logo

'১৯৫ পাকিস্তানি যুদ্ধাপরাধীর বিষয়ে তদন্ত কমিটি গঠন'

'১৯৫ পাকিস্তানি যুদ্ধাপরাধীর বিষয়ে তদন্ত কমিটি গঠন'

ঢাকা, ২১ জানুয়ারি- একাত্তরে গণহত্যার মূলপরিকল্পনাকারী ১৯৫ পাকিস্তানি সেনার অপরাধ তদন্ত এবং তথ্য উপাত্ত সংগ্রহে ৫ সদস্যের কমিটি গঠন করেছে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের তদন্ত সংস্থা। জাতির প্রত্যাশা পূরণে তারা এ উদ্যোগ নিয়েছেন বলে সংবাদ মাধ্যমকে জানান সংস্থাটির প্রধান সমন্বয় আব্দুল হান্নান খান।

এ প্রসঙ্গে ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউটর তুরিন আফরোজ বলেন, এখন ১৯৫ যুদ্ধাপরাধীর অপরাধ তদন্তে বাংলাদেশকে সহায়তা করতে আন্তর্জাতিকভাবে পাকিস্তানকে চাপ দিতে হবে।

তিনি আরো জানান, বিদ্যমান ট্রাইব্যুনাল আইনে তাদের বিচার সম্ভব হলেও,যুদ্ধাপরাধ অস্বীকার এবং ক্ষতিপূরণ সংক্রান্ত নতুন আরেকটি আইন প্রণয়নে কাজ করছে বাংলাদেশ আইন কমিশন।

আন্তর্জাতিক আইন, যুদ্ধাপরাধ, মানবতাবিরোধী অপরাধসহ সব অপরাধেই অভিযুক্ত ছিলেন,মুক্তিযুদ্ধে গণহত্যার মুলপরিকল্পনাকারী পাকিস্তানের ১৯৫ জন সেনা সদস্য। দেশ স্বাধীনের পর, ত্রি-পক্ষীয় চুক্তির আওতায় তাদের তুলে দেয়া হয় পাকিস্তানের হাতে। তবে শর্ত ছিল পাকিস্তান তাদের বিচার করবে।

কিন্তু পাকিস্তান শর্ত লংঘন করেছে। উল্টো একাত্তরে গণহত্যা নিয়ে নিজেদের দায় অস্বীকার করে আসছে। এ প্রেক্ষাপটে দাবি ওঠে এসব যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের আওতায় আনার।

এদিকে মৌলভীবাজারের ৫ রাজাকারের বিরুদ্ধে তদন্ত প্রতিবেদন চূড়ান্ত করেছে তদন্ত সংস্থা। বুধবার মৌলভীবাজারে এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান তদন্ত সংস্থার প্রধান সমন্বয়ক আব্দুল হান্নান খান।