logo

অসহিষ্ণুতা ইস্যুতে মিডিয়াকে দোষ দিলেন আমির!

অসহিষ্ণুতা ইস্যুতে মিডিয়াকে দোষ দিলেন আমির!

নয়াদিল্লি, ২৭ জানুয়ারি- মিডিয়ার ঘাড়ে দায় চাপিয়ে অসহিষ্ণুতা ইস্যুতে নিজের মন্তব্য থেকে যেন ১৮০ ডিগ্রি ঘুরে গেলেন আমির খান! সম্প্রতি এক সাংবাদিক সম্মেলনে বলিউডের মিস্টার পারফেকশনিস্ট যা বললেন, তাতে বিষয়টা সেরকম বলেই মনে করছেন অনেকে। আমিরের কথায়, ‘‘আমার মন্তব্যের ভুল ব্যাখা করেছে মিডিয়া। আমি দেশকে কখনই অসহিষ্ণু বলিনি। দেশ ছেড়ে অন্য কোথাও চলে যেতে চাই, তাও বলিনি। আমি এখানে জন্মেছি, এখানেই মরতে চাই।’’

কয়েক মাস আগে আমির খান নিজেই বলেছিলেন, দেশ জুড়ে অসহিষ্ণুতার পরিবেশে তিনি আতঙ্কিত। দেশের অসহিষ্ণু পরিবেশে ভীত তাঁর স্ত্রী কিরণ। ‘‘আমরা কাগজে পড়ছি কী ঘটছে। টিভিতে দেখছি কী ঘটছে।এবং অবশ্যই আতঙ্কিত হচ্ছি। কিরণের সঙ্গে যখন এই নিয়ে কথা বলি, ও জিজ্ঞাসা করে, আমাদের কি ভারত ছেড়ে চলে যাওয়া উচিত? ও ওর বাচ্চার জন্য ভীত। আমাদের চারদিকের অবস্থা কী হবে, তা ভেবে ও ভীত। ও এখন খবরের কাগজ কাগজ খুলতে ভয় পায়।’’স্বাভাবিক ভাবেই এ সব মন্তব্যের পর তাঁকে তীব্র সমালোচনার মুখে প়ড়তে হয়েছিল।

গত কয়েক মাস ধরে গোটা দেশ জুড়ে যে বিষয়টি নিয়ে সবচেয়ে বেশি বিতর্ক হয়েছে, সেটি হল অসহিষ্ণুতা। এর আগে অসহিষ্ণুতার বিরুদ্ধে মুখ খুলেছিলেন শাহরুখ খান। নিজের ৫০তম জন্মদিনে তিনি বলেছিলেন, ‘‘দেশে চরম অসহিষ্ণুতার পরিবেশ তৈরি হয়েছে। এ ভাবে চলতে থাকলে আমরা কয়েক দিনের মধ্যেই অন্ধকার যুগে ফিরে যাব।’’ কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসবের উদ্বোধনে এসে অসহিষ্ণুতা নিয়ে সরব হয়েছিলেন অমিতাভ বচ্চন। মুখ খুলেছেন সলমন খান, প্রবীণ সরোদশিল্পী আমজাদ আলি খান প্রমুখ।

কিন্তু এ বিষয়ে মুখ খুলেও কেন যাবতীয় দায় মিডিয়ার ওপর চাপালেন আমির? অনেকের মতে সামনেই মুক্তি পাবে ‘দঙ্গল’। অসহিষ্ণুতা ইস্যুতে কোনও ভাবেই যাতে তাঁর ছবির ব্যবসা মার না কায় সে কারণেই এ দিন উল্টো সুর শোনা গেল আমিরের গলায়।