logo

২০০ দেশে ভিসা প্রসেসিং সমাধানে ‘ভিসা থিং’

২০০ দেশে ভিসা প্রসেসিং সমাধানে ‘ভিসা থিং’

ঢাকা, ১৬ জানুয়ারি- ধরুন আপনি ভ্রমণে বা কাজে নিউজিল্যান্ড অথবা আয়ারল্যান্ড যাবেন। দেশে বসেই পাসপোর্ট, টিকিটসহ টুকটাক কাজ শেষ করে ফেলেছেন। কিন্তু বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে ভিসা সম্পাদনের কাজ। এবার আপনাকে ভারতের নয়াদিল্লিতে থাকা ওই দুই দেশের দূতাবাসের সঙ্গে যোগাযোগ করতে হবে। সঙ্গে তো রয়েছে তথ্য এবং প্রয়োজনীয় কাগজ প্রস্তুত বিষয়ে নানা জটিলতা।

কী দুঃশ্চিন্তা ভর করেছে! এসব কোনো সমস্যাই নয়। শুধু ওই দুই দেশ নয়, বাংলাদেশে এমন যেসব দেশের দূতাবাস নেই, ওইসব দেশের ভিসা প্রসেসিং করে দিচ্ছে ‘ভিসা থিং’ নামে একটি প্রতিষ্ঠান। তাই আর দেশের বাইরে গিয়ে নয়, এরমাধ্যমে ঘরে বসেই হাতে পেয়ে যাবেন কাঙ্ক্ষিত ভিসা।

বাংলাদেশে যেসব দেশের দূত‍াবাস রয়েছে, সেসব দেশের ভিসা প্রসেসিংয়েরও সেবা পাওয়া যাচ্ছে ‘ভিসা থিং’ থেকে। ভিসা বিষয়ে সব রকম জটিলতা থেকে মুক্তি পেতে এবং আপনার ভ্রমণকে আরও সহজ করার জন্য প্রস্তুত ‘ভিসা থিং’। দেশের ভ্রমণ পিপাসুদের জন্য স্বীকৃতি পাওয়া প্রিমিয়াম আউট বাউন্ড ভ্রমণ সহকারীর নাম ‘ভিসা থিং’। ‘ভিসা থিং’র সংশ্লিষ্টরা এমনটাই জানালেন।

প্রতিষ্ঠানটির ব্যবসা অপারেশনাল হেড আহমদউল্লাহ বলেন, বাংলাদেশে ভিসা আবেদনের জন্য মাত্র ৪০টি দেশের দূতাবাস রয়েছে। অধিকাংশ দেশের দূতাবাস এখানে নেই। এসব ক্ষেত্রে সাধারণত আবেদনকারীকে ভিসার জন্য তৃতীয় দেশ ভ্রমণ করতে হয়। বাংলাদেশে দূতাবাস নেই এমন ৬০টিরও বেশি দেশের ভিসা সরবরাহ সহযোগিতা দিচ্ছে এ প্রতিষ্ঠান।


তিনি জানান, প্রায় ১৭০টি দেশের ক্ষেত্রে ভিসা ছাড়া ভ্রমণ করার সুযোগ বাংলাদেশি নাগরিকের নেই। উন্নত দেশের নাগরিকদের ক্ষেত্রে ব্যাপারটি ভিন্ন। তারা অনেক দেশেই ভিসা ছাড়া শুধু পাসপোর্ট বা  আইডি কার্ড নিয়েই ভ্রমণ করতে পারেন। বিভিন্ন কারণে বাংলাদেশি ভ্রমণকারীদের জন্য ভিসা প্রক্রিয়ার কাজটি খুব একটা সহজ নয়। অধিকাংশ ক্ষেত্রে, সঠিক তথ্যের অভাব অথবা তথ্য সংগ্রহের সমস্যার সম্মুখীন হওয়ায় কাজটি আরও জটিল হয়ে যায়। তাই ভিসা জটিলতায় অনেকেরই ভ্রমণ আটকে যায়।

ভিসা থিংয়ের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, তাদের ওয়েবসাইটে www.visathing.com প্রবেশ করেই ২০০টিরও বেশি দেশের ভিসা বিষয়ে তথ্য পাবেন আগ্রহীরা। খুব সহজেই যে কেউ ওয়েবসাইট থেকে সর্বশেষ তথ্য ও চেকলিস্ট পেতে পারেন। আহমদউল্লাহ বলেন, দেশের মানুষদের জন্য আন্তর্জাতিক ভ্রমণ সংক্রান্ত ঝামেলা থেকে মুক্তি দেওয়ার উদ্দেশেই আমাদের পথচলা। 

ভিসা প্রক্রিয়াকরণের পাশাপাশি প্রায় সব দেশের জন্য ভিসা পরামর্শ দিয়ে থাকে ভিসা থিং। এ প্রতিষ্ঠানের টিম গ্রাহকদের জন্য সবচেয়ে ভালো ভ্রমণ সংক্রান্ত সহযোগিতা দিতে সম্পূর্ণ নিবেদিত।

ভিসা থিং কেবল ভিসা প্রসেসিং এবং পরামর্শ দেওয়ার মধ্যেই সীমাবদ্ধ নেই, তারা তুরস্ক (Turkey) প্যাকেজ তৈরিতেও পারদর্শিতার প্রমাণ রাখছে বলা হচ্ছে। এর বিশেষ দিক হলো, এই প্যাকেজ গ্রাহকের চাহিদা অনুযায়ী যে কোনোভাবেই কাস্টমাইজ করা যায়।

আহমদউল্লাহ আরও জানান, নতুন বছরে বিশেষ আকর্ষণ হিসেবে ভিসা থিং একটি দারুণ অফার দিচ্ছে। যে কোনো তুরস্ক প্যাকেজ নিলেই থাকছে পাঁচ হাজার টাকা ছাড়। এই অফারটি ফেব্রুয়ারি মাস পর্যন্ত চলবে।

তিনি বলেন, ভিসা থিং এখন পর্যন্ত দেশে সর্ববৃহৎ ভিসা পরামর্শ ও ভিসা প্রক্রিয়াকরণে সহায়তা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান। এখান থেকে প্রয়োজনীয় সেবা পেতে ভিজিট করতে হবে www.visathing.com ওয়েবসাইটে অথবা ফোন করুতে হবে ০১৭৫-৫৫১৩৮০৪ নম্বরে।