logo

ছোট পোশাকে বাবা রোমারিওর সাম্রাজ্য ভাঙতে চলেছেন মেয়ে

ছোট পোশাকে বাবা রোমারিওর সাম্রাজ্য ভাঙতে চলেছেন মেয়ে

১৯৯৪-এ একক কৃতিত্বে ব্রাজিলকে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন করেছিলেন রোমারিও। সেই কিংবদন্তি-ফুটবলারের জনপ্রিয়তাকে রীতিমতো চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়েছেন তাঁর মেয়ে। ছোট পোশাকে রোমারিওর জনপ্রিয়তায় থাবা বসিয়েছেন দানিয়েলি।

ব্রাজিলীয় কিংবদন্তি রোমারিওকে অচিরেই পিছনে ফেলে দেবেন তাঁর কন্যা দানিয়েলি ফাভাতো। সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইট ইনাস্টাগ্রামে ভক্তের সংখ্যার নিরিখে রোমারিওর ঘাড়ের কাছে এখন নিঃশ্বাস ফেলছেন তাঁর কন্যা। ইতিমধ্যেই ইনস্টাগ্রামে দানিয়েলির ভক্তের সংখ্যা প্রায় এক লক্ষ ছুঁইছুঁই। রোমারিওর ভক্তের সংখ্যা সেখানে মেয়ের থেকে মাত্র ষোলো হাজার বেশি। ২০১৩-য় ইনস্টাগ্রামে প্রথম ছবি পোস্ট করেন রোমারিওর কন্যা। তার পর থেকেই ইনস্টাগ্রামে ঝড় তুলেছেন দানিয়েলি।

অতীতে দানিয়েলির বাবাও মাঠে নেমে ঝড় তুলতেন। তবে তা গোল করে। বিপক্ষের ডিফেন্সে ত্রাহি ত্রাহি রব তুলে দিতেন তিনি। ১৯৯৪ বিশ্বকাপের নায়ক রোমারিও। আর রোমারিওর কন্যা দানিয়েলি স্বল্পপোশাকের সুবাদে ইতিমধ্যেই সুনাম কুড়িয়েছেন। নিন্দুকরা বলছেন, রোমারিওকে কয়েকদিনের মধ্যেই পিছনে ফেলে এগিয়ে যাবেন কন্যা।
 
লিও মেসি এখন যে ক্লাবের হয়ে ফুল ফোটাচ্ছেন, অতীতে রোমারিও সেই বার্সেলোনার হয়েও মাঠে আগুন জ্বালিয়েছেন। বার্সা, পিএসভি আইন্দহোভেনের মতো ক্লাবে সুনামের সঙ্গে খেলেছেন রোমারিও। ক্লাবপর্যায়ে হাজারখানেক গোলের মালিক তিনি। অন্যদিকে, বিকিনি-পরিহিতা রোমারিও-কন্যা এখন সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটে ভক্তদের সেলাম কুড়োচ্ছেন।  রোমারিও দেখে লজ্জায় পড়ে যাবেন না তো!