logo

মেয়েকে হত্যার পর বাবার আত্মহত্যা

মেয়েকে হত্যার পর বাবার আত্মহত্যা

খুলনা, ০৬ জানুয়ারি- নগরীর ৭নং আহসান আহমেদ রোডের নিজ বাড়িতে প্রতিবন্ধী মেয়েকে শ্বাসরোধে হত্যার পর  আত্মহত্যা করেছেন মোস্তফা কামাল(৫২) নামে এক বাবা। 

বুধবার ভোরে বাবা-মেয়ের মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। মৃত মোস্তফা কামাল খুলনা পরমানু শক্তি কমিশনে হিসাব রক্ষক হিসেবে কাজ করতেন।

খুলনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শফিকুল ইসলাম জানান, মঙ্গলবার রাতের কোনো এক সময় মোস্তফা কামাল তার প্রতিবন্ধী মেয়ে সুমাইয়া অরিণকে (১৬) শ্বাসরোধে হত্যা করেন। এরপর তিনি নিজে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন। 

বুধবার ভোরে ফজরের সময় মেয়েটির মা ঘরের দরজা খোলার জন্য ডাকে। এসময় ভিতর থেকে কোনো সাড়া শব্দ না পেয়ে স্থানীয় ও পরিবারের অন্যান্যদের সংবাদ দেয়। পরে দরজা ভেঙে ভিতরে প্রবেশ করে দেখে মেয়েটি খাটে মৃত অবস্থায় এবং বাবা গলায় ফাসিঁ দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। পরে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে বাবা-মেয়ের লাশ উদ্ধার করে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠায়। 

ওসি আরো জানান, মোস্তফা কামাল অসুস্থ ছিলেন। সম্প্রতি তিনি ঢাকা থেকে বদলি হয়ে খুলনায় এসেছেন। তার চাকরি নিয়ে ঝামেলা চলছিল। এ কারণে এমন ঘটনা ঘটেছে বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে।