logo

গাড়ির ভিতর দমবন্ধ হয়ে মৃত্যু মা ও সন্তানের

গাড়ির ভিতর দমবন্ধ হয়ে মৃত্যু মা ও সন্তানের

ওয়াশিংটন, ২৭ জানুয়ারি- গাড়ির ভিতর দমবন্ধ হয়ে মৃত্যু হল এক বছরের শিশু ও তার মায়ের। নিউ জার্সির ঘটনা। গত কয়েক দিন ধরে প্রচণ্ড তুষার ঝড়ে বিধ্বস্ত উত্তর আমেরিকার বেশ কয়েকটি দেশ। নিউ জার্সিও সেই তালিকায় রয়েছে।

কী হয়েছিল?
দুই সন্তান ও স্ত্রীকে  নিয়ে নিজেদের গাড়িতে করে বেরিয়েছিলেন ফেলিক্স বনিলা। তুষার ঝড়ে রাস্তাতেই আটকে পড়েন। গাড়ি থেকে নেমে তিনি রাস্তা পরিষ্কার করার কাজে লেগে পড়েন। যাতে দ্রুত বাড়িতে পৌঁছনো যায়। বাইরের কনকনে ঠান্ডার হাত থেকে পরিবারকে বাঁচাতে গাড়ির ইঞ্জিন চালু রাখেন। কিন্তু বরফ যে গাড়ির এক্সহস্ট পাইপে ঢুকে রয়েছে সেটা খেয়াল করেননি। ফলে বিষাক্ত কার্বন মনোক্সাইড গ্যাস তৈরি হয়ে গাড়ির মধ্যে ভরে যায়। ফেলিক্স তখন বরফ পরিষ্কার করতে ব্যস্ত। 

মাঝে মাঝেই তিনি গাড়ির কাচ দিয়ে স্ত্রী সন্তানদের দিকে খেয়াল রাখছিলেন। কিন্তু গাড়ির ভিতরের ওই গ্যাসে তত ক্ষণে দমবন্ধ হয়ে মৃত্যু হয়েছে স্ত্রী-সন্তানদের, সেটা বুঝতেই পারেননি ফেলিক্স। বরফ পরিষ্কার করে যখন তাঁদের ডাকাডাকি করেন, সাড়া না পেয়ে ৯১১-তে ফোন করেন। এক সন্তানকে বাঁচাতে পারলেও স্ত্রী ও আর এক সন্তানকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিত্সকরা মৃত বলে ঘোষণা করেন। কার্বন মনোক্সাইডকে সাইলেন্ট কিলার বলা হয়। ১৯৯৯-২০০০ পর্যন্ত মার্কিন মুলুকে এই গ্যাসের শিকার হয়ে পাঁচ হাজারেরও বেশি মারা গিয়েছেন।