logo

মৌসুমীর বিরুদ্ধে ‘রাষ্ট্রবিরোধী কাজে’ যুক্ত থাকার অভিযোগ

মৌসুমীর বিরুদ্ধে ‘রাষ্ট্রবিরোধী কাজে’ যুক্ত থাকার অভিযোগ

ঢাকা, ০৭ জানুয়ারী- ‘রাষ্ট্র বিরোধী কার্যকলাপে’ যুক্ত থাকার অভিযোগেই পাকিস্তানে বাংলাদেশের হাইকমিশনের কাউন্সিলর মৌসুমী রহমানকে সরিয়ে নেয়ার অনুরোধ জানানো হয়েছে। দেশটির কূটনীতিকদের বরাত দিয়ে সংবাদ মাধ্যম ডন এমন খবর প্রকাশ করেছে।

প্রকাশিত সংবাদে বলা হয়, বাংলাদেশে পাকিস্তানের হাইকমিশনে নিযুক্ত এক কূটনীতিককে প্রত্যাহারের পর প্রতিশোধ নিতেই পাকিস্তান ইসলামাবাদ থেকে বাংলাদেশের এক কূটনীতিককে প্রত্যাহারের অনুরোধ জানিয়েছে বলে ঢাকা থেকে বলা হয়েছে।

ডনের সংবাদে বলা হয়, বাংলাদেশের পররাষ্ট্র সচিব শহিদুল হক বলেছেন, মঙ্গলবার পাকিস্তান থেকে বাংলাদেশের কূটনীতিক মৌসুমী রহমানকে ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে প্রত্যাহারের অনুরোধ জানিয়েছে ইসলামাবাদ।

শহিদুল হকের বরাতেই বলা হয় যে, পাকিস্তান মৌসুমী রহমানকে বৃহস্পতিবারের মধ্যে প্রত্যাহার করে নেয়ার অনুরোধ জানিয়েছে।

তবে মৌসুমী রহমানকে পাকিস্তানের বাংলাদেশ হাইকমিশনে নিযুক্ত রাখার জন্য ঢাকা থেকে কোনো রকম অনুরোধ করা হয়নি বলে জানানো হয়েছে। ডনের সংবাদে বলা হয় পাকিস্তানের কূটনৈতিক সূত্র সংবাদ মাধ্যমটিকে জানিয়েছে যে, মৌসুমী রহমান ‘পাকিস্তানে রাষ্ট্র বিরোধী কাজে’ যুক্ত ছিলেন এবং বিষয়টি নিয়ে উদ্বিগ্ন ছিল পাকিস্তানের গোয়েন্দা সংস্থা।

এবারই প্রথম পাকিস্তান বাংলাদেশের কোনো কূটনীতিককে প্রত্যাহারের অনুরোধ করেছে।

ডিসেম্বরের ২৩ তারিখ বাংলাদেশের অনুরোধের প্রেক্ষিতে ফারিনা আরশাদকে প্রত্যাহার করে নেন। তার বিরুদ্ধে জঙ্গি সংস্থাকে অর্থায়ন এবং পাকিস্তানের হয়ে গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগ আনা হয়।

তখন পাকিস্তান এক বিবৃতিতে জানায় দাবি করে যে, ‘ফারিনা আরশাদকে তথাকথিত জঙ্গিদের সঙ্গে জড়িয়ে তার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ আনা হয়েছে এবং সংবাদমাধ্যমে সংগঠিতভাবে অনবরত তার বিরুদ্ধে মিথ্যা প্রচারণা চালানো হচ্ছে।’