logo

যুক্তরাষ্ট্রে ধেয়ে আসছে তুষারঝড়, জরুরি অবস্থা জারি

যুক্তরাষ্ট্রে ধেয়ে আসছে তুষারঝড়, জরুরি অবস্থা জারি

ওয়াশিংটন, ২২ জানুয়ারি- তুষারপাত এবং প্রবল ঝড়ের আশঙ্কায় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাজধানী ওয়াশিংটন ডিসিসহ পাঁচটি অঙ্গরাজ্যে জরুরি অবস্থা জারি করা হয়েছে। ৩০ ইঞ্চি পরিমান বরফ এবং তীব্র বাতাসের কারণে দেশটির এক তৃতীয়াংশ ক্ষতির মুখে পরতে পারে বলে আশঙ্কা করছে কর্তৃপক্ষ। আর এ কারণে জরুরি অবস্থা জারি করা হয়েছে। নাসার এক স্যাটেলাইট ছবিতে দেখা গেছে যুক্তরাষ্ট্রের পূর্ব উপকূলে ধেয়ে আসছে প্রবল তুষার ঝড়।

বড় ধরনের তুষার ঝড় যুক্তরাষ্ট্রের পূর্ব উপকূলে আঘাত হানবে বলে আশঙ্কা করছে কর্তৃপক্ষ। ওয়াশিংটন ডিসিসহ পূর্বাঞ্চলীয় তিনটি অঙ্গরাজ্যে প্রবল ঝড় এবং ৩০ ইঞ্চি পরিমান তুষারপাতের সম্ভাবনা রয়েছে।

ওয়াশিংটন ডিসিসহ টেনেসি, উত্তর ক্যারোলিনা, ভার্জিনিয়া, মেরিল্যাণ্ড, পেনসিলভানিয়া অঙ্গরাজ্যে জরুরি অবস্থা জারি করেছে কর্তৃপক্ষ। উপকূল রক্ষীরা জানিয়েছেন, তারা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ৩শ সেনা মোতায়েনের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। তারা জরুরি সেবাদান কাজে নিয়োজিত থাকবেন।

জাতীয় আবহাওয়া দপ্তরের পরিচালক লুইস উসেল্লিনি জানিয়েছেন, ‘তীব্র ঝড়ো হাওয়া, তুষারপাত, বিপজ্জনক অভ্যন্তরীন বন্যা হওয়ার যথেষ্ট আশঙ্কা রয়েছে। এই ঝড় এতোটাই বিপজ্জনক যে এতে প্রায় ৫ কোটি মানুষের ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।’

তবে তিনি আরো জানিয়েছেন, ‘এটি সবচেয়ে বিপজ্জনক ঝড় স্যান্ডির মত হবে না। কিন্তু অনেকটাই তীব্র হবে। আর এতে অনেক এলাকা ক্ষতিগ্রস্ত হবে।’

তুষারপাতের কারণে ওয়াশিংটন এবং বেল্টিমোরে শুক্রবার বিকেল থেকেই আবহাওয়া চরম খারাপের দিকে যাবে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। সেখানে ওই সময়ের মধ্যে সতর্কতা জারি করা হয়েছে। অপরদিকে নিউইয়র্কে জরুরি অবস্থা চালু হবে শনিবার সকাল থেকে।

এই ঝড়কে ২০১০ সালে ওয়াশিংটন ডিসিতে আঘাত হানা দু’টি ঝড়ের মধ্যে বেশি তীব্র ঝড় ‘স্নোমেগডোন্ড’য়ের সঙ্গে তুলনা করছেন ওয়েদার প্রেডিকশন সেন্টার মেটিওরোলজিস্ট পল কোসিন। সেসময় ওই ঝড়ে ৩০ ইঞ্চি তুষারপাত হয়েছিল। এবং তা পুরো ওয়াশিংটনকে ঢেকে দিয়েছিল।