logo

এক চুমুর দাম ২২ হাজার পাউন্ড!

এক চুমুর দাম ২২ হাজার পাউন্ড!

এক চুমুর মূল্য ২২ হাজার পাউন্ড। তা-ও আবার নগদে। ভাবা যায়!

এখন মনে প্রশ্ন জাগতেই পারে, কী এমন চুমু ছিল, যার এত দাম? উত্তরে বলা যেতেই পারে ‘বিষাক্ত চুমু’। অন্তত যিনি চুমু খেয়েছেন, এটা তাঁর ‘আত্মোপলব্ধি’।

এ বার সেই দামি চুমুর আসল ঘটনায় আসা যাক।

এক চিনা মহিলা পর্যটক তাইল্যান্ডে ফুকেতে গিয়েছিলেন বেড়াতে। সেখানেই একটি জায়গায় নানা রকম সাপের প্রদর্শনী চলছিল। দেরি না করে সেখানে হাজির হন ওই মহিলা। তখন এক ব্যক্তি হাতে সাপ নিয়ে লোকজনদের সেই বিষয়ে বোঝাচ্ছিলেন। অত্যুত্সাহী ওই মহিলা নিজেকে আর সামলাতে পারেননি। তখন ওই লোকটির হাতে একটি পাইথন ছিল।  মহিলার শখ হয় পাইথনকে চুমু খাবেন। সবে তাঁর ঠোঁট বাড়িয়েছন, অমনি ‘বিষাক্ত চুমু’ এসে পড়ল মহিলার নাকে। পাইথনের ‘চুমু’তে গভীর ক্ষত হয় তাঁর নাকে। তত ক্ষণে ওই বিষাক্ত চুমু ছাড়াতে ব্যস্ত প্রদর্শনীর কর্মীরা। অবশেষে পাইথনের চুমু খেয়ে সোজা হাসপাতালে দৌড়তে হয় মহিলাকে। নাকে অনেকগুলো সেলাই পড়ে। যার মূল্য চোকাতে হয় ২২ হাজার পাউন্ড খরচ করে।