logo

সতর্কতার ঘেরাটোপে ইন্দোনেশিয়া

সতর্কতার ঘেরাটোপে ইন্দোনেশিয়া

ইন্দোনেশিয়ার রাজধানী জাকার্তায় গতকাল শুক্রবার প্ল্যাকার্ড হাতে নারীদের সন্ত্রাসবিরোধী বিক্ষোভ।

জাকার্তা, ১৬ জানুয়ারি- রাজধানী জাকার্তায় সন্ত্রাসী হামলার পর ইন্দোনেশিয়া জুড়ে সতর্কতা জারি করা হয়েছে। মানুষের মধ্যে ভর করেছে ভয়। দেখা দিয়েছে উদ্বেগ। গত বৃহস্পতিবার জাকার্তার কয়েকটি স্থানে বিস্ফোরণ ও গোলাগুলিতে পাঁচ হামলাকারীসহ অন্তত সাতজন নিহত হয়। আহত হয়েছে ২০-২৪ জন। জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেট (আইএস) আনুষ্ঠানিকভাবে ওই হামলার দায় স্বীকার করেছে।

বার্তা সংস্থা এএফপির প্রতিবেদনে জানানো হয়, হামলার পরিপ্রেক্ষিতে জাকার্তায় নেমেছে সেনাবাহিনী। ভারী অস্ত্রশস্ত্রে সজ্জিত সেনা-ট্রাকগুলো রাজপথ দাপিয়ে বেরোচ্ছে। 
আরও হামলা হতে পারে—এমন আশঙ্কায় সন্ত্রাসীদের সম্ভাব্য লক্ষ্যবস্তু ও স্থাপনাগুলোতে নিরাপত্তা জোরদার করেছে কর্তৃপক্ষ। বর্তমান পরিস্থিতি সম্পর্কে ইন্দোনেশিয়ার জাতীয় পুলিশের মুখপাত্র আন্তন চার্লিয়ান বলেন, ‘ইন্দোনেশিয়াজুড়ে সতর্কতা জারি করা হয়েছে।’

আন্তন চার্লিয়ানের ভাষ্য, জাতীয় পুলিশ সর্বোচ্চ সতর্ক অবস্থায় রয়েছে। সম্ভাব্য ঝুঁকিপূর্ণ এলাকা, স্থান ও স্থাপনায় নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। এই কাজে সহায়তা দিচ্ছে সেনাবাহিনী।

সেনাবাহিনী কী ভূমিকা পালন করছে, তার বিস্তারিত বিবরণ দেননি পুলিশের ওই মুখপাত্র। তবে ভারী অস্ত্রসহ সেনাবাহী বেশ কিছু ট্রাক জাকার্তার রাজপথে চলতে দেখেছেন প্রত্যক্ষদর্শীরা।

কিছু বিদেশি দূতাবাসে পুলিশের বাড়তি নিরাপত্তা দেখা গেছে। জাকার্তায় পুলিশের কর্মকর্তারা সতর্ক রয়েছেন। দেশটির অবকাশকেন্দ্রগুলোতে টহল দিচ্ছে পুলিশ। তারা চোখ-কান খোলা রাখছে।

জঙ্গি হামলার ঘটনায় দেশটির নাগরিকেরা মর্মাহত। রাজধানীর ব্যস্ততম এলাকায় এমন হামলায় দেশটির মানুষের মধ্যে ভীতি ছড়িয়ে পড়েছে। শুধু ইন্দোনেশিয়াই নয়, দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার অন্যান্য দেশেও একধরনের আশঙ্কা দেখা দিয়েছে।

ইন্দোনেশিয়ার প্রেসিডেন্ট জোকো উইদোদো তাঁর দেশের জনগণকে শান্ত থাকার আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি বলেন, জনগণকে ভীত হলে চলবে না। সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের কাছে তারা হারবে না।

ইন্দোনেশিয়ায় ২০০০ থেকে ২০০৯ সাল পর্যন্ত বেশ কয়েকটি বড় ধরনের বোমা হামলা চালায় ইসলামপন্থী জঙ্গিরা। তবে নিরাপত্তা বাহিনীর ধরপাকড়ের মুখে দেশটির সবচেয়ে ভয়ংকর নেটওয়ার্কগুলো দুর্বল হয়ে পড়ে। ২০০৯ সালের পর দেশটিতে বড় কোনো জঙ্গি হামলা হয়নি। তবে সবশেষ হামলা ও এর ধরন ইন্দোনেশিয়ায় জন্য নতুন উদ্বেগ সৃষ্টি করেছে।


ইন্দোনেশিয়ার রাজধানী জাকার্তায় গতকাল শুক্রবার সন্দেহভাজন এক সন্ত্রাসীর বাড়ি তল্লাশি করে পুলিশ।