logo

টিআইবির প্রতিবেদন উদ্দেশ্য প্রণোদিত এবং দূরবিসন্ধিমূলক: বিজিএমইএ

টিআইবির প্রতিবেদন উদ্দেশ্য প্রণোদিত এবং দূরবিসন্ধিমূলক: বিজিএমইএ

ঢাকা, ১৫ জানুয়ারী- দেশের গার্মেন্টস শিল্প নিয়ে টিআইবির প্রতিবেদন প্রত্যাখান করেছে বিজিএমইএ। বিদেশ থেকে অর্থ এনে টিআইবি গবেষণা করছে নাকি দেশের শিল্প ধ্বংসের চেষ্টা করছে তা খতিয়ে দেখতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে তারা। শুক্রবার বিকেলে বিজিএমইএ ভবনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন সংগঠনটির সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান।

লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, আমরা টিআইবির এই প্রতিবেদনটিকে প্রত্যাখ্যান করছি। কারণ ৭৪ জনের মন্তব্য নিয়ে লাখ লাখ শ্রমিক, উদ্যোক্তা ও ক্রেতার এই শিল্পকে নিয়ে ঢালাও মন্তব্য করা কখনোই পোশাক শিল্পের জন্য সহায়ক নয়। এ বিষয়ে টিআইবি আমাদের সঙ্গে কথা বলেনি।

বিজিএমইএ সভাপতি আরও বলেন, আমরা নাকি নিম্নমানের পণ্য কেনার জন্য ঘুষ দিচ্ছি। যেখানে আমরা অ্যাকর্ড ও অ্যালায়েন্স নিয়ে কাজ করছি, সেখানে ঘুষ দিয়ে ক্রেতাকে ম্যানেজ করা এটা কতটা যুক্তিযুক্ত। এ সময় তিনি সাংবাদিকদের বলেন, আনুষ্ঠানিকভাবে এই গবেষণার কপি টিআইবি আমাদের দেয়নি। আমরা গণমাধ্যম থেকে এই তথ্য জানতে পেরেছি।

পোশাক শিল্প নিয়ে টিআইবি এক গবেষণা প্রতিবেদন প্রকাশ করে। তারা বলেছে, তৈরি পোশাক খাতে ১৬ ধরনের দুর্নীতি ও অনিয়ম হয়। এর সঙ্গে জড়িত থাকেন কারখানার মালিক, মার্চেন্ডাইজার ও বিদেশি ক্রেতারা। পণ্যের মান, পরিমাণ ও কমপ্লায়েন্সের ঘাটতি ঘুষের মাধ্যমে ধামাচাপা দেয়া হয় বলেও জানায় টিআইবি।