logo

চার দশকের পুরনো প্যাশনকে জাগিয়ে তুললেন মল্লিকা শেরাওয়াত। (ভিডিও সংযুক্ত)

চার দশকের পুরনো প্যাশনকে জাগিয়ে তুললেন মল্লিকা শেরাওয়াত। (ভিডিও সংযুক্ত)

গোয়ার প্রেক্ষাপটে তোলা এই ভিডিও-র কাহিনি হৃদয়ের একুল-ওকুল ছাপিয়ে যাওয়া প্রেমের। তাতে মল্লিকা জ্বালিয়েছেন প্যাশনের আগুন। পুরনো গানটিকে নবীকৃত করতে ব্যবহৃত হয়েছে ব্লুজ-পপ।

সেটা একেবারেই অন্য সময়। বেলবটম-সুন্দরীদের সঙ্গ দেন এলভিস-জুলপির যুবক। ইন্টার কাস্ট বিয়ে আর কুমারী মাতৃত্বের সমস্যাকে নিয়ে তোলা বলিউড ব্লকব্লাস্টার ‘জুলি’ নিয়ে ফিস ফিস ভাইরাল হয়ে গিয়েছিল মনে আছে অনেকেরই। বয়ঃপ্রাপ্তরা যতই আড়াল করুন না কেন, টিন এজ প্রজন্মের অবচেতনে খোদাই হয়ে গিয়েছিল ‘দিল কেয়া করে’ গানের কলি।

কেউ কি মনে রেখেছেন, সেই বিশেষ কিশোর-সংগীতের রচয়িতা ছিলেন হারীন্দ্রনাথ চট্টোপাধ্যায়। সুরারোপ রাজেশ রোশনের। ছবিতে অভিনয় করেছিলেন লক্ষ্মী নারায়ণ এবং বিক্রম। তাঁরা কেউই আর গণস্মৃতির নাগরিক নন। হারীন্দ্রনাথ বেঁচে রয়েছেন ‘গুপী গাইন বাঘা বাইন’ ছবির জাদুকর বরফি হিসেবে।

সেই গানটির অনুষঙ্গে জড়িত থাকা বিষাদ আর নস্ট্যালজিয়াকে নতুন রভসে জাগিয়ে তুললেন প্রযোজক ঋষি রিচ আর নিউ ইয়র্কের সংগীতশিল্পী অমৃত দাশু। নমিতা প্রেমকুমারের পরিচালনায় দাশুর উপস্থিতিতে এক অনবদ্য মিউজিক ভিডিও-য় স্বমহিমায় পাওয়া গেল মল্লিকা শেরাওয়াতকে।

গোয়ার প্রেক্ষাপটে তোলা এই ভিডিও-র কাহিনি হৃদয়ের একুল-ওকুল ছাপিয়ে যাওয়া প্রেমের। তাতে মল্লিকা জ্বালিয়েছেন প্যাশনের আগুন। পুরনো গানটিকে নবীকৃত করতে ব্যবহৃত হয়েছে ব্লুজ-পপ।

দেখুন সেই নস্ট্যালজিয়ার নবরূপায়ণ

মল্লিকা নিজেও অভিভূত এই নতুন ভিডিও-য়। চিরকালের ফেভারিটকে নতুন জীবন পেয়ে খুশি ৩৯ বছরের সেক্স-সিম্বল।