logo

বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতি চলছে

বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতি চলছে

ঢাকা, ১১ জানুয়ারী- পূর্ব ঘোষিত সিদ্ধান্ত অনুযায়ী অষ্টম বেতন কাঠামোয় ‘অসঙ্গতি’ দূর করতে বেধে দেয়া সময় শেষ হওয়ায় সোমবার থেকে সারা দেশের সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে শিক্ষকদের অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতি চলছে। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত শিক্ষকদের কঠোর কর্মসূচির কারণে ইতোমধ্যে অচল হয়ে পড়েছে দেশের সবগুলো সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়।    

শিক্ষকদের অভিযোগ, নতুন জাতীয় বেতন কাঠামোতে তাদের প্রতি শুধু বৈষম্যই নয়, তাদের অমর্যাদাও করা হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকদের জন্য অষ্টম জাতীয় বেতনকাঠামোতে অর্থমন্ত্রী-প্রদত্ত প্রতিশ্রুতিসমূহ পূরণ ও অন্যান্য অসঙ্গতি দূর করার বিষয়ে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় থেকে এখনও কোনো পদক্ষেপ গ্রহণ করেনি।  

বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি ফেডারেশনের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, পূর্ব ঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী ফেডারেশনভুক্ত দেশের সব পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষকদের আজ থেকে লাগাতার কর্মবিরতি পালিত হচ্ছে। দাবি পূরণ না হওয়া পর্যন্ত এ কর্মসূচি অব্যাহত থাকবে। সান্ধ্যকালীন কোর্সসমূহের ক্ষেত্রেও এ কর্মসূচি প্রযোজ্য হবে বলে এতে উল্লেখ করা হয়েছে। তবে পরীক্ষা সংক্রান্ত বিষয়ে স্ব স্ব বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতি সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবেন।

বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক ফেডারেশনের মহাসচিব মাকসুদ কামাল বিবিসি-কে জানান, ‘মে মাস থেকে ক্রমাগত দাবি তুলে ধরে বিভিন্ন চেষ্টা করেছেন। সিদ্ধান্তপ্রণেতারা সকলেই বলছেন আমাদের দাবি ন্যায্য কিন্তু তারপরও তা পূরণে কোন উদ্যোগ আমরা দেখি নি।’

শিক্ষকদের বিরুদ্ধে ছাত্র ছাত্রীদের জিম্মি করে আন্দোলন করার অভিযোগের প্রেক্ষিতে কামাল বলেন, ‘ছাত্র ছাত্রীরা যাতে জিম্মি না হয় তাই গত আট মাস ধরে বারবার দাবি তুলে আসছি আমরা। বেতন বৈষম্য নিরসন কমিটিতে যেসব মন্ত্রীরা রয়েছেন তাদের সাথে বার বার বসা হয়েছে। যত উপায় ছিলো সবকিছু চেষ্টা করেই তবে এই কর্মবিরতি।’

প্রসঙ্গত, গত ২ জানুয়ারি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের মোজাফফর আহমেদ চৌধুরী মিলনায়তনে এক ব্রিফিংয়ে বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি ফেডারেশনের মহাসচিব অধ্যাপক এএসএম মাকসুদ কামাল এ ঘোষণা দেন। এ ঘোষণার সঙ্গে দেশের পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সংগঠনগুলো একাত্মতা প্রকাশ করে।

উল্লেখ্য, গত আট মাস ধরে অষ্টম জাতীয় বেতন কাঠামোতে নিজেদের মর্যাদার অবনমন এবং স্বতন্ত্র বেতন কাঠামো বাস্তবায়নসহ চার দফা দাবিতে আন্দোলন করে আসছে দেশের ৩৭টি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরা।