logo

ত্রিপুরার রাজ্যপালের সঙ্গে শহীদ এলবার্টের পরিবারের সাক্ষাৎ

ত্রিপুরার রাজ্যপালের সঙ্গে শহীদ এলবার্টের পরিবারের সাক্ষাৎ

আগরতলা, ১৫ জানুয়ারি- ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে পাক হানাদার বাহিনীর সঙ্গে সম্মুখ সমরে শহীদ ল্যান্স নায়েক ও ভারতীয় সেনাবাহিনীর সর্বোচ্চ সম্মান ‘পরমবীর চক্র’প্রাপ্ত এলবার্ট এক্কার পরিবারের সদস্যরা ত্রিপুরার রাজ্যপালের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন।

বৃহস্পতিবার (১৪ জানুয়ারি) রাজভবনে এলবার্ট এক্কার ৮৫ বছর বয়সী স্ত্রী বলমদীনা এক্কা, পুত্র ভীমসেন্ট এক্কা, পুত্রবধূ রজনী এক্কাসহ ঝাড়খন্ড রাজ্যের এক প্রতিনিধি দল আসাম রাইফেলসের ডিআইজি ব্রিগেডিয়ার নবীন সষদেবের নেতৃত্বে রাজ্যপাল তথাগত রায়ের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন। 

মুক্তিযুদ্ধের সময় নয়জন পাক সেনাকে বধ করে এলবার্ট এক্কা শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। তার আত্মবলিদানের জন্য বাংলাদেশের গঙ্গাসাগর এলাকায় ভারতীয় সেনা বাহিনীর অবস্থান নিশ্চিত হয়। তার মরদেহ আগরতলার বাধারঘাটের শ্রীপল্লী এলাকায় সমাধিস্থ করা হয় ও পরবর্তীতে ভূষিত করা হয় মরণোত্তর পরম বীরচক্র সম্মানে।

এক্কার স্ত্রীসহ ঝাড়খন্ড রাজ্যে অবস্থানরত পরিবারের সদস্যরা তার সমাধি খুঁজে পাচ্ছিলেন না। অবশেষে ভারতের প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের সহায়তায় সম্প্রতি তারা শহীদ এক্কার সমাধির খবর পান ও আগরতলায় এসে শ্রদ্ধা নিবেদন করে সমাধির মাটি সংগ্রহ করেন। তারা রাজ্যপালের সঙ্গে দেখা করার আগে মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকারের সঙ্গেও দেখা করেন।