logo

মালদ্বীপে আটক বাংলাদেশীদের সার্বিক সহায়তা দিচ্ছে সরকার

মালদ্বীপে আটক বাংলাদেশীদের সার্বিক সহায়তা দিচ্ছে সরকার

মালে, ২২ জানুয়ারি- মালদ্বীপে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে অভিযান চালিয়ে ২০ জন বাংলাদেশীকে আটকের কথা নিশ্চিত করেছে মালদ্বীপের বাংলাদেশ হাইকমিশন। হাইকমিশনার জানিয়েছেন, বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে মালদ্বীপের নাগরিকদের কাজের সুযোগ সুবিধা বাড়াতে সরকারী সিদ্ধান্তের বাস্তবায়ন করতে নিয়মিত অভিযানে আটক হয় বাংলাদেশীরা।

তবে অন্য পেশায় নিয়োগে ও আটকদের আইনী সহায়তায় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন হাইকমিশনার।

মালদ্বীপে প্রবাসী বাংলাদেশীর সংখ্যা প্রায় ৭০ হাজার। বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের ক্যাশিয়ার, হিসাব রক্ষক পদে নিজ দেশের নাগরিকদের চাকরীর সুযোগ দিতে প্রবাসীদের ছাটাই করার সিদ্ধান্ত নেয় সরকার। তার অংশ হিসেবে নিয়মিত বিরতীতে অভিযান চালায় মালদ্বীপ অভিবাসী কতৃর্পক্ষ। এ ধরনের এক অভিযানে বৃহস্পতিবার বেশ কয়েকজন বাংলাদেশী আটক হওয়ার কথা নিশ্চিত করেছে হাইকমিশন।

টেলিফোনে চ্যানেল আইকে হাইকমিশনার সারোয়ার হোসেন বলেন,‘ মালদ্বীপে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের ক্যাশিয়ার, হিসাবরক্ষক পদে শুধু মালদ্বীপের নাগরিকরাই নিয়োগ পাবে এমন নিয়ম চালু আছে। নিয়ম অনুযায়ী যদি সেখানে বিদেশি নাগরিকরা কাজ করে তাহলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয় মালদ্বীপ। আটক বাংলাদেশীরাও একটি বাজারে হিসাবরক্ষক, ক্যাশিয়ারের পেশায় ছিলো’।

হাইকমিশনার আরও বলেন,‘যারা আটক হচ্ছে তাদেরকে আইনী সহায়তা দেয়া হচ্ছে। এ সিদ্ধান্তের কারনে যেসব প্রবাসী বাংলাদেশী চাকুরী হারাবেন তারা যেনো নতুন চাকুরী পায় সেজন্যও ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে’।

মালদ্বীপের প্রবাসী বাংলাদেশীরা যাতে ক্ষতিগ্রস্থ না হয় সেইজন্য মঙ্গলবার আবারো মালদ্বীপ অভিবাসন কর্তৃপক্ষের সাথে আলোচনায় বসবে বাংলাদেশ হাইকমিশন।