logo

ফিফার ভুলে ফাঁস ব্যালন ডি অর জয়ীর নাম

ফিফার ভুলে ফাঁস ব্যালন ডি অর জয়ীর নাম

জমকালো অনুষ্ঠানের মধ্যদিয়ে ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থা, ফিফা প্রতিবারের মতো এবারও ঘোষণা করবে ২০১৫ সালের সেরা খেলোয়াড় (পুরুষ ও নারী) ও কোচের নাম। তবে, তার আগেই ফিফার ওয়েবসাইটে ঘোষিত হয়েছে বর্ষসেরা পুরুষ ও নারী ফুটবলারের নাম।

আগামী ১১ জানুয়ারি জুরিখে ফিফা ব্যালন ডি’অর ঘোষণা করা হবে। পুরুষ বর্ষসেরাদের এ তালিকায় চূড়ান্তভাবে জায়গা পেয়েছেন আর্জেন্টাইন দলপতি লিওনেল মেসি, পর্তুগিজ অধিনায়ক ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো আর ব্রাজিলের দলপতি নেইমার। নারী ফুটবলারদের মাঝে রয়েছেন আমেরিকার কার্লি লয়েড, জাপানের আয়া মিয়ামা এবং জার্মানির সেলিয়া সাসিক।


ভুলবশত ফিফার ওয়েব সাইট থেকে আগেই প্রকাশ হয়, মেসি এবং সাসিকের হাতে উঠেছে এবারের ব্যালন ডি’অর।

ব্যালন ডি অর জিততে মেসি টপকে গেছেন রিয়াল মাদ্রিদের রোনালদো আর ক্লাব সতীর্থ বার্সেলোনার নেইমারকে। ৫৩ ম্যাচে ৪৮ গোল করে পুরস্কার হাতে তুলেছেন মেসি। এদিকে, ১১১ ম্যাচে ৬৩ গোল করা সাসিক জিতেছেন ২০১৫ সালের বর্ষসেরা নারী ফুটবলারের পুরস্কার। তিনি ২০১৫ সালে দেশের হয়ে অবসর নেন।


এ ঘটনার পর ফিফা তাদের অফিসিয়াল টুইটারের মাধ্যমে বিশ্ব ফুটবল প্রেমীদের কাছে ক্ষমা চেয়ে নেয়। তারা জানায় ‘দুপুরে যে স্টোরিটি আমাদের অফিসিয়াল ওয়েবপেইজে আপলোড করা হয়, সেটি মিথ্যে। ২০১৫ সালের ব্যালন ডি অর এখনও প্রকাশিত হয়নি।’ আরেকটি টুইটের মাধ্যমে ফিফা জানায়, ‘গত নভেম্বরের একটি স্টোরি ভুলবশত ওয়েবসাইটে চলে আসে। এটি টেকনিক্যাল সমস্যার জন্য সৃষ্টি হয়েছে। মেসি এবং সাসিককে সেখানে ব্যালন ডি অর জয়ী হিসেবে দেখানো হয়। আসলে মেসি উয়েফা বেস্ট প্লেয়ার ইন ইউরোপ পুরস্কার পেয়েছিলেন এবং সাসিক নারী ফুটবলার হিসেবে এই পুরস্কার পেয়েছিলেন।’

সুইজারল্যান্ডের জুরিখে বর্নিল অনুষ্ঠানের মধ্যদিয়ে প্রকাশ করা হবে ২০১৫ সালের বর্ষসেরা ফুটবলারের নাম। তার আগেই অনিচ্ছাকৃত ভুলে এমন খবর প্রকাশিত হওয়ায় ফিফা সকলের কাছে ক্ষমা চেয়েছে।