logo

নাজমুল হুদা ভিড়ছেন ১৪ দলে?

আবদুর রশিদ


নাজমুল হুদা ভিড়ছেন ১৪ দলে?

নাজমুল হুদা

ঢাকা, ১৬ জানুয়ারি- বিএনপির স্থায়ী কমিটির সাবেক সদস্য নাজমুল হুদার নেতৃত্বাধীন বাংলাদেশ জাতীয় জোট (বিএনএ) যুক্ত হতে চায় আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন ১৪-দলীয় জোটে। এ ব্যাপারে ১৪-দলের সমন্বয়ক ও স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম ইতিবাচক মনোভাব দেখিয়েছেন। 

তবে আওয়ামী লীগের একটি সূত্র জানিয়েছে, বিএনএকে জোটে নেওয়ার আগে ১৪ দলের শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করা হবে। সেখানে নির্ধারণ করা হবে, নাজমুল হুদার জোটটি ১৪-দলীয় জোটের সঙ্গে যুক্ত হবে, না জোটের সঙ্গে যুগপৎভাবে থাকবে। পরে প্রস্তাবটি জোটের প্রধান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে পেশ করা হবে। 

বিএনএ জোটের চেয়ারম্যান নাজমুল হুদা বলেন, ‘আমরা তাদের (১৪-দল) সঙ্গে জোট করতে রাজি আছি। যদি আজকে দেশে সুস্থ রাজনীতি ও সুশাসন আনতে এই ১৪ দলীয় জোট কাজ করে এবং এই ব্যাপারে সিরিয়াস হয়, তবে অবশ্যই তাদের সঙ্গে কাজ করতে রাজি আছি।’ সরকারের বর্তমান বিভিন্ন কর্মকাণ্ডের ভূয়সী প্রশংসাও করেন নাজমুল হুদা। তিনি বলেন, ‘তারা যেভাবে সামনের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। তাদের শরিক হতে পারলে তো অসুবিধা নাই। একমাত্র পলিটিক্যাল সাইড ছাড়া এই সরকারকে সবদিক থেকে মানুষ মেনে নিয়েছে।’ ১৪-দলীয় জোটে যাওয়ার আগে তাঁরাও বিএনএ জোটের সঙ্গে বসবেন। জোটের নেতাদের সঙ্গে আলাপ করবেন। 

আওয়ামী লীগের একজন সভাপতিমণ্ডলীর  সদস্য বলেন, নাজমুল হুদার বর্তমান কর্মকাণ্ড জ্বালাও-পোড়াওয়ের বিরুদ্ধে। মুক্তিযুদ্ধের সপক্ষের শক্তি বলেও তাঁকে তাঁদের মনে হয়। তা ছাড়া রাজনীতিতে ভাঙা-গড়া সবকিছু চলে। তবে ১৪ দলের শীর্ষ নেতাদের অবজ্ঞা করে কোনো সিদ্ধান্ত নেবে না আওয়ামী লীগ। জোটের শীর্ষ নেতারা ইতিবাচক মনোভাব দেখালে কেবল তা জোটের প্রধান শেখ হাসিনার কাছে নাজমুল হুদার যোগদানের বিষয়ে আলোচনা হবে। 

গতকাল শুক্রবার বিকেলে সুপ্রিম কোর্ট বার অ্যাসোসিয়েশন মিলনায়তনে নাজমুল হুদার নেতৃত্বাধীন বিএনএর প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর কর্মসূচিতে প্রধান অতিথি ছিলেন ১৪ দলের মুখপাত্র ও আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মোহাম্মদ নাসিম। সেখানে তিনি বিএনএ-কে ১৪ দলে নেওয়ার ব্যাপারে ইতিবাচক মনোভাব দেখান। বিএনএ-কে ১৪ দলে নেওয়া হবে কি না, জানতে চাইলে মোহাম্মদ নাসিম বলেন, ‘১৪ দলসহ ওনাদের (বিএনএ) সঙ্গে বসব। আমাদের মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তি নিয়ে যেহেতু ১৪ দল নামে একটি জোট আছে; ওনাদের নিয়ে বসব। একটা বৈঠক হবে। এরপর প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনার পরে সিদ্ধান্ত নেব। তারা জোটের সঙ্গে থাকবে, না একই ধরনের কর্মসূচি পালন করবে। এটা নিয়ে ১৪-দলীয় জোট ও বিএনএ জোটের সঙ্গে মতবিনিময় হবে।’ তবে কবে নাগাদ এ বৈঠক হবে, সেটা নিয়ে বিস্তারিত জানাননি তিনি। 

অবশ্য বিএনএর প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন না নাজমুল হুদা। তবে নাজমুল হুদার প্রশংসা করতে ভোলেননি মোহাম্মদ নাসিম। তিনি বলেন, ‘আলোচনা করব, আলোচনা করেই এগিয়ে যাব। নাজমুল হুদা ভাই থাকলে ভালো হতো। উনি খুব ভালো ব্যক্তিত্ব।’