ঠানটি। কিন্তু ২০১৫ সালের শেষ প্রান্তিকে নিজেদের রেকর্ড ধরে রাখতে পারলেও, চলতি বছরের প্রথম প্রান্তিকের ব্যাপারে সন্দেহ প্রকাশ করেছে স্বয়ং অ্যাপল। এমনকি বিগত ১৩ বছরের মধ্যে প্রথমবারের মতো নিজেদের বিক্রির হার কমে যেতে পারে বলেও মন্তব্য করেছে প্রতিষ্ঠানটি।

২০১৫ সালের শেষ প্রান্তিকেই নিজেদের রেকর্ড বজায় রাখতে যথেষ্ট ঝামেলা হয়েছে অ্যাপলের। এতে ডলারের মূল্যমানও বেশ বড় ভূমিকা পালন করেছে। কারণ অ্যাপলের মোট বিক্রির দুই-তৃতীয়াংশই হয় যুক্তরাষ্ট্রের বাইরে। সবমিলিয়ে বর্তমানে কঠিন সময় পার করছে বলেই জানিয়েছে অ্যাপল। এত সমস্যার পরেও গত প্রান্তিকে রেকর্ড ধরে রাখার বিষয়টিকে প্রতিষ্ঠানের অন্যতম একটি অর্জন হিসেবেই দেখছেন অ্যাপলের প্রধান নির্বাহী টিম কুক।

এক নজরে দেখে নেওয়া যাক অ্যাপলের ২০১৫ সালের শেষ প্রান্তিক-

প্রথমেই আইফোন। অ্যাপলের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, রেকর্ড পরিমাণ হলেও প্রত্যাশার তুলনায়  আইফোন-এর বিক্রি কম হয়েছে। অ্যাপল প্রধান নির্বাহী টিম কুক জানিয়েছেন, ৬০ শতাংশ আইফোন ব্যবহারকারী এখনও নতুন আইফোনে আপ্রগেড করেননি। ২০১৪ সালের শেষ প্রান্তিকে মোট আইফোন বিক্রি হয়েছিল ৭ কোটি ৪৫ লাখ, আর ২০১৫ সালের শেষ প্রান্তিকে এই বিক্রির হার বেড়েছে মাত্র ১ শতাংশ, মোট ৭ কোটি ৪৮ লাখ আইফোন বিক্রি হয়েছে গত প্রান্তিকে।

অন্যদিকে ২০১৫ সালের শেষ প্রান্তিকে আইপ্যাড বিক্রি কমেছে ২৫ শতাংশ। ২০১৪ সালের শেষ প্রান্তিকে যেখানে মোট দুই কোটি ১৪ লাখ আইপ্যাড বিক্রি হয়েছিল, সেখানে ২০১৫ সালের শেষ প্রান্তিকে আইপ্যাড বিক্রি হয়েছে এক কোটি ৬১ লাখ। বিক্রির হার কমেছে ম্যাক-এরও। মোট ৪ শতাংশ কমে ২০১৫ সালের শেষ প্রান্তিকে ম্যাক বিক্রি হয়েছে ৫৩ লাখ। অথচ ২০১৪ সালের শেষ প্রান্তিকে ম্যাক বিক্রি হয়েছিল ৫৫ লাখ।

ম্যাক ও আইপ্যাড বিক্রির হার কমলেও, ২০১৪ সালের শেষ প্রান্তিকের তুলনায় ২০১৫ সালের শেষ প্রান্তিকের মুনাফার হার বেড়েছে দুই শতাংশ। ২০১৪ সালের শেষ প্রান্তিকে অ্যাপলের মোট মুনাফা হয়েছিল ১,৮০০ কোটি ডলার, আর ২০১৫ সালের শেষ প্রান্তিকে এসে অ্যাপলের মোট মুনাফা হয়েছে ১,৮৪০ কোটি ডলার।