logo

ঝাড়ুদার পদে ১৯ হাজার এমবিএ’র আবেদন

ঝাড়ুদার পদে ১৯ হাজার এমবিএ’র আবেদন

ভারতের উত্তরপ্রদেশ রাজ্যের আমরোহায় ১১৪টি ঝাড়ুদার পদের জন্যে এবার চাকরির আবেদন করেছে ১৯ হাজার এমবিএ, বি টেক পাস করা স্নাতক। তবে ঝাড়ুদারের বেতন ১৭ হাজার রুপি হলেও কোনও শিক্ষাগত যোগ্যতার প্রয়োজন নেই।

ঝাড়ুদারের ১১৪টি খালি পদের জন্যে অনলাইনে ফর্ম পূরণ এখনও চলছে। এই পদের জন্যে যারা দরখাস্ত জমা দিয়েছেন তাদের অধিকাংশই স্নাতক, স্নাতকোত্তর, বি টেক এবং এমবিএ ডিগ্রিধারী।

তবে এই পদের জন্যেও বাছাই প্রক্রিয়া এখন বন্ধ। কারণ ঝাড়ুদার সংগঠনের দাবি, শুধু বাল্মীকি কমিউনিটির অন্তর্ভূক্ত সদস্যদেরই এই চাকরি দিতে হবে।

এটি উত্তরপ্রদেশের বেকারত্বের ভয়াবহ চিত্রই তুলে ধরেছে বলে মনে করা হচ্ছে।

এর আগে পাঞ্জাবের ভাতিন্ডায় পিওন পদের জন্যে এমফিল, এমএসসি ও বি টেক প্রার্থীরা চাকরির আবেদন করেছিলেন। ভাতিন্ডা জেলা আদালতে এখন চতুর্থ শ্রেণির কর্মী নিয়োগের জন্যে ১৯টি পদ খালি আছে, আবেদনপত্র পড়েছে সাড়ে আট হাজার। সেখানেও একই চিত্র। চতুর্থ শ্রেণির পদের জন্য চাকরিতে আবেদন করেছেন এমফিল, বি টেক, এমসিএ, এমএ ও বিএড প্রার্থীরা।

পিওন পদের জন্যে ন্যূনতম শিক্ষাগত যোগ্যতা স্কুল ফাইনাল পাস ও সাইকেল চালাতে জানতে হবে। মাসিক বেতন ৪ হাজার ৯০০ রুপি থেকে ১০ হাজার ৬৮০ রুপি।

এছাড়া ১৩০০ রুপি গ্রেড পে পাবে, তবে তাও দু’বছরের প্রবেশনারি পিরিয়ড শেষ হওয়ার পর। শুধু কিছু বাছাই করা প্রার্থীকেই ৪ হাজার ৯০০ রুপি দেয়া হবে প্রবেশনারি পিরিয়ড চলাকালীন।