logo

ইন্টারনেট সেলেব্রেটি কীভাবে হবেন?

ইন্টারনেট সেলেব্রেটি কীভাবে হবেন?

সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমগুলোর আকাশছোঁয়া জনপ্রিয়তার কারণে বর্তমানে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে। শুধুমাত্র সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ব্যবহার করে অনেকে রাতারাতি বনে গেছেন তারকা। আর এই ধরনের ‘তারকাখ্যাতি’ কাজে লাগিয়ে অনেকে আর্থিকভাবে লাভবানও হচ্ছেন। তাহলে কীভাবে হবেন ইন্টারনেট তারকা?

ইন্টারনেট সেলিব্রেটিদের মতে, ইন্টারনেটে বিখ্যাত হওয়ার প্রথম পদক্ষেপ হচ্ছে- নিজের মধ্যে এমন কিছু খুঁজে বের করা, যা আপনাকে ব্যতিক্রম বা অসাধারণ করে তুলবে।  

শুধুমাত্র ‘সুন্দর চুলের ঝুঁটির’ কারণে ইনস্টাগ্রামে এক ব্যক্তির ১৭ লাখ ফলোয়ার তৈরি হয়েছে। আরেকজন ইউটিউবে ‘ফ্যানগার্ল’ নিয়ে অভিনয় করে ৪০ লাখ সাবস্ক্রাইবার তৈরি করেছেন।

মাইহা লুঅং(২৫) ভিয়েতনামের নাগরিক। বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রে থাকেন। হাইস্কুলের গণ্ডি পার হতে পারেননি। কিন্তু তিনি এখন যুক্তরাষ্ট্রের সেরা একজন নখ ডিজাইনার। যুকরাষ্ট্রের ম্যারিল্যান্ডের ক্যাপিটাল হাইটসের স্ট্রিপ মলে তার একটি নখের সৌন্দর্য বৃদ্ধির সেলুন আছে।

তার সেলুনটি যে জায়গাতে সেখানে পর্যাপ্ত গ্রাহক পাওয়া সহজ ব্যাপার ছিল না। মাইহা অনেকদিন ধরেই ভাবছিল, কীভাবে তার সেলুনে গ্রাহক বাড়ানো যায়।  

কয়েক দশক ধরে, তারকারা ছিল পণ্যের প্রচার এবং প্রসারের জন্য অন্যতম অবলম্বন। কিন্তু লুঅং তার দোকানের প্রচারের জন্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম বেছে নেন। আর তিনি নিজেই চালান তার দোকানের প্রচারণা।

গত বছর, মাইহা লুঅং নখের বিভিন্ন ডিজাইনের একশ’র মতো ভিডিও আপলোড করেন।

ভিডিওগুলোতে লুঅং কৃত্রিম রঙিন চুল, চোখের পাঁপড়ি, নখ ব্যবহার করেছেন। ভিডিও আপলোড করার পর ব্যাপক সাড়া পান তিনি।

সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে তার ১০ লাখ অনুসারী রয়েছে। প্রতিদিন নতুন করে এক হাজার অনুসারী যুক্ত হচ্ছে। বর্তমানে মাইহা লুঅং হচ্ছেন, যুক্তরাষ্ট্রের প্রথম ভিয়েতনামিয়ান জনপ্রিয় নখ ডিজাইনার।